অন্যান্য

আগস্টে মূল্যস্ফীতি কমেছে

প্রকাশ: ০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮     আপডেট: ০৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

ঈদ-উল-আযহাকে কেন্দ্র করে মসলাসহ কিছু পণ্যের দাম বাড়লেও সরকারি হিসাবে চলতি বছরের আগস্ট মাসে সার্বিক মূল্যস্ফীতি আগের মাসের চেয়ে কমেছে। এ মাসে মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৫ দশমিক ৪৮ শতাংশ। জুলাইয়ে মূল্যস্ফীতি ছিল ৫ দশমিক ৫১ শতাংশ। গত বছরের আগস্টে সার্বিক মূল্যস্ফীতি ছিল ৫ দশমিক ৮৯ শতাংশ। বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) হালনাগাদ প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

বৃহস্পতিবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে মূল্যস্ম্ফীতির এ পরিসংখ্যান প্রকাশ করেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

বিবিএসের তথ্য অনুযায়ী, খাদ্যপণ্যে মূল্যস্ফীতি কমেছে ব্যাপক হারে। আগস্টে খাদ্যপণ্যে মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৫ দশমিক ৯৭ শতাংশ, যা জুলাইয়ে ছিল ৬ দশমিক ১৮ শতাংশ। গত বছরের আগস্টে খাদ্যে মূল্যস্ফীতি ছিল ৭ দশমিক ৩২ শতাংশ।

আগস্টে খাদ্য বহির্ভূত মূল্যস্ফীতি কিছুটা বেড়েছে। খাদ্য বহির্ভূত খাতে এ সময় মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৪ দশমিক ৭৩ শতাংশ, যা আগের মাসে ছিল ৪ দশমিক ৪৯ শতাংশ। গত বছরের আগস্টে  খাদ্য বহির্ভূত খাতে মূল্যস্ফীতি ছিল ৩ দশমিক ৭৫ শতাংশ।

এ প্রসঙ্গে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ঈদকে কেন্দ্র করে পণ্যের দাম খুব একটা বাড়েনি। বাজার নিয়ন্ত্রণেই ছিল। চাহিদা ও যোগানে বড় কোনো অসামঞ্জস্য ছিল না। প্রয়োজনীয় পণ্য অনেক আগেই আমদানি করে রাখা হয়েছিল। ফলে সার্বিক মূল্যস্ফীতি খুব একটা বাড়েনি।

বিবিএসের তথ্য অনুযায়ী, আগস্টে গ্রামে মূল্যস্ফীতি হয়েছে ৫ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ। আর শহর এলাকায় হয়েছে ৬ দশমিক ২৮ শতাংশ। গ্রাম ও শহর এলাকায় জুলাইয়ে মূল্যস্ফীতি ছিল যথাক্রমে ৫ দশমিক শূন্য ৪ শতাংশ এবং ৬ দশমিক ৩৭ শতাংশ।

গত বছরের সেপ্টেম্বর থেকে চলতি বছরের আগস্ট পর্যন্ত ১২ মাসে গড়ে ৫ দশমিক ৭৪ শতাংশ মূল্যস্ফীতি হয়েছে। আগের বছরের একই সময়ে গড় মূল্যস্ফীতি ছিল ৫ দশমিক ৫০ শতাংশ। এ হিসাবে গড় মূল্যস্ফীতি কিছুটা বেড়েছে।

আরও পড়ুন

রাজশাহী খুলনা বরিশাল ও রংপুরের ৮১ আসনে আ'লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

রাজশাহী খুলনা বরিশাল ও রংপুরের ৮১ আসনে আ'লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল ও রংপুর বিভাগের কমপক্ষে ৮১ আসনে দলীয় ...

এমপি হতে চান ১২ হাজার!

এমপি হতে চান ১২ হাজার!

আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে এমপি হতে চান ১২ হাজারের বেশি নেতা। ...

শিক্ষকদের ভোটের 'ভেট'

শিক্ষকদের ভোটের 'ভেট'

নির্বাচনের আগেই সারাদেশের সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষকরা পেলেন বেশ কিছু ...

শেকড়ের টান উপেক্ষা করা যায় না

শেকড়ের টান উপেক্ষা করা যায় না

ইউরোপে যখন রক আর টেকনো নিয়ে মাতামাতি চলছে, ঠিক সেই ...

নতুন মুখ আসতে পারে বগুড়ার তিন আসনে

নতুন মুখ আসতে পারে বগুড়ার তিন আসনে

বগুড়ায় এবার অন্তত তিনটি আসনে ধানের শীষ প্রতীকে নতুন প্রার্থী ...

জয়পুরহাটে লেভেল ক্রসিংয়ে অল্পের জন্য বাঁচলো ৪৮ বাস যাত্রী

জয়পুরহাটে লেভেল ক্রসিংয়ে অল্পের জন্য বাঁচলো ৪৮ বাস যাত্রী

জয়পুরহাটের আক্কেলপুর পৌর এলাকার পশ্চিম আমুট্ট (মহিলা কলেজ সংলগ্ন) এলাকায় ...

সিডরে নিখোঁজের ১১ বছর পর প্রত্যাবর্তন

সিডরে নিখোঁজের ১১ বছর পর প্রত্যাবর্তন

প্রলংয়করী ঘূর্ণিঝড় সিডরে নিখোঁজের ১১ বছর পর বাড়ি ফিরেছেন শরণখোলা ...

সরকারি কাজে বাধা দেয়ায় রাবি ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতির জেল

সরকারি কাজে বাধা দেয়ায় রাবি ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতির জেল

সরকারি কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক ...