৫ম দিনে ইবতেদায়ি শিক্ষকদের অনশন, অসুস্থ ১২৫

প্রকাশ: ১৩ জানুয়ারি ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা জাতীয়করণের দাবিতে গত ৯ জানুয়ারি জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আমরণ অনশন শুরু করেছেন শিক্ষকরা; ছবিটি শুক্রবার তোলা—কাজল হাজরা

স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা জাতীয়করণের দাবিতে শিক্ষকদের আমরণ অনশন পঞ্চম দিনে পড়েছে।

শনিবার পর্যন্ত জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এ অনশনে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন ১২৫ জন শিক্ষক। তীব্র শীতে অনশন অব্যাহত থাকায় প্রতিদিন অসুস্থ শিক্ষকের সংখ্যা বাড়ছে।

বাংলাদেশ স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো. রুহুল আমিন বলেন, 'শিক্ষামন্ত্রীর কাছ থেকে অনেক প্রতিশ্রুতি পেয়েছি। তার কথায় আমাদের আস্থা নেই। প্রধানমন্ত্রীর তরফ থেকে ঘোষণা না আসা পর্যন্ত আমরা আন্দোলন চালিয়ে যাব।'

শিক্ষকরা জানান, ২০১৩ সালের ৯ জানুয়ারি ২৬ হাজার ১৯৩টি বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করে সরকার। এসব বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের প্রতি মাসে দেওয়া হচ্ছে ২২ থেকে ৩০ হাজার টাকা করে। কিন্তু ১৯৯৪ সালে বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষকদের বেতন নির্ধারণ করা হয় পাঁচশ' টাকা। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মতো স্বতন্ত্র ইবতেদায়ির পঞ্চম শ্রেণির কার্যক্রম এক হলেও স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসার শিক্ষকরা বেতন বৈষম্যের শিকার। তাই যতদিন সরকারের তরফ থেকে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা জাতীয়করণ না করা হবে, ততদিন রাস্তায় অনশনে থাকবেন তারা।

চলতি বছরের প্রথম দিন থেকে ৮ জানুয়ারি পর্যন্ত অবস্থান ধর্মঘট পালনের পরও দাবি পূরণের আশ্বাস না পাওয়ায় পরদিন থেকে আমরণ অনশন কর্মসূচি শুরু করেছেন শিক্ষকরা।

আরও পড়ুন

এক মাসের মধ্যেই রাষ্ট্রপতি নির্বাচন

এক মাসের মধ্যেই রাষ্ট্রপতি নির্বাচন

রাষ্ট্রপতির দায়িত্বে মো. আবদুল হামিদের ৫ বছর মেয়াদ পূর্ণ হচ্ছে ...

পরিবেশের সর্বনাশ

পরিবেশের সর্বনাশ

'ত্রিশ বছর আগেও চার-পাঁচটি জেলেপল্লী ছিল সাভারের সাধাপুর থেকে ধামরাই ...

একই সুতোয় দুই বাংলা

একই সুতোয় দুই বাংলা

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তরাঞ্চল আর বাংলাদেশের উত্তরবঙ্গ- এ দুই এলাকায় যেসব ...

আওয়ামী লীগে একক প্রার্থী বিএনপিতে অস্থিরতা

আওয়ামী লীগে একক প্রার্থী বিএনপিতে অস্থিরতা

একক প্রার্থী নিশ্চিত থাকায় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ...

মেয়ে হয়ে জন্মানোই ছিল অপরাধ!

মেয়ে হয়ে জন্মানোই ছিল অপরাধ!

প্রথম সন্তান মেয়ে হওয়ায় বাবার চাওয়া ছিল পরেরটি ছেলে হোক। ...

ভালো হওয়ার সুযোগ পাবে 'বিপথগামীরা'

ভালো হওয়ার সুযোগ পাবে 'বিপথগামীরা'

জঙ্গিবাদে জড়িত থাকার সুনির্দিষ্ট অভিযোগে সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জ থেকে এক তরুণকে ...

রিয়ালের স্বস্তির জয়

রিয়ালের স্বস্তির জয়

সবশেষ গত বছরের ডিসেম্বরে সেভিয়াকে বিধ্বস্ত করে লা লীগায় জয়ের ...

পদবঞ্চিতদের বিক্ষোভের মুখে ওবায়দুল কাদের

পদবঞ্চিতদের বিক্ষোভের মুখে ওবায়দুল কাদের

গঠন প্রক্রিয়ায় থাকা আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির সহসম্পাদক পদ নিয়ে ...