৭৩ দলের আবেদন বাদ, দুই দলের অস্তিত্ব খুঁজছে ইসি

প্রকাশ: ১২ জুন ২০১৮     আপডেট: ১২ জুন ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ফটো

নিবন্ধনের জন্য আবেদন করা নতুন ৭৫টি দলের মধ্যে ৭৩টির আবেদন বাতিল করেছে নির্বাচন কমিশন(ইসি)। তবে গণআজাদী লীগ ও বাংলাদেশ কংগ্রেস নামের দুটি দলের আবেদন অনুযায়ি মাঠ পর্যায়ে তাদের অস্তিত্ব রয়েছে কী-না তা তদন্ত করে দেখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও ২০০৮ সালে নিবন্ধন পাওয়া দল ঐক্যবদ্ধ নাগরিক আন্দোলনের নিবন্ধন বাতিল করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কমিশন সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে ইসি কার্যালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান।

হেলালুদ্দীন বলেন, রাজনৈতিক দলগুলোর কাছে কিছু বিষয়ে প্রতিবেদন চেয়েছিল ইসি। ঐক্যবদ্ধ নাগরিক আন্দোলন তা দেয়নি। ১৫দিন সময় দিয়ে আবারও তাদের কাছে তথ্য চাওয়া হলেও সাড়া মেলেনি এবং নিবন্ধনের শর্ত পালন করেনি। তাই তাদের নিবন্ধন বাতিল করা হয়েছে।

ফারুক আহমেদের দল ঐক্যবদ্ধ নাগরিক আন্দোলনের নিবন্ধন বাতিল হওয়ায় এখন ইসিতে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩৯টি। ২০০৮ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে জন্ম হয়েছিল এই দলটির।

এদিকে একাদশ সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে নতুন দল নিবন্ধনের জন্য আবেদন চেয়ে গত অক্টোবরে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছিল ইসি। নিবন্ধনের জন্য ৭৫টি দল আবেদন করেছিল। এর মধ্যে বেশির ভাগ দলই কম পরিচিত, নামসর্বস্ব। 

তবে ঐক্য ন্যাপ, মাহমুদুর রহমান মান্নার নাগরিক ঐক্য, শরীফ নুরুল আম্বিয়ার নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ জাসদ, জোনায়েদ সাকীর গণসংহতি আন্দোলনের মত কয়েকটি দলও নিবন্ধনের আবেদন করেছিল। সেগুলোও বাছাইয়ে বাদ পড়েছে। অবশ্য গণসংহতি আন্দোলন গত সোমবার ইসিকে চিঠি দিয়ে জানিয়েছিল, তারা সব শর্ত পূরণ করেছে এবং নিবন্ধন পাওয়ার দাবিদার।

সাবেক মন্ত্রী নাজমুল হুদার তৃণমূল বিএনপিও নিবন্ধন পাচ্ছে না। 

ইসি সচিব হেলালুদ্দীন এ বিষয়ে সাংবাদিকদের বলেন, তৃণমূল বিএনপির নিবন্ধনের জন্য নাজমুল হুদার আবেদন ছিল। কিন্তু তিনি নির্ধারিত সময়ের পরে আবেদন করেছেন। পরে তিনি আদালতে যান। আদালত যাচাই-বাছাই করে বিবেচনার জন্য বলেছিলেন। ইসি যাচাই-বাছাই করে দেখেছে এই দল নিবন্ধন পাওয়ার যোগ্য নয়। তিনি সরকারি ফি জমা দেননি। তা ছাড়া নির্ধারিত সময়ের ভেতরেও আবেদন জমা দেননি।

ইসি সচিব বলেন, সিটি নির্বাচনে স্থানীয় সাংসদ বাদে অন্য সাংসদের প্রচারে অংশ নেওয়ার সুযোগ দিয়ে আচরণবিধি সংশোধনের বিষয়ে আইন মন্ত্রণালয়ের আইনি মতামত পেয়েছে ইসি। ঈদের পরে কমিশন পর্যালোচনা করে সংশোধিত আচরণবিধির প্রজ্ঞাপন করবে। প্রজ্ঞাপন হওয়ার পর সাংসদেরা প্রচারে অংশ নিতে পারবেন।

রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেট সিটি করপোরেশনের নির্বাচন হবে ৩০ জুলাই। বুধবার এই নির্বাচনের তফসিল প্রজ্ঞাপন আকারে জারি হবে। 

এই তিন সিটিতে সাংসদেরা প্রচারের সুযোগ পাবেন কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে হেলালুদ্দীন বলেন, 'এটা আইনী মতামত নেওয়ার পর বলা যাবে। ঈদের পরে প্রজ্ঞাপন হওয়ার পর কমিশন সভায় এ নিয়ে সিদ্ধান্ত হবে। কমিশন যদি বলে, এটা ভুতাপেক্ষ হবে, হতে পারে।'

বিষয় : ইসি

পরবর্তী খবর পড়ুন : আতরের দাম ২ লাখ ২০ হাজার টাকা

আরও পড়ুন

ছয় কেন্দ্রে ইভিএম, তিন কেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা

ছয় কেন্দ্রে ইভিএম, তিন কেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ছয়টি কেন্দ্রে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ...

মিশরকে এগিয়ে দিলেন সালাহ

মিশরকে এগিয়ে দিলেন সালাহ

এই ম্যাচের ফলাফল এবারের বিশ্বকাপে কোনো প্রভাব ফেলবে না। তবে ...

ইন্টারনেট ব্যবহারে ভ্যাট কমছে

ইন্টারনেট ব্যবহারে ভ্যাট কমছে

অবশেষে ইন্টারনেট ব্যবহারে গ্রাহকের কাঁধ থেকে ভ্যাটের বোঝা কমছে। সোমবার অর্থমন্ত্রী ...

শুরুতেই দুই গোলে এগিয়ে উরুগুয়ে

শুরুতেই দুই গোলে এগিয়ে উরুগুয়ে

'এ' গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন নির্ধারণী ম্যাচে মাঠে নেমেছে উরুগুয়ে ও রাশিয়া। ...

নেইমারদের এড়াতে যা করতে হবে জার্মানি-মেক্সিকো-সুইডেনকে

নেইমারদের এড়াতে যা করতে হবে জার্মানি-মেক্সিকো-সুইডেনকে

ঘটন-অঘটনের রাশিয়া বিশ্বকাপ প্রথম রাউন্ড শেষ হতে চললো। তবে এখন ...

আর্জেন্টিনা দলে যেসব পরিবর্তন হতে পারে

আর্জেন্টিনা দলে যেসব পরিবর্তন হতে পারে

ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে বড় ব্যবধানে হারের পর আর্জেন্টিনার দ্বিতীয় রাউন্ড পড়ে ...

বেতন দিয়ে চোর পোষেন ইদু মামা!

বেতন দিয়ে চোর পোষেন ইদু মামা!

ইদু মিয়া ওরফে হাতকাটা ইদু। চট্টগ্রামের অপরাধ জগতে তার পরিচিতি ...

দেবরকে বাঁচাতে বউ সেজেছিলেন ভাবি!

দেবরকে বাঁচাতে বউ সেজেছিলেন ভাবি!

দেবরকে পুলিশের হাত থেকে বাঁচাতে গিয়ে ভাবী এখন শ্রীঘরে। সোমবার ...