রাজধানী

সেই রাতে বাড্ডায় আরও দু'জনকে গুলি করে একই কিলার গ্রুপ

বনানীতে ব্যবসায়ী সিদ্দিক হত্যা

প্রকাশ: ০৮ ডিসেম্বর ২০১৭     আপডেট: ০৮ ডিসেম্বর ২০১৭      

সাহাদাত হোসেন পরশ

বনানীতে একটি জনশক্তি রফতানিকারক প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার সিদ্দিক হোসাইনকে হত্যার পর একই কিলার গ্রুপ পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী ওই রাতে বাড্ডায় গিয়ে টার্গেট করা দুই ব্যক্তিকে গুলি করে। তাদের একজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তার নাম মো. পারভেজ। গুলিবিদ্ধ হওয়ার পর গোপনে তিনি প্রথমে বাড্ডা ও পরে গুলশানে একটি হাসপাতালে চিকিৎসা নেন। পারভেজ নিজেও একাধিক ফৌজদারি মামলার আসামি হওয়ায় গোপনীয়তার সঙ্গে চিকিৎসা নিয়ে গা-ঢাকা দিয়েছেন। বাড্ডা ও গুলশান এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিরোধের জেরে তাকে গুলি করে সিদ্দিক হত্যা মিশনে জড়িত ভাড়াটে খুনিরা। বনানীতে চাঞ্চল্যকর সিদ্দিক হত্যার ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে ছাত্রদল নেতা হেলাল উদ্দিনকে গ্রেফতারের পর রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদে এসব তথ্য পাওয়া গেছে। অস্ত্র মামলায় তাকে দু'দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। এরপর সিদ্দিক হত্যা মামলায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আবার রিমান্ড আবেদন করা হবে। পুলিশের একাধিক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা গতকাল সমকালকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গত ১৫ নভেম্বর সন্ধ্যায় বনানীর 'বি' ব্লকের ৪ নম্বর সড়কের ১১৩ নম্বর ভবনের নিচতলায় সিদ্দিক হোসাইন মুন্সির ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে তাকে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ সময় গুলিবিদ্ধ হন ওই প্রতিষ্ঠানের আরও তিন কর্মকর্তা। সিদ্দিক হত্যায় মাঠ পর্যায়ে সাতজন জড়িত ছিল। তাদের নাম-পরিচয় জানা গেছে। হত্যার পুরো বিষয়টি সমন্বয় করেন হেলাল। সুইডেনপ্রবাসী ছাত্রদল নেতা নাহিদের নির্দেশে ঘটনার এক মাস আগে থেকে হত্যার ছক সাজান হেলাল। বনানীতে অপারেশন পরিচালনা করলে সেখান থেকে বড় অঙ্কের টাকা পাওয়া যাবে বলে প্রলোভন দেখান নাহিদ। ঘটনার পর সিদ্দিকের প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীরা পুলিশকে জানান, সিদ্দিককে হত্যার পর তিন মিনিটের মধ্যে অপারেশন সম্পন্ন করে চার মুখোশধারী পালিয়ে যায়। তাদের মধ্যে সাদ্দাম ও পিচ্চি আল-আমিন নামের দু'জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। সিদ্দিক হত্যায় জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা গতকাল সমকালকে বলেন, সুইডেনপ্রবাসী নাহিদ কেন হেলালকে বনানীতে সিদ্দিককে হত্যার জন্য মনোনীত করল- এটা এখনও পরিস্কার নয়। এ ক্ষেত্রে গোয়েন্দাদের ধারণা দুটি। এক, ব্যবসায়িক বিরোধকে কেন্দ্র করে কেউ সিদ্দিককে হত্যার জন্য নাহিদকে ভাড়া করেছিল। দুই, কেবল চাঁদাবাজির জন্যও এ ঘটনা ঘটতে পারে। তবে সুইডেন থেকে হত্যার পুরো বিষয় তদারক করছিলেন নাহিদ। হত্যাকাণ্ডের আগে হেলালের

নামে-বেনামে ব্যাংক হিসাব নম্বরে সন্দেহজনক লেনদেনের তথ্য পেয়েছেন গোয়েন্দারা। ধারণা করা হচ্ছে, ওই অর্থ হত্যা মিশন সম্পন্ন করতে তাকে দেওয়া হয়েছিল।

জানা গেছে, গুলিবিদ্ধ পারভেজ গুলশান এলাকার পুলিশের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী। পাঁচ বছর ধরে দেশের বাইরে পলাতক ছিলেন তিনি। তিনি গুলিবিদ্ধ হওয়ার সপ্তাহখানেক আগে ঢাকায় আসেন। বাড্ডা-গুলশানকেন্দ্রিক 'আন্ডারওয়ার্ল্ডের' বিরোধকে কেন্দ্র করে পারভেজসহ দু'জনকে টার্গেট করা হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে, হেলালকে পাঁচটি অস্ত্রসহ গ্রেফতার করে দু'দিনের রিমান্ডে নেওয়া হলেও তিনি এখনও স্বীকার করেননি সিদ্দিক হত্যা মিশনে ব্যবহূত অস্ত্র কোথায়, কার হেফাজতে রয়েছে। জব্দ করা অস্ত্র ব্যবহার করেই সিদ্দিককে খুন করা হয়েছে কি-না, তা নির্ণয়ের জন্য ফরেনসিক পরীক্ষা করা হবে।

বিষয় : রাজধানী

পরবর্তী খবর পড়ুন : অর্থায়ন এখনও অনিশ্চিত

আরও পড়ুন

'কিক-টু' ছবিতে জ্যাকুলিন

'কিক-টু' ছবিতে জ্যাকুলিন

কিছুদিন আগে সালমান খান এক অনুষ্ঠানে বলেছিলেন, 'কিক' ছবির সিকুয়েল ...

প্রশ্ন ফাঁসে ৫২ মামলায় গ্রেফতার ১৫৩: শিক্ষামন্ত্রী

প্রশ্ন ফাঁসে ৫২ মামলায় গ্রেফতার ১৫৩: শিক্ষামন্ত্রী

চলমান এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় সারাদেশে ৫২টি ...

বিএনপি নেতারাই খালেদার দীর্ঘ কারাবাস চান: কামরুল

বিএনপি নেতারাই খালেদার দীর্ঘ কারাবাস চান: কামরুল

বিএনপি নেতারাই খালেদা জিয়ার দীর্ঘ কারাবাস চান বলে দাবি করেছেন ...

বুলডোজার দিয়ে রোহিঙ্গা নির্যাতনের আলামত নষ্ট করছে মিয়ানমার: এইচআরডব্লিউ

বুলডোজার দিয়ে রোহিঙ্গা নির্যাতনের আলামত নষ্ট করছে মিয়ানমার: এইচআরডব্লিউ

মিয়ানমারের রাখাইনে সেনাবাহিনীর দমন অভিযানে জনশূন্য হয়ে পড়া রোহিঙ্গা গ্রামগুলো ...

খালেদার জিয়ার জামিনে বিলম্ব বিএনপির প্লাস পয়েন্ট: মওদুদ

খালেদার জিয়ার জামিনে বিলম্ব বিএনপির প্লাস পয়েন্ট: মওদুদ

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, দেশের বিচার ...

বগুড়ায় স্বেচ্ছাসেবক দলের দু'গ্রুপে সংঘর্ষ, নিহত ১

বগুড়ায় স্বেচ্ছাসেবক দলের দু'গ্রুপে সংঘর্ষ, নিহত ১

বগুড়ায় স্বেচ্ছাসেবক দলের দু'গ্রুপের মধ্যে নেতৃত্বের দ্বন্দ্ব ও আধিপত্য বিস্তার ...

রোহিঙ্গাদের ফেরাতে সিঙ্গাপুরের সহযোগিতা চাইলেন রাষ্ট্রপতি

রোহিঙ্গাদের ফেরাতে সিঙ্গাপুরের সহযোগিতা চাইলেন রাষ্ট্রপতি

মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তনে সিঙ্গাপুরের সহযোগিতা ...

শেরপুরে যুবককে ডেকে নিয়ে গলা কেটে হত্যা

শেরপুরে যুবককে ডেকে নিয়ে গলা কেটে হত্যা

শেরপুর সদর উপজেলায়  ফোন করে পাওনা টাকা দেওয়ার কথা বলে ...