সিটি নির্বাচন

সিলেট সিটি নির্বাচন

আরিফের সমীকরণ কঠিনই থাকল

লড়াইয়ে থাকছেন বিএনপির বিদ্রোহী ও জামায়াতের প্রার্থী

প্রকাশ: ১০ জুলাই ২০১৮       প্রিন্ট সংস্করণ     

চয়ন চৌধুরী, সিলেট ও কামরুল হাসান, ঢাকা

ফাইল ছবি

সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরী। নিজ দলের বিদ্রোহী প্রার্থী ও জামায়াতের প্রার্থীকে মোকাবেলা করতে হবে তাকে। নানা কৌশলেও দলের বিদ্রোহী প্রার্থী বদরুজ্জামান সেলিম এবং জামায়াতে ইসলামীর প্রার্থী এহসানুল মাহবুব জুবায়েরকে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরাতে পারেননি তিনি। ফলে জটিল নির্বাচনী সমীকরণের মধ্যে পড়েছেন বর্তমান মেয়র আরিফুল হক।


সিলেট মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সেলিমকে 'কেন্দ্রীয় বড় পদের' প্রস্তাব দিয়েও নির্বাচন থেকে সরাতে রাজি করানো যায়নি। নির্বাচন নিয়ে তার এ অবস্থানে ক্ষুব্ধ দলের হাইকমান্ড। গতকাল শেষ দিনেও তিনি মনোনয়ন প্রত্যাহার না করায় তাকে দল থেকে বহিস্কার করা হচ্ছে। দলের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয় গতকাল রাতে এক বৈঠকে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে দলীয় সূত্র নিশ্চিত করেছে। এর আগে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা করেন দলের নেতারা। 


জামায়াতের আমির এহসানুল মাহবুব জুবায়ের যে মেয়র পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী থাকছেন; তাও আগেই নিশ্চিত ছিল। তারপরও নানামুখী তৎপরতার মধ্যে শেষ মুহূর্তে নাটকীয় কিছু ঘটতে পারে বলে মনে করেছিলেন বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের নেতাকর্মীরা। তবে শেষ পর্যন্ত এই দুই প্রার্থীই নির্বাচনী মাঠে রয়ে গেলেন। ফলে আগামী ৩০ জুলাইয়ের নির্বাচনকে সামনে রেখে নির্ভার হয়েই নামার সুযোগ পাচ্ছেন আওয়ামী লীগের বদর উদ্দিন আহমদ কামরান। সিলেটে গতকাল সোমবার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনেও মেয়র পদে কেউ প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরে দাঁড়াননি। 


পুণ্যভূমি সিলেট থেকেই রাজনৈতিক দলগুলোর জাতীয় নির্বাচনের কর্মকাণ্ডের সূচনা হয়ে থাকে। তবে সিলেট সিটি নির্বাচনে মেয়র পদ নিয়ে বিএনপি-জামায়াতের মধ্যে এই টানাপড়েন দুই দলের শীর্ষ নেতারা বড় করে দেখতে চান না। বিএনপির পক্ষ থেকে এ বিষয়ে বলা হচ্ছে যে এটা স্থানীয় সরকার নির্বাচন। তাই জোটের সম্পর্কে তেমন কোনো প্রভাব পড়বে না। তবে অস্বস্তি বিরাজ করবে বলেও কয়েক নেতা জানান। এ কারণে সিলেট সিটিতে জামায়াতের প্রার্থিতার বিষয়ে মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকার কৌশল নেবেন বিএনপির শীর্ষ নেতারা। দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।


জামায়াতের নায়েবে আমির মিয়া মোহাম্মদ গোলাম পরওয়ার সমকালকে বলেন, তারা সিলেট সিটি নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য প্রায় এক বছর ধরে কাজ করছেন। বিষয়টি বিএনপির সিনিয়র নেতাদেরও অবহিত করা হয়েছিল। খুলনা ও গাজীপুর সিটি নির্বাচনের আগেই তারা এ বিষয়ে একমত ছিলেন; কিন্তু এখন তারা তা মানছেন না। তিনি বলেন, বিএনপির সঙ্গে জাতীয় নির্বাচন নিয়ে জোট হয়েছে, স্থানীয় সরকার নির্বাচন নিয়ে কোনো জোট হয়নি। 


তবে জামায়াতের সূত্র জানায়, সিলেট সিটি নির্বাচনকে দলটি আগামী জাতীয় নির্বাচনের আগে বিএনপির সঙ্গে দর কষাকষির কৌশল হিসেবে নিয়েছেন। বিএনপিকে এই নির্বাচনের মাধ্যমে একটি বার্তা দেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে যে আগামী জাতীয় নির্বাচনে জামায়াতকে দুর্বল মনে করা চলবে না। 


এ বিষয়ে মহানগর জামায়াতের আমির এহসানুল মাহবুব জুবায়ের সমকালকে বলেন, বিএনপির সঙ্গে তাদের জাতীয় নির্বাচনকেন্দ্রিক জোট। স্থানীয় নির্বাচনে জোটের কার্যক্রম বাধ্যতামূলক নয়। অতীতে সিলেটেও বিভিন্ন সময়ে পৌরসভা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদে বিএনপি-জামায়াত আলাদাভাবে নির্বাচন করেছে। 


গতকাল বিকেলে নগরীর কুমারপাড়ায় মেয়র প্রার্থী আরিফের বাসায় সংবাদ সম্মেলন করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। এ সময় বিএনপি-জামায়াতের জোটের ভবিষ্যৎ সম্পর্কে প্রশ্নের উত্তর তিনি কৌশলে এড়িয়ে যান। তবে তিনি বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু হলে আরিফ জয়ী হবেন। আমীর খসরু বলেন, বিভিন্ন এলাকায় পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন বিএনপির নেতাকর্মীদের ভয়ভীতি দেখাচ্ছে। নেতকর্মীদের ৩০ জুলাই পর্যন্ত এলাকার বাইরে থাকতে বলা হচ্ছে।


২০১৩ সালের ১৫ জুনের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী কামরানকে ৩৫ হাজার ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেছিলেন বিএনপির আরিফ। সেই সময় বিএনপির নেতৃত্বাধীন জোটের সবক'টি দল মাঠে তৎপর ছিল। তখন আওয়ামী লীগ প্রার্থীর পরাজয়ের নেপথ্যে দলীয় বিভেদকে অন্যতম কারণ বলে উল্লেখ করা হয়। পাঁচ বছর পর ভোটযুদ্ধে এবার কামরানকে ভিন্ন পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে বলে মনে করা হচ্ছে। 


বিএনপি অস্বীকার করলেও জোটের দুই মেয়র প্রার্থী থাকায় ফলাফলে নেতিবাচক প্রভাব পড়ার আশঙ্কা উড়িয়ে দেয়নি জামায়াত। এহসানুল মাহবুব জুবায়ের বলেন, কিছু প্রভাব তো পড়বে। 


এদিকে সরকার 'চাপ' দিয়ে সেলিমকে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় রাখা হয়েছে বলে বিএনপি দাবি করেছে। তবে অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে সেলিম সমকালকে বলেন, 'আমার মাত্র ৫০ হাজার টাকা রয়েছে বলে হলফনামায় উল্লেখ করেছি। দেশে-বিদেশে ছড়িয়ে থাকা হাজার হাজার নেতাকর্মীর অনুরোধে নির্বাচন করছি। এখানে কোনো চাপ বা সমঝোতা নেই। যারা এমন অভিযোগ করছেন, তারা বোকার স্বর্গে বাস করছেন। বরং আরিফই সরকারের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছেন। আরিফকে যে দলের ও জোটের কেউ মেনে নিচ্ছেন না, জোটের শরিক জামায়াতের মেয়র প্রার্থী থাকাই তার আরেক প্রমাণ।' তিনি বলেন, 'নির্বাচন সুষ্ঠু হলে ৩০ জুলাই সিলেটে নতুন ইতিহাস রচিত হবে। নগরবাসী নতুন একজনকে মেয়র হিসেবে পাবেন আর সেই নতুন মেয়র হব আমি।' সেলিম বলেন, 'কেন্দ্রীয় কমিটির পক্ষ থেকে গুরুত্বপূর্ণ প্রস্তাব নিয়ে আমার কাছে আসা হয়েছিল। আমি তাদের বলেছি যে, পদ চাই না, সিলেটে দলের মনোনয়ন চাই।' 

আরও পড়ুন

এইচএসসির ফল বৃহস্পতিবার

এইচএসসির ফল বৃহস্পতিবার

সারাদেশের প্রায় ১২ লাখ পরীক্ষার্থীর প্রতীক্ষার অবসান হচ্ছে। ২০১৮ সালের ...

রাইফার মৃত্যু: অভিযুক্ত চার চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা

রাইফার মৃত্যু: অভিযুক্ত চার চিকিৎসকের বিরুদ্ধে মামলা

চিকিৎসকের অবহেলায় শিশু রাফিদা খান রাইফার মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত চার ...

ঢাকায় নতুন মার্কিন রাষ্ট্রদূত হচ্ছেন আর্ল রবার্ট মিলার

ঢাকায় নতুন মার্কিন রাষ্ট্রদূত হচ্ছেন আর্ল রবার্ট মিলার

বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন রাষ্ট্রদূত হচ্ছেন আর্ল রবার্ট মিলার। গত মঙ্গলবার ...

বৈষম্যহীন বিশ্ব গড়ে তোলায় বাংলাদেশের অবস্থান দৃঢ়: স্পিকার

বৈষম্যহীন বিশ্ব গড়ে তোলায় বাংলাদেশের অবস্থান দৃঢ়: স্পিকার

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, অন্যায়, অবিচার ও বৈষম্যহীন ...

সরকারি বিএমডব্লিউ গাড়ি ফেরত দিলেন ওবায়দুল কাদের

সরকারি বিএমডব্লিউ গাড়ি ফেরত দিলেন ওবায়দুল কাদের

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের তাকে বরাদ্দ দেওয়া সরকারি ...

নেলসন ম্যান্ডেলা ও তার আপোষহীন সংগ্রাম

নেলসন ম্যান্ডেলা ও তার আপোষহীন সংগ্রাম

দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবাদবিরোধী নেতা ও কিংবদন্তি রাষ্ট্রনায়ক নেলসন ম্যান্ডেলা। দেশটির ...

জনসস্মুখে স্তন্যপান করিয়ে 'বিতর্কে' মার্কিন মডেল

জনসস্মুখে স্তন্যপান করিয়ে 'বিতর্কে' মার্কিন মডেল

মঞ্চে শিশুকে স্তন্যপান করিয়ে বিতর্কের মুখে পড়েছেন এক মার্কিন মডেল। ...

বাগেরহাটে শিশু ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় সৎ বাবার মৃত্যুদণ্ড

বাগেরহাটে শিশু ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় সৎ বাবার মৃত্যুদণ্ড

বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলায় তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ ...