মন্তব্য

কিছু পদক্ষেপের ফলে পাসের হার স্বাভাবিক হচ্ছে: রাশেদা কে চৌধূরী

 প্রকাশ : ১৯ জুলাই ২০১৮ | আপডেট : ১৯ জুলাই ২০১৮      

 অনলাইন ডেস্ক

উচ্চ মাধ্যমিক ও সমমানের পরীক্ষায় এবার পাসের হার ও জিপিএ-৫ দুটোই কমেছে। উচ্চ মাধ্যমিকে এবার পাস করেছে ৬৬.৬৪ শতাংশ শিক্ষার্থী। গত বছর এ পরীক্ষায় পাসের হার ছিল ৬৮ দশমিক ৯১ শতাংশ। অর্থ্যাৎ এবার পাসের হার কমেছে ২.২৭ শতাংশ। এবার জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যা ২৯ হাজার ২৬২ জন। গতবার ছিল ৩৭ হাজার ৯৬৯ জন। সেই হিসাবে এবার জিপিএ-৫ কমেছে ৮ হাজার ৭০৭ জন। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে শিক্ষাবোর্ডগুলোর ফলের সারসংক্ষেপ তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। গত কয়েক বছরের মধ্যে এবার পাসের হার নিম্নতর। এ বিষয়ে সমকাল অনলাইনের সঙ্গে কথা বলেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা এবং গণসাক্ষরতা অভিযানের নির্বাহী পরিচালক রাশেদা কে. চৌধূরী:

এটা খারাপ কিছু নয়। বরং পাসের হার স্থিতিশীল অবস্থায় আসতে চলেছে। আগে ৭০ ভাগ, ৮০ ভাগ এমনকি ৯০ ভাগ পাস করতেও আমরা দেখেছি। পৃথিবী কোনো দেশে এমন আছে? সেই অবস্থা থেকে এখন একটু স্থিতিশীল জায়গায় আসতে শুরু করেছে। এতে শঙ্কার কিছু নেই বরং এটা ভালো জায়গায় যাচ্ছে।

এমনটা হওয়ার কারণ হলো, শিক্ষা মন্ত্রণালয় মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার বিষয়টি নীরিক্ষার জন্য একটি কমিটি করেছিল। পরীক্ষা পদ্ধতি, প্রশ্নপত্র প্রণয়ন, পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন- এসব বিষয়ে নীরিক্ষা কমিটি কিছু সুপারিশ করেছিল। এছাড়া সরকার শিক্ষাবিদদের নিয়ে বসেছিল,  তারাও কিছু সুপারিশ করেছে। এসব সুপারিশের ভিত্তিতে মন্ত্রণালয় কিছু কাজ শুরু করেছে, যেমন- শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। এভাবে এক ধরণের অভিন্ন পদ্ধতির মতো করে খাতা মূল্যায়নের ট্রেনিং দেওয়া হয়েছে তাদের, সেভাবেই তারা পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন করেছে, যার শুরুটা হলো এবার। আর এ কারণেই ফল স্থিতিশীল অবস্থায় যাচ্ছে। তবে আরও ভালো যায়গায় যেতে হবে।

আর এ ফলের পরে কিছু চ্যালেঞ্জের বিষয় থাকে। এই যে ৩৪ শতাংশ শিক্ষার্থী ফেল করলো, তাদের আমরা কিভাবে পাসের অবস্থায় ফিরিয়ে আনব- এটা একটা বড় চ্যালেঞ্জ। আরেকটা বিষয় হলো, এই যে এতো ছেলেমেয়ে জিপিএ ৫ পেয়েছে, ফলে তাদের নিয়ে একটা প্রত্যাশা তৈরি হয়েছে পরিবারে। এখন তারা সবাই পছন্দের বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে পারবে কিনা, যারা পাস করেছে তাদের সবাইকে আমরা উচ্চশিক্ষা দিতে পারব কিনা, এই চ্যালেঞ্জও আমাদের সামনে আছে।



'দরিদ্রদের গড় আয় বাড়ানোর দিকে দৃষ্টি দিতে হবে'

 অনলাইন ডেস্ক

জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির (ইউএনডিপি) আওতায় বিভিন্ন মাপকাঠিতে মানব উন্নয়ন সূচকে ...

১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

'বাজারে চামড়া হাত বদল পদ্ধতিতে পরিবর্তন দরকার'

 অনলাইন ডেস্ক

২০১৩ সাল থেকে  কোরবানির পশুর চামড়ার দাম নির্ধারণ করে দিচ্ছে ...

০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

‘সড়ক পরিবহন আইনটি আরও উন্নত করা দরকার'

 অনলাইন ডেস্ক

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে গত সোমবার মন্ত্রিসভায় অনুমোদন ...

০৮ আগস্ট ২০১৮

আইনের সুষ্ঠু প্রয়োগ না হলে সুফল মিলবে না

 সৈয়দ আবুল মকসুদ

দীর্ঘ আট বছর সব পক্ষের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে সড়ক পরিবহন ...

০৭ আগস্ট ২০১৮