রাজধানী

ট্রাভেল ব্যাগে মিলল নিখোঁজ ছাত্রীর লাশ

প্রকাশ: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

সকালে কলেজে যাওয়ার কথা বলে গত শনিবার মিরপুরে মামার বাসা থেকে বের হয়েছিল আঁখি আক্তার। আঠারো বছরের এই মেয়েটি রাজধানীর পল্লবী মহিলা ডিগ্রি কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক প্রথম বর্ষের ছাত্রী। কিন্তু এর পর সে আর বাসায় ফেরেনি। খোঁজাখুঁজির ওই রাতে মিরপুর থানায় সাধারণ ডায়েরিও করা হয়েছিল। তবে শেষ পর্যন্ত আঁখি নয়, তার লাশ মিলল বিমানবন্দর রেলস্টেশনে একটি ট্রাভেল ব্যাগের ভেতর। শনিবার গভীর রাতে পুলিশ অজ্ঞাতপরিচয়ে উদ্ধার করে ব্যাগভর্তি লাশটি। গতকাল রোববার সন্ধ্যায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে লাশটি শনাক্ত করেন তার স্বজনরা।

রেল পুলিশ জানায়, আঁখিকে হত্যা করা হয়েছে শ্বাসরোধে। এর আগে ধর্ষণের শিকার হতে পারে সে, ধারণা করা হচ্ছে এটাও। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাব্বির নামে আঁখির এক বন্ধুকে আটক করা হয়েছে। সে উত্তরা রাজউক কলেজের ছাত্র।

স্বজনরা জানান, আঁখির বাবা ও মা দু'জনই মরিশাস প্রবাসী। তাদের বাড়ি মাদারীপুর জেলার কালকিনির আণ্ডারচরে।

তবে মেয়েটি তার মামা রোকন খানের মিরপুর ১২ নম্বর সেকশনের ই-ব্লকের ৩৩ নম্বর রোডের ভাড়া বাসায় থেকে পড়ালেখা করত।

আঁখির মামা রোকন খান সমকালকে বলেন, শনিবার বেলা ১১টার দিকে তার ভাগ্নি কলেজে যাওয়ার কথা বলে বাসা থেকে বের হয়। সন্ধ্যা পর্যন্ত বাসায় না ফেরায় তার মোবাইল ফোনে কল দেওয়া হয়। দুটি মোবাইল ফোনই বন্ধ পাওয়া যায়। এরপর তার কলেজ, পরিচিত বন্ধু-বান্ধবী ও স্বজনদের বাসায় খোঁজ নেওয়া হয়। কোথায়ও না পেয়ে তিনি থানায় জিডি করেন।

রোকন জানান, তারা গতকাল হাসপাতালে খুঁজতে গিয়ে ভাগ্নির মরদেহের সন্ধান পান। মর্গে গিয়ে মরদেহ পড়ে থাকতে দেখেন তারা। তাদের সঙ্গে আঁখির বন্ধু সাব্বিরও ছিল। কিন্তু তাকে সন্দেহ হওয়ায় পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

আঁখির অপর এক মামা নুরুল ইসলাম খান বলেন, তারা জানতে পেরেছেন সাব্বিরের সঙ্গে আঁখির প্রেমের সম্পর্ক ছিল। শনিবার রাতেই সাব্বির মরিশাসে ফোন দিয়ে আঁখির নিখোঁজের বিষয়ে তার মাকে জানায়। তার আচরণ ছিল সন্দেহজনক। এ জন্যই তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি সাকিব নামে তার এক বন্ধুকেও সন্দেহ করছেন তারা।

ঢাকা রেলওয়ে থানার উপপরিদর্শক আনিসুর রহমান জানান, আঁখির লাশভর্তি কালো রঙের ট্রাভেল ব্যাগটি বিমানবন্দর রেলস্টেশনের শ্রমিক লীগের কার্যালয়ের পাশে পড়ে ছিল। রাত আড়াইটার দিকে ওই ব্যাগটি দেখে লোকজনের সন্দেহ হয়। পুলিশ সেটি খুললে লাশ দেখতে পায় এক তরুণীর। গতকাল সকালে অজ্ঞাতপরিচয় হিসেবে তার মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়। সন্ধ্যার দিকে স্বজনরা পরিচয় শনাক্ত করেন।

পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, আঁখির মুখমণ্ডলে রক্ত ছিল। ধর্ষণের প্রাথমিক আলামতও মিলেছে। এ থেকে ধারণা করা হচ্ছে, ধর্ষণে বাধা দিলে দুর্বৃত্তরা তাকে হত্যা করে। পরে লাশটি ব্যাগে ভরে রেলস্টেশনে তা গুমের চেষ্টা করে। ওই ঘটনায় তার বন্ধু সাব্বির নামের এক যুবককে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

১৩ ঘণ্টায় রেললাইনে আরও দু'জনকে 'হত্যা' : ঢাকা রেলওয়ে থানার বিমানবন্দর স্টেশন থেকে মহাখালী রেল ক্রসিং। সময় শনিবার রাত ৯টা থেকে গতকাল রোববার সকাল ১০টা। এরই মধ্যে ওই পথে পাওয়া যায় দুই ব্যক্তির লাশ। রেলওয়ে পুলিশ জানায়, শনিবার রাত ৯টার দিকে বিমানবন্দর রেলস্টেশনে ট্রেনের ছাদ থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় অজ্ঞাতপরিচয় এক যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়। গতকাল সকাল ১০টার দিকে মহাখালী রেল ক্রসিংয়ে পাওয়া যায় এক ব্যক্তির ছিন্নভিন্ন লাশ।

পুলিশের ভাষ্য, মহাখালী রেলক্রসিংয়ে ওই ব্যক্তি ট্রেনে কাটা পড়ে মারা গেছেন। তবে প্রত্যক্ষদর্শী লোকজন বলছেন, ট্রেনের ছাদ থেকে তাকে ছুড়ে ফেলা হয়।

বনানী থানার সহকারী উপপরিদর্শক বেলাল হোসেন জানান, সকাল ১০টার দিকে কমলাপুর রেলস্টেশনগামী একটি ট্রেন থেকে মহাখালী ক্রসিংয়ে এক ব্যক্তিকে ছুড়ে ফেলার খবরে পুলিশ ওই এলাকায় যায়। এরপর রেলক্রসিংয়ের অদূরে বাম হাত ছাড়া দেহের একটি অংশ পাওয়া যায়। এর অন্তত ৩০০ গজ দূরে বাম হাতটি পাওয়া যায়। তবে ওই ব্যক্তির মাথা পাওয়া যায়নি। পরে রেল পুলিশকে খবর দেওয়া হলে তারা লাশের বিচ্ছিন্ন অংশগুলো উদ্ধার করে।

পুলিশের এ কর্মকর্তা বলেন, লোকজন বলাবলি করছিল, চলন্ত ট্রেন থেকে মানবদেহের বিচ্ছিন্ন অংশগুলো ফেলা হয়। কিন্তু তিনি ধারণা করছেন, কাকলী এলাকা থেকে হয়তো ওই ব্যক্তি ট্রেনের হুকে আছড়ে পড়েন। কারণ দিন-দুপুরে এমন হওয়ার কথা নয়। এরপরও রেল পুলিশ ঘটনাটি তদন্ত করবে।

জানতে চাইলে ঢাকা রেল পুলিশের ওসি ইয়াসিন ফারুক বলেন, অজ্ঞাতপরিচয়ে ওই ব্যক্তি হয়তো ট্রেনের ছাদে ছিল। সেখান থেকে পড়ে চাকার হুকে আটকে যায়। এরপর হয়তো ধাক্কা খেয়ে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে দেহ।

শনিবার রাতে বিমানবন্দরে ছাদ থেকে লাশ উদ্ধারের বিষয়ে ওসি বলেন, ঘটনাটির তদন্ত চলছে। ওই যুবকের পরিচয় পাওয়া যায়নি। তবে ওই রাতে ঢাকা মেডিকেল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই বাচ্চু মিয়া জানিয়েছিলেন, অজ্ঞাতপরিচয় ওই যুবকের মাথা, বুকসহ শরীরে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে কয়েকটি।

সালাহ-ফিরমিনোয় হার নেইমার-এমবাপ্পেদের

সালাহ-ফিরমিনোয় হার নেইমার-এমবাপ্পেদের

সালাহ-সাদিও মানে-ফিরমিনো বনাম নেইমার-এমবাপ্পে-কাভানি! কিংবা বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের সাবেক দুই কোচ ...

হংকংয়ের বিপক্ষে কষ্টের জয় ভারতের

হংকংয়ের বিপক্ষে কষ্টের জয় ভারতের

হংকংয়ের ইনিংসের তখন ২৯ ওভার চলছে। কোন উইকেট না হারিয়ে ...

মুশফিক বিশ্রামে খেলবেন মুমিনুল

মুশফিক বিশ্রামে খেলবেন মুমিনুল

রুটি সেঁকতে গিয়ে শেষ পর্যন্ত না আবার হাতটাই পুড়ে যায়- ...

শিক্ষার্থীরা আশাবাদী, সন্দেহ যাচ্ছে না ছাত্রনেতাদের

শিক্ষার্থীরা আশাবাদী, সন্দেহ যাচ্ছে না ছাত্রনেতাদের

সাধারণ শিক্ষার্থীরা আশাবাদী। তবে কিছুটা সন্দেহ আর সংশয়ে আছে ক্যাম্পাসে ...

স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নে বাড়ছে গড় আয়ু

স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নে বাড়ছে গড় আয়ু

বাংলাদেশের মানুষের গড় আয়ু ক্রমশই বাড়ছে। ১০ বছর আগে ২০০৮ ...

৩০০ আসনে প্রার্থী দিতে প্রস্তুতি নিচ্ছে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য

৩০০ আসনে প্রার্থী দিতে প্রস্তুতি নিচ্ছে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য

চলমান রাজনীতিতে নতুন মাত্রা যোগ করেছে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য। আওয়ামী ...

'থাহনের জাগা নাই, পড়ালেহা করব ক্যামনে'

'থাহনের জাগা নাই, পড়ালেহা করব ক্যামনে'

ভিটেমাটির সঙ্গে শিশু নাসরিন আক্তারের স্কুলটিও গেছে পদ্মার গর্ভে। তীরে ...

রোগশোক ভুলে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে ওরা

রোগশোক ভুলে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে ওরা

হাটহাজারীর কাটিরহাট থেকে ছয় কিলোমিটার ইটবিছানো রাস্তার পর প্রায় এক ...