রাজধানী

'জিটুজি প্লাস বাতিলে কর্মী পাঠানো বন্ধ হবে না'

প্রকাশ: ২৮ আগস্ট ২০১৮     আপডেট: ২৮ আগস্ট ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি জানিয়েছেন, সরকারি ও বেসরকারি যৌথ ব্যবস্থাপনা (জিটুজি প্লাস) পদ্ধতি বাতিল হলেও মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠানো বন্ধ হবে না। এ পদ্ধতির অধীনে যারা ইতোমধ্যে ভিসা পেয়েছেন তারা ৩১ আগস্টের পরও মালয়েশিয়া যেতে পারবেন।

মঙ্গলবার প্রবাসী কল্যাণ ভবনে এ খাতে কর্মরত সাংবাদিকদের সংগঠন আরবিএম আয়োজিত 'মিট দ্যা প্রেস' অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। 

মন্ত্রী বলেন, মালয়েশিয়ার কারণেই জিটুজি প্লাসের নিয়ন্ত্রণ 'সিন্ডিকেটের' হাতে চলে গিয়েছিল। মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠাতে দুর্নীতির অভিযোগ ওঠায় জিটুজি প্লাস পদ্ধতিতে যে ১০টি রিক্রুটিং এজেন্সি কর্মী পাঠিয়েছে তাদের কারণ দর্শনোর নোটিশ দেওয়া হবে।

নানা অভিযোগ তুলে ২০০৯ সালে বাংলাদেশ থেকে কর্মী নেওয়া বন্ধ করে দেয় মালয়েশিয়া। দীর্ঘ আলোচনার পর ২০১২ সালে দুই দেশ সিদ্ধান্ত নেয় সরকারি ব্যবস্থাপনায় (জিটুজি) বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিয়োগ করা হবে। কিন্তু তা কার্যকর হয়নি। ২০১৫ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ থেকে জিটুজি প্লাস পদ্ধতিতে কর্মী নিতে সমঝোতা স্মারক সই করে মালয়েশিয়া। এক বছর বন্ধ থাকার পর পরের এপ্রিলে কর্মী নিয়োগ শুরু হয়।

নুরুল ইসলাম বিএসসি জানান, জিটুজি প্লাস চালু পর আড়াই বছরে মালয়েশিয়া দুই লাখ ৬৯ হাজার কর্মীর চাহিদাপত্র দিয়েছে বাংলাদেশকে। ইতোমধ্যে দুই লাখ ৩৫ হাজার কর্মীর ভিসা সত্যায়ন করা হয়েছে। নানা ক্রুটির কারণে ৩২ হাজার ভিসা সত্যায়ন করা হয়নি। প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় দুই লাখ কর্মীকে ছাড়পত্র দিয়েছে। অনুমতির অপেক্ষায় আছে আরো প্রায় ৩০ হাজার কর্মীর ছাড়পত্র। ছাড়পত্রের অপেক্ষায় থাকা কর্মীরা মালয়েশিয়া যেতে পারবেন। মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার বাংলাদেশিদের জন্য বন্ধ হওয়ার খবর সঠিক নয়। শ্রমবাজার খোলা আছে, থাকবে।

চলতি বছরের মে মাসে মালয়েশিয়ায় মাহথির মোহাম্মদের নেতৃত্বে নতুন সরকার আসার প্রতিবেদন দেওয়া হয়, জিটুজি প্লাসে বাংলাদেশ থকে কর্মী নিতে পাঁচ হাজার কোটি টাকা দুর্নীতি হয়েছে। বর্তমান বিরোধী দলীয় নেতা আহম্মদ জাহিদ হামিদির পরিবারের সদস্য ও একজন বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত মালয়েশিয়ান ব্যবসায়ীর প্রতিষ্ঠান সিনারফ্ল্যাপ বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিয়ে প্রায় দুই হাজার কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। এ অভিযোগে গত ১৪ আগস্ট জিটুজি প্লাসের মাধ্যমে কর্মী নেওয়ার নিয়ম বাতিলের ঘোষণা দেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী।

জিটুজি প্লাস পদ্ধতিতে মালয়েশিয়ার সরকারের নিযুক্ত প্রতিষ্ঠান সিনারফ্ল্যাপ বাংলাদেশের ১০টি রিক্রটিং এজেন্সির মাধ্যমে কর্মী নিচ্ছে। কাজ ভেদে ৩৭ হাজার থেকে এক লাখ ৬৫ হাজার টাকা অভিবাসন ব্যয় নির্ধারণ করা হলেও এজেন্সিগুলো কর্মীদের কাছ থেকে আড়াই থেকে চার লাখ টাকা নিয়েছে। এই ১০ এজেন্সি জনশক্তি খাতের 'সিন্ডিকেট' নামে পরিচিতি পেয়েছে।

এই সিন্ডিকেট ব্যবস্থা গড়ে ওঠার জন্য মালয়েশিয়াকে দায়ী করেছেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী। তিনি বলেন, মন্ত্রনালয় সব রিক্রুটিং এজেন্সির তালিকার করে মালয়েশিয়ার সরকারের কাছে পাঠিয়েছিল। মালয়েশিয়া সেখান থেকে ১০ এজেন্সিকে মনোনীত করে। ১০ এজেন্সিকে মন্ত্রণালয় নিয়ন্ত্রণ করেনি। মন্ত্রণালয়ের কাছে সবাই সমান। যেই বিদেশ থেকে কর্মী চাহিদাপত্র নিয়ে আসবে তাকেই অনুমতি দেওয়া হবে। প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় সিন্ডিকেশনে বিশ্বাস করে না।

মধ্যপ্রাচ্যে গৃহকর্মের কাজে যাওয়া নারীকর্মী নির্যাতনের স্বীকার হচ্ছেন বলেন স্বীকার করেছেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী। তিনি বলেন, খাদ্যভাস ও ভাষাগত সমস্যায় পড়ে বেশিরভাগ নারীকর্মী দেশে ফিরে আসে। তবে এ সংখ্যটিা খুব বেশি নয়।

আরবিএম সভাপতি ফিরোজ মান্নার সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক মাসুদুল হকের সঞ্চালনায় 'মিট দ্যা প্রেসে' উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী কল্যাণ সচিব ড. নমিতা হালদার, জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো (বিএমইটি) মহাপরিচালক সেলিম রেজাসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

প্রার্থীদের হলফনামায় চোখ রাখবে দুদক

প্রার্থীদের হলফনামায় চোখ রাখবে দুদক

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীদের হলফনামার সম্পদের হিসাবে নজর ...

সময় শেষ ব্যানার-পোস্টার সরেনি

সময় শেষ ব্যানার-পোস্টার সরেনি

সুষ্ঠু নির্বাচন ও প্রার্থীদের জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরির জন্য ...

হাল ছাড়েননি বাদপড়ারা চলছে চেষ্টা-তদবির

হাল ছাড়েননি বাদপড়ারা চলছে চেষ্টা-তদবির

আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য তালিকা থেকে বাদ পড়া দলের মনোনয়নপ্রত্যাশীরা এখনও ...

মিশ্র প্রতিক্রিয়া আইনজ্ঞদের

মিশ্র প্রতিক্রিয়া আইনজ্ঞদের

দুর্নীতির দুটি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ১০ ও ৭ ...

বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়া যাবে না

বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়া যাবে না

দল থেকে যাকেই মনোনয়ন দেওয়া হবে, তার পক্ষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে ...

ধানের শীষের প্রতীক্ষায় শতাধিক ব্যবসায়ী

ধানের শীষের প্রতীক্ষায় শতাধিক ব্যবসায়ী

জাতীয় সংসদে ব্যবসায়ী সাংসদের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। বর্তমান সংসদে ব্যবসায়ীদের ...

কিশোরগঞ্জের ৬ আসনের তিনটিতেই প্রার্থী পুত্ররা

কিশোরগঞ্জের ৬ আসনের তিনটিতেই প্রার্থী পুত্ররা

আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে কিশোরগঞ্জের ৬টি সংসদীয় আসনের তিনটিতেই উত্তরাধিকার আজ ...

বিএনপির অভিযোগ তদন্তে পুলিশ

বিএনপির অভিযোগ তদন্তে পুলিশ

প্রধানমন্ত্রী ও নির্বাচন কমিশনের কাছে বিএনপির পক্ষ থেকে 'গায়েবি ও ...