রাজধানী

কে সরাবে এই জঞ্জাল

নিয়ম মানছেন না আইএসপি ও কেবল ব্যবসায়ীরা

প্রকাশ: ১১ আগস্ট ২০১৮       প্রিন্ট সংস্করণ     

রাশেদ মেহেদী

অব্যবস্থাপনা ও নজরদারির অভাবে রাজধানীর অধিকাংশ এলাকা থেকে তারের জঞ্জাল অপসারণ করা যায়নি। অধিকাংশ সড়কে মাথার ওপর তাকালেই চোখে পড়ে অযত্নে জটা ধরা চুলের মতো দলা পাকানো ইন্টারনেট, ডিশ, টেলিফোন ও বিদ্যুৎ সঞ্চালনের তার। এসব জঞ্জালের ভারে অনেক এলাকায় নুয়ে পড়েছে সড়কবাতির বিদ্যুতের খুঁটিও। এতে কেবল নগরীর সৌন্দর্যই নষ্ট হচ্ছে না, পথচারীদের চলাচলেও বাধা সৃষ্টি হচ্ছে। ঝুলন্ত তার ছিঁড়ে রাস্তায় পড়ে ঘটছে দুর্ঘটনাও।

২০১০ সালে প্রথমবারের মতো রাজধানীর তারের জঞ্জাল অপসারণের সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। বিদ্যুৎ বিভাগের অধীনস্থ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের নিয়ে এ-সংক্রান্ত একটি কমিটিও গঠন করা হয়। একই সঙ্গে উন্নত বিশ্বের মতো মাটির নিচ দিয়ে বিভিন্ন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের সঞ্চালন লাইন বসানোর জন্য সরকার নেশনওয়াইড টেলিকমিউনিকেশন ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্কের (এনটিটিএন) আওতায় লাইসেন্সপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠানকে দায়িত্ব দেয়। সে অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানগুলো ভূগর্ভস্থ লাইন বসিয়ে খুঁটিতে ঝুলন্ত তার স্থানান্তরের উদ্যোগ নিলেও তা বাস্তবায়ন হচ্ছে না পাড়া-মহল্লাকেন্দ্রিক ইন্টারনেট সেবাদাতা (আইএসপি) ও কেবল টিভি ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ম্যে।

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, মতিঝিল শাপলা চত্বর থেকে দৈনিক বাংলা মোড়, গুলশান-২ থেকে বনানী মোড়, কারওয়ান বাজার থেকে ফার্মগেট ও উত্তরা ১, ৩ ও ৪ ও ৫ নম্বর সেক্টরসহ অধিকাংশ গুরুত্বপূর্ণ সড়কেই মাথার ওপর ঝুঁকিপূর্ণভাবে ঝুলছে তারের জটলা। নিকেতন থেকে গুলশান-১ নম্বর সড়ক পর্যন্ত বিদ্যুতের ট্রান্সফরমারের ভেতর দিয়েও তার টানতে দেখা গেছে। মতিঝিলের জনতা ব্যাংকের সামনে ঝুলন্ত তার ছিঁড়ে রাস্তায় পড়ে থাকায় পথচারী চলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে। স্থানীয়ভাবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ইন্টারনেট ও ডিশ লাইনের তারের কারণেই জঞ্জাল বেড়েছে। বছর দেড়েক আগে উল্লিখিত এলাকা থেকে তারের জটা অপসারণ করা হয়। কিন্তু পরে যথাযথ নজরদারি না থাকায় কিছুদিন বাদেই পুরনো রূপ ফিরে এসেছে।

এনটিটিএন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা জানান, এরই মধ্যে রাজধানীর অধিকাংশ এলাকাজুড়ে ভূগর্ভস্থ ফাইবার অপটিক বসানো হয়েছে। বিভিন্ন এলাকায় ভবনের নিচেও ফাইবার অপটিক কেবলের পয়েন্ট স্থাপন করা হয়েছে। কিন্তু গত কয়েক বছরে রাজনৈতিক পরিচয়ে আইএসপি লাইসেন্স পাওয়া শ' পাঁচেক প্রতিষ্ঠান সরকারি নিয়ম মানছে না। ভূগর্ভস্থ কেবলের ভাড়া বাঁচাতে ইচ্ছামতো তার ঝুলিয়ে ইন্টারনেট সেবা দিচ্ছেন তারা। বিভিন্ন এলাকায় ডিশলাইন ব্যবসায়ীরাও নিয়ম মানছেন না।

তবে আইএসপি ও ডিশলাইন ব্যবসায়ীদের দাবি, এনটিটিএন প্রতিষ্ঠানের অব্যবস্থাপনার কারণে তারা ভূগর্ভস্থ লাইন ব্যবহারের আগ্রহ হারাচ্ছেন। কয়েকজন ডিশলাইন ব্যবসায়ী সমকালকে জানান, গত কয়েক বছরে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন ও ওয়াসা বিনা নোটিশে অপরিকল্পিতভাবে বিভিন্ন এলাকার রাস্তা খুঁড়ছে। খোঁড়াখুঁড়ি করতে গিয়ে ভূগর্ভস্থ লাইন কাটা পড়ছে। কাটা পড়া তার মেরামতে দীর্ঘসূত্রতার কারণে ঝুলন্ত তারের মাধ্যমে সেবা দিতে হচ্ছে গ্রাহকদের। আইএসপি ব্যবসায়ীরাও একই অভিযোগ জানালেন।

এ প্রসঙ্গে বেসরকারি এনটিটিএন প্রতিষ্ঠান ফাইবার অ্যাট হোমের পরিচালক (জনসংযোগ) আব্বাস ফারুক সমকালকে বলেন, ঝুলন্ত তারের মাধ্যমে সেবা দেওয়ার প্রবণতা ফিরে আসায় ভূগর্ভস্থ লাইন ব্যবহারকারীরা ভাড়া ছেড়ে দিচ্ছেন। কোটি কোটি টাকা বিনিয়োগ করে মাটির নিচে লাইন বসিয়ে তাই ব্যবসায়ীদের লোকসান গুনতে হচ্ছে। লাইন কাটা পড়লে পুনঃস্থাপনে দেরি হচ্ছে- এমন অভিযোগ ঠিক নয়। বিটিআরসির কর্মকর্তারা জানান, এ ব্যাপারে তাদের কাছেও অভিযোগ এসেছে। কিন্তু ঝুলন্ত তার অপসারণের ক্ষমতা ডিপিডিসি এবং ডেসকোর হাতে, বিটিআরসির এ ব্যাপারে কিছু করার নেই।

ডিপিডিসির (ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিকাশ দেওয়ান সমকালকে বলেন, তারা বিভিন্ন সময়ে অভিযান চালিয়ে ঝুলন্ত তার অপসারণ করেন। কিন্তু কিছুদিন বাদেই আবারও পুরনো অবস্থা ফিরে আসে। তারের জঞ্জাল দূর করতে বিটিআরসিসহ অন্যান্য সংস্থাকে নিয়ে সমন্বিতভাবে কাজ করলে সুফল মিলতে পারে।

রুটিন কাজের বাইরে কোনো কাজ করছেন না মন্ত্রীরা: তোফায়েল

রুটিন কাজের বাইরে কোনো কাজ করছেন না মন্ত্রীরা: তোফায়েল

মন্ত্রীরা এখন শুধু রুটিন কাজ করছেন। এর বাইরে নির্বাহী ক্ষমতা ...

রাবিতে বিসিএসের ফরম পূরণে ২ লাখ টাকা আত্মসাৎ, আটক ৩

রাবিতে বিসিএসের ফরম পূরণে ২ লাখ টাকা আত্মসাৎ, আটক ৩

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪০তম বিসিএস পরীক্ষার ফরম পূরণের নামে প্রতারণা করে ...

ভোটে নাও থাকতে পারে বিএনপি: এরশাদ

ভোটে নাও থাকতে পারে বিএনপি: এরশাদ

বিএনপি শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে থাকবে কি-না, তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ ...

প্রকাশক দীপন হত্যার অভিযোগপত্র দাখিল

প্রকাশক দীপন হত্যার অভিযোগপত্র দাখিল

প্রকাশক ফয়সাল আরেফিন দীপন হত্যা মামলায় নিষিদ্ধ জঙ্গিগোষ্ঠী আনসারুল্লাহ বাংলা ...

ছাত্রলীগের ৩ কর্মীকে জবি থেকে সাময়িক বহিষ্কার

ছাত্রলীগের ৩ কর্মীকে জবি থেকে সাময়িক বহিষ্কার

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে ছাত্রলীগের ৩ কর্মীকে সাময়িক ...

বেসরকারি শিক্ষকদের ইনক্রিমেন্ট কার্যকর জুলাই থেকে: শিক্ষামন্ত্রী

বেসরকারি শিক্ষকদের ইনক্রিমেন্ট কার্যকর জুলাই থেকে: শিক্ষামন্ত্রী

বেসরকারি শিক্ষকদের ৫ শতাংশ বার্ষিক ইনক্রিমেন্ট এবং ২০ শতাংশ বৈশাখী ...

নির্বাচন পেছানো হলে জনমনে সন্দেহ সৃষ্টি হবে: বি চৌধুরী

নির্বাচন পেছানো হলে জনমনে সন্দেহ সৃষ্টি হবে: বি চৌধুরী

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পেছানোর সুযোগ নেই মন্তব্য করে ...

যুক্তফ্রন্ট অবশ্যই জোটে থাকবে: কাদের

যুক্তফ্রন্ট অবশ্যই জোটে থাকবে: কাদের

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিকল্পধারা বাংলাদেশের নেতৃত্বাধীন যুক্তফ্রন্ট আওয়ামী ...