ইভিএম বাদ, পরিস্থিতি বুঝে সেনাবাহিনী

আগামী নির্বাচনে জামায়াতকে চায় না ইসি: মাহবুব

প্রকাশ: ১৪ নভেম্বর ২০১৭      

সমকাল প্রতিবেদক

মাহবুব তালুকদার -ফাইল ছবি

আদালতের নির্দেশে নিবন্ধন বাতিল ও যুদ্ধাপরাধের দায়ে অভিযুক্ত দল জামায়াতে ইসলামীর নেতাদের নির্বাচন কমিশন (ইসি) আগামী নির্বাচনে গ্রহণ করতে চায় না বলে জানিয়েছেন কমিশনার মাহবুব তালুকদার। এই দলের নেতাদের কেউ স্বতন্ত্র প্রার্থী হলে বিচার-বিশ্নেষণ করে সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথাও জানান তিনি।

মঙ্গলবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে নিজ কক্ষে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এসব কথা বলেন। তবে জামায়াত নেতাদের অংশগ্রহণ রোধে নতুন কোনো আইন প্রণয়নের পরিকল্পনা ইসির রয়েছে কি-না তা পরিস্কার করেননি তিনি।

দশম সংসদ নির্বাচন বর্জনকারী দল বিএনপি এবারও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দাবি করে বলেছে, সংবিধান অনুযায়ী বর্তমান সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন হবে না। এ বিষয়ে মাহবুব তালুকদার বলেন, ইসি সদস্যরা সংবিধান অনুযায়ী দায়িত্ব পালনের শপথ নিয়েছেন। সংবিধানের আলোকেই দায়িত্ব পালন করতে হবে।

এক প্রশ্নের জবাবে মাহবুব তালুকদার বলেন, এবার নতুন দলের নিবন্ধনের ক্ষেত্রে কমিশন অনেক সতর্ক রয়েছে। আবেদনকারীদের শর্ত পূরণের বিষয়টি কঠোরভাবে পর্যবেক্ষণ করা হবে। দোকান ভাড়া নিয়ে দলীয় কার্যালয় হিসেবে দেখানোর সুযোগ এবার হবে না।

সংসদীয় আসনের সীমানা পুনর্নির্ধারণের বিষয়ে কমিশনার মাহবুব বলেন, এটি সম্ভবত আদমশুমারির সঙ্গে সম্পর্কিত। তবে এবার কিছু ছিটমহল যুক্ত হয়েছে। ইসি তাদেরও যুক্ত করার চিন্তা করছে। সে ক্ষেত্রে সীমানা পুনর্নির্ধারণের বিষয়টি আসতে পারে।

একাদশ সংসদ নির্বাচনে সেনা মোতায়েন প্রসঙ্গে মাহবুব তালুকদার বলেন, নির্বাচনে সেনাবাহিনী থাকা জনগণের প্রত্যাশার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ। যদিও এটা তার ব্যক্তিগত মত বলেও জানান তিনি। তবে এ বিষয়ে ইসি এখনও কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি জানিয়ে তিনি বলেন, দেশের অবস্থা, রাজনৈতিক সংস্কৃতি ও পরিবেশ সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে বড় নিয়ামক হিসেবে কাজ করবে। সময়ই বলে দেবে সেনা মোতায়েনের প্রক্রিয়া কী হবে। তিনি আরও বলেন, ফৌজদারি কার্যবিধিতেও বলা আছে, সেনাবাহিনীর কমিশন অফিসার কোথাও গণ্ডগোল দেখলে আইনের আওতায় আনতে পারবেন। সে হিসাবে ইসি কোথাও সীমিত হয়ে পড়ছে না।

মাহবুব তালুকদার বলেন, নির্বাচনের একটা অনুষঙ্গ হচ্ছে যারা হেরে যান তারা প্রশ্নবিদ্ধ করেন। ইসির দায়-দায়িত্ব জনগণের কাছে। যদি নির্বাচনের কোনো প্রতিকূল পরিবেশের সম্মুখীন হতে হয় সেক্ষেত্রে কমিশন ভীত নয়। দেশের মানুষ যদি বোঝে ইসি একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের চেষ্টা করছে সেটাই হবে কমিশনের সফলতা।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সময়স্বল্পতার কারণে আগামী জাতীয় নির্বাচনে দেশব্যাপী ইভিএম ব্যবহার করা সম্ভব হবে না।

আরও পড়ুন

আন্দোলনে বিএনপি শরিকদের নজর আসনে

আন্দোলনে বিএনপি শরিকদের নজর আসনে

খালেদা জিয়া কারাগারে; নির্বাচনের চেয়ে তার মুক্তি বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে ...

এখনই ফয়সালা চায় ১৪ দলের শরিকরা

এখনই ফয়সালা চায় ১৪ দলের শরিকরা

আগামী সংসদ নির্বাচনের আসন বণ্টনের দাবিতে এখনই সোচ্চার আওয়ামী লীগ ...

নকশা পরিবর্তনে কমেছে সক্ষমতা

নকশা পরিবর্তনে কমেছে সক্ষমতা

দ্বিতীয় সাবমেরিন কেবল ট্রান্সমিশন লিংক স্থাপনে মূল নকশার পরিবর্তন করে ...

শিক্ষা ক্যাডারে সাড়ে ১২ হাজার নতুন পদ

শিক্ষা ক্যাডারে সাড়ে ১২ হাজার নতুন পদ

নতুন সাড়ে ১২ হাজার পদ সৃষ্টি হচ্ছে বিসিএস (সাধারণ শিক্ষা) ...

 সক্রিয় আওয়ামী লীগ ও জাপা, নির্ভার বিএনপি

সক্রিয় আওয়ামী লীগ ও জাপা, নির্ভার বিএনপি

লালমনিরহাট-৩ (সদর) আসনে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী সরকারি দল আওয়ামী লীগ। ...

যেমন ভিড় তেমন বিক্রি

যেমন ভিড় তেমন বিক্রি

দুপুর দেড়টা :  সবেমাত্র শেষ হয়েছে শিশুপ্রহর, বেরিয়ে আসছে সবাই, ...

বিয়েবাড়ির ধুমধামে নিমেষেই বিষাদ

বিয়েবাড়ির ধুমধামে নিমেষেই বিষাদ

বিয়েবাড়িতে ধুমধাম আনন্দ-উল্লাস চলছে, গরু-খাসি জবাই করে চলছে রান্নাবান্না। বিশাল ...

ছুটির বিকেলে নাতি-নাতনির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী

ছুটির বিকেলে নাতি-নাতনির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী

ব্যস্ততার মাঝে সামান্য সময় মিললে সেটুকুই পরিবারের সঙ্গে ভাগ করে ...