কোনো রাগ-ক্ষোভ নেই: জাফর ইকবাল

প্রকাশ: ১৪ মার্চ ২০১৮     আপডেট: ১৪ মার্চ ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক ও সিলেট ব্যুরো

সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশবিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) হামলার শিকার অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবাল বলেছেন, হামলাকারীর ওপর তার কোনো রাগ-ক্ষোভ নেই। বরং তার মতো তরুণদের জন্য তিনি দুঃখ বোধ করেন।

নিরাপত্তা নিয়েও তার কোন শঙ্কা নেই বলেও জানিয়েছেন তিনি।

বুধবার সকালে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল (সিএমএইচ) থেকে সিলেটে যাওয়ার পথে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের একথা বলেন ড. জাফর ইকবাল।

এরপর দুপুরে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছেও সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন এই শিক্ষক। এসময় তার সঙ্গে ছিলেন স্ত্রী-কন্যা ও ব্যক্তিগত সহকারী।

বিমানবন্দরে ড. জাফর ইকবালকে স্বাগত জানান শাবির উপাচার্য ও কয়েকজন শিক্ষক। প্রিয় শিক্ষককে স্বাগত জানাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও বিমানবন্দরে হাজির হন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ড. জাফর ইকবালকে স্বাগত জানানো হয়-ইউসুফ আলী

পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন ড. জাফর ইকবাল। তিনি বলেন, 'হামলাকারীর আইন অনুযায়ী যা হওয়ার তা-ই হবে। এ ব্যাপারে তার কোন বক্তব্য নেই।' হামলার ঘটনায় কাউকে দোষারূপও করছেন না তিনি।

সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে শাবির এই শিক্ষক বলেন, আগামীতেও জঙ্গিবাদ ও মৌলবাদের বিরুদ্ধে তিনি সোচ্চার থাকবেন।

ড. জাফর ইকবালের ব্যক্তিগত সহকারী জয়নাল আবেদীন জানান, বিকেলে ক্যাম্পাসে হামলাস্থলে ড. জাফর ইকবাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলবেন।

হামলার ঘটনার ভয় পাচ্ছেন কি না—এ প্রশ্নের জবাবে ড. জাফর ইকবাল বলেন, 'আমার ভয়টয় নেই। প্রধানমন্ত্রী, আশপাশের মানুষ, আমার ছাত্ররা, সহকর্মীরা, আত্মীয়-পরিজনেরা আছেন। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তো আছেই। এরপর আর অনিরাপদ বোধ করার কোনো কারণ দেখি না।’

এখন সুস্থ আছেন বলেও সাংবাদিকদের জানান জাফর ইকবালক।

উল্লেখ্য, গত ৩ মার্চ শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এক অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল হামলার শিকার হন। অনুষ্ঠানে তার পেছনে থাকা ফয়জুর রহমান ওরফে ফয়জুল নামের এক যুবক ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে আঘাত করেন। উন্নত চিকিৎসার জন্য  ড. জাফর ইকবালকে ঢাকার সিএমএইচে আনা হয়। তার ওপর হামলার ঘটনায় দেশব্যাপী নিন্দার ঝড় উঠে।

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নির্বাচনে যেতে চায় বিএনএ

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নির্বাচনে যেতে চায় বিএনএ

বিএনপির সাবেক মন্ত্রী ও তৃণমূল বিএনপির চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার ...

কালাইয়ে বেড়েছে কিডনি বিক্রি

কালাইয়ে বেড়েছে কিডনি বিক্রি

জয়পুরহাটের কালাই উপজেলায় অভাবী মানুষের কিডনি বেচাকেনা আবারও বেড়েছে। অভাবের ...

চট্টগ্রামে মহড়া, অস্ত্রধারী ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার

চট্টগ্রামে মহড়া, অস্ত্রধারী ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার

চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণাকে কেন্দ্র করে গত বুধবার দু'পক্ষের ...

জেএমবিকে অর্থ জোগাচ্ছে জঙ্গি শায়খের পরিবার

জেএমবিকে অর্থ জোগাচ্ছে জঙ্গি শায়খের পরিবার

নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামা'আতুল মুজাহিদীন অব বাংলাদেশকে (জেএমবি) চাঙ্গা ...

রাত ১১টার পর ফেসবুক বন্ধ করে দেয়া উচিত: রওশন

রাত ১১টার পর ফেসবুক বন্ধ করে দেয়া উচিত: রওশন

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক রাত ১১টার পর বন্ধ করে দেয়া ...

আফগানদের কাছে বড় হার বাংলাদেশের

আফগানদের কাছে বড় হার বাংলাদেশের

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটা বাংলাদেশ প্রস্তুতি হিসেবে নিচ্ছে। এমন একটা কথা ...

বিশ্বে প্রতি ৫ সেকেন্ডে ১ শিশুর মৃত্যু: জাতিসংঘ

বিশ্বে প্রতি ৫ সেকেন্ডে ১ শিশুর মৃত্যু: জাতিসংঘ

ইউনিসেফ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও), জাতিসংঘের জনসংখ্যা বিভাগ ও বিশ্ব ...

বাবাকে বাঁচাতে গিয়ে ৬ বছরের শিশুর মৃত্যু

বাবাকে বাঁচাতে গিয়ে ৬ বছরের শিশুর মৃত্যু

লিজা আক্তার। বয়স মাত্র ৬ বছর। চোখের সামনে বাবা ট্রেনে ...