‘রাজীবের নিথর হাত যেন নাগরিক জীবনের প্রতিচ্ছবি’

প্রকাশ: ১৭ এপ্রিল ২০১৮     আপডেট: ১৭ এপ্রিল ২০১৮      

অনলাইন ডেস্ক

স্বজনসহ সবার প্রার্থনাও ছিল তার সুস্থতার জন্য। তবে শেষ পর্যন্ত সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশেই চলে গেছেন রাজীব হোসেন। তার এমন মর্মান্তিক মৃত্যুতে তার পরিবারের পাশাপাশি শোকার্ত দেশের অনেক মানুষ। তার মৃত্যুতে সমবেদনা জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন অনেকে।

সাংবাদিক মুকিমুল আহসান হিমেল লিখেছেন, ‌‘দুই বাসের ফাঁকে আটকে থাকা রাজীবের নিথর হাতখানি আমাদের নাগরিক জীবনের প্রতিচ্ছবি। হাতখানি বলে গেলো এ শহর মানবিক না। এ শহর উম্মাদদের নিয়ন্ত্রণে।’

স্বপ্নীল স্বপন নামে এক শিক্ষার্থী লিখেছেন, ‘গণপরিবহনগুলো চলাচলে মানা হচ্ছে না কোনো নিয়মকানুন। অদক্ষ হাতে বেপোরোয়া গতিতে গাড়ি চালানোর কারণে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারাচ্ছে অনেক যাত্রী।’



মো. আদনান সিকদার নামে আরেকজন লিখেছেন, ‌‘বিমান দুর্ঘটনায় স্বজনরা বীমার টাকা পায়, সড়ক দুর্ঘটনা হলে কী পায়?’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শাওন আজাদ লিখেছেন, ‘রাজিবের মতো মৃত এখন আমাদের দেশও। রাস্তায় বাসগুলো যেভাবে চলে এবং রাস্তার কোন নিয়ম কানুন নাই, কারও কোন ভ্রুক্ষেপও নাই।’

কলামিস্ট লীনা পারভীন লিখেছেন, ‘রাজীবের মৃত্যুতে কষ্ট পাইনি। হাত হারানোর পর কষ্ট বুকে নিয়ে ধুকে ধুকে বেঁচে থাকার চেয়ে সে রেহাই পেয়েছে এটাই বা কম কী। রাজীবের ঘাতকেরা বেঁচে থাকুক স্বাধীন দেশে উল্লাসের সাথে। বাকিরা অন্ধ হয়ে থাকি।’

রেজাউল করিম নামে একজন বেসরকারি চাকরিজীবী লিখিছেন, ‘ঢাকা ছেড়ে চলে যাচ্ছেন রাজীব, কোনো দিন আর ফিরবেন না।’

গত ৩ এপ্রিল রাজধানীর যাত্রাবাড়ীর বাসা থেকে বিআরটিসির একটি বাসের দরজায় ঝুলে কলেজে যাচ্ছিলেন রাজীব। বাসটি সার্ক ফোয়ারার কাছে সিগন্যালে থেমে যায়। ওই সময় সেখানে স্বজন পরিবহনের একটি বাস বিআরটিসির বাসটিকে দ্রুত অতিক্রম  করার চেষ্টা করে। দুই বাসের রেষারেষিতে রাজীবের ডান হাতটি চাপা পড়ে কনুই থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। সেই হাতটি দীর্ঘক্ষণ আটকে থাকে দুই বাসের মাঝে। এমন দৃশ্য গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তোলপাড় শুরু হয়। পুলিশ ঘটনার পর দুই বাস চালককেও গ্রেফতার করে। 

সোমবার রাত ১২টা ৪০ মিনিটে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। গত ৩ এপ্রিল দুর্ঘটনার দুই দিন পর থেকে ওই হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। সর্বশেষ ১০ এপ্রিল থেকে ছিলেন লাইফ সাপোর্টে।

ফিফার ‘দ্য বেস্ট’ মডরিচ

ফিফার ‘দ্য বেস্ট’ মডরিচ

রোনালদো ফিফার বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে যান নি। তাতেই ...

ঐক্যের চাপে বিএনপি

ঐক্যের চাপে বিএনপি

সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের দাবিতে 'বৃহত্তর জাতীয় ...

কোটি টাকায় কেনা দীর্ঘশ্বাস

কোটি টাকায় কেনা দীর্ঘশ্বাস

ধানমণ্ডিতে সুপরিসর একটি ফ্ল্যাট কেনার উদ্যোগ নিয়েছিলেন ব্যবসায়ী আহাদুল ইসলাম। ...

বিএনপির জনসভায় আমন্ত্রণ পাচ্ছে না জামায়াত

বিএনপির জনসভায় আমন্ত্রণ পাচ্ছে না জামায়াত

বিএনপির বৃহস্পতিবারের সম্ভাব্য জনসভায় ২০ দলের শরিক জামায়াতে ইসলামীকে কৌশলগত ...

প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রুর মাদক সেবন

প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রুর মাদক সেবন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফ্লাইটের এক কেবিন ক্রুর মাদক সেবন ও ...

দুদককে পঙ্গু করতে চায় একটি মহল

দুদককে পঙ্গু করতে চায় একটি মহল

দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) একটি অথর্ব প্রতিষ্ঠানে পরিণত করতে অপতৎপরতা ...

নিবর্তনমূলক ধারা বাতিল দাবি সাংবাদিক নেতাদের

নিবর্তনমূলক ধারা বাতিল দাবি সাংবাদিক নেতাদের

স্বাধীন সাংবাদিকতায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে পারে- এমন সব ধারা-উপধারা বহাল ...

ইয়াবা কারবারিরা তবু বেপরোয়া

ইয়াবা কারবারিরা তবু বেপরোয়া

মিয়ানমার থেকে নানা কৌশলে ভিন্ন ভিন্ন রুট ব্যবহার করে সারা ...