খাদ্য নিরাপত্তা নিয়ে সচেতনতা বেড়েছে: সাব্বির নাসির

প্রকাশ: ১০ জুলাই ২০১৮      

অনলাইন ডেস্ক

সাব্বির নাসির

সাব্বির নাসির ২০১১ সাল থেকে এসিআই লিমিটেডের সহযোগী প্রতিষ্ঠান এসিআই লজিস্টিকের নির্বাহী পরিচালক হিসেবে কাজ করছেন। বুয়েট থেকে যন্ত্র প্রকৌশলে স্নাতক, পরে আইবিএ থেকে এমবিএ সম্পন্ন করেন। তিনি ৯৬.৪ স্পাইস এফএমের 'রাইজিং বাংলাদেশ'র প্রথম পর্বের অতিথি ছিলেন। এই অনুষ্ঠানের মিডিয়া পার্টনার দৈনিক সমকাল। অনুষ্ঠানে সাব্বির নাসির কথা বলেছেন বাংলাদেশের চেইন সুপারশপের বর্তমান অবস্থা, সমস্যা ও সম্ভবনার নিয়ে। অনুষ্ঠানটি উপস্থপনা করেন মেহেদী শামীম। প্রযোজনা করেন জামিল আশরাফ খান

ইন্জিনিয়ারিং পড়েছেন বুয়েটে, হঠাৎ করে কেন বাণিজ্য বিষয়ে মনযোগী হলেন?
সাব্বির নাসির: 
আমি ক্যারিয়ার শুরু করি বাটা শো কোম্পানিতে, আমার কাজ ছিল বাটা বাংলাদেশ এবং অন্যান্য দেশে এপিসিয়েন্সি ইমপ্রোভ করা।  ওই সময়ে ব্যবসা বিষয়ে পড়াশুনা করার ইচ্ছা জাগলো। তখন বাটার কান্ট্রি ম্যানেজার আমাকে অনুপ্রাণিত করে। আমি তার মতো সিইও হওয়ার স্বপ্ন দেখতে থাকলাম।

ম্যাসাচুসেট্‌স ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজির একটি বিজনেস স্কুল থেকে উদ্ভাবন ও প্রযুক্তি এবং হার্ভার্ড বিজনেস স্কুল থেকে রিটেইল ম্যানেজমেন্ট নিয়ে পড়াশোনা করেছেন? কি ধরণের উদ্ভাবনী প্রক্রিয়ায় এগোলে বাংলাদেশেরের মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা রক্ষা পাবে বলে আপনি মনে করেন?
সাব্বির নাসির:
খাদ্য নিরাপত্তা নেই এদেশে এটা ঢালাওভাবে বলা যায় না। আমরা প্রতিদিনই উন্নতি করছি। গ্লোবাল স্টান্ডার্ডে যদি যেতে চাই কি কি জায়গায় প্রতিবন্ধকতা আছে সেটা খুঁজে বের করতে হবে। প্রধাণত আমি মনে করি যদি কোল্ড চেইন মানা যায় তাহলে ফুড সিকিউরিটি রক্ষা করা যাবে। যেসময় শস্যে কিটনাশক দেয়া হয়, সেটা বাংলাদেশের অনুমোদিত কিটনাশক কী না এবং যখন ফসলটা তোলা হয় সেখানে কিটনাশকের উপস্থিতি থাকে কি না এটা আমরা ওদের সহযোগিতায় পরীক্ষা করে দেখি।  অনেক সময় সুপারশপে তাপমাত্রাটা সব জায়গায় একই থাকে না, এই কোল্ড চেইনটা মেইনটেইন করার জন্য আমরা আইওটি (ইন্টারনেট অব থিংকিং) ব্যবহার করার চেষ্টা করছি, এর মাধ্যমে প্রতিটা ইকুয়েপমেন্টের তাপমাত্রা বুঝতে পারি এবং এটাকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারি। প্রতিটা পয়েন্টে সেন্সর দিয়ে তাপমাত্রা জানা যায় এবং এটাকে নিয়ন্ত্রণ করা যায় ।

বাংলাদেশে যেসব চেইন সুপারশপ আছে সেখান থেকে পণ্য কিনলে একজন ক্রেতা কিভাবে বুঝবে তিনি নিরাপদ পণ্য কিনছেন?
সাব্বির নাসির:
অরগানাইজড ওয়েতে আগোরা, স্বপ্ন, মীনা বাজার যেসব চেইনশপ আছে তারা প্রতিনিয়ত কোয়ালিটি ধরে রাখার জন্য কাজ করছে, দেখেন খোলা বাজারে পণ্যের 'টেমপারেচার উইন্ডো' মানা হয় না, সুপারশপগুলো সেসব জায়গায়  আলাদা।

সারা পৃথিবীতে খুচরা বাজার বিপণন, খাদ্য নিরাপত্তা, ভোক্তা অধিকার নিয়ে নিত্য নতুন উদ্ভাবন নিয়ে কাজ হচ্ছে, সেক্ষেত্রে বাংলাদেশের অবস্থান কোথায়?
সাব্বির নাসির:
আমেরিকার যে ফুড সিকিউরিটি অ্যাক্ট সেদিকে তাকালে বলা যায় বাংলাদেশ সরকারের ফুড সিকিউরিটি ডিপার্টমেন্ট ভোক্তা অধিকার নিয়ে যেভাবে এত গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছে খুব কম দেশই কাজ করে এভাবে। সেক্ষেত্রে বাংলাদেশ ফুড সিকিউরিটি নিয়ে যেভাবে কাজ করছে তা আন্তর্জাতিক সমমানের।

কোনো ড্রিম প্রজেক্ট কি আছে, যেটা দিয়ে বাংলাদেশের রিটেইল বিজনেসকে সুন্দর মডেলে আনা যায়, রিটেইল বিজসনেসকে রুট লেভেলে নিয়ে যাওয়া যায়?
সাব্বির নাসির: 
মার্কেটফোর্স একটা বড় ফোর্স, মধ্যসত্ত্বভোগীদের কারণে কৃষক ন্যায্য মূল্যটা পান না। সরাসরি যদি ক্রেতাদের সাথে কৃষকদের যোগাযোগ তৈরি করতে পারি তাহলে ক্রেতারা তাদের কাঙ্খিত পণ্যটি পাবেন, কৃষক তার প্রাপ্য দামটা পাবেন। উৎপাদক ও ক্রেতার সাথে সমন্বয় তৈরি করতে এই ধরণের প্রযুক্তি নিয়ে আসবো। এটা একটা খুব ইন্টারেস্টিং মডেল হবে, যেখানে একজন ক্রেতা নিজেই মার্কেট এর মালিক হবেন।

বাংলাদেশ ফুড সিকিউরিটি, কনজুমার রাইটস, গ্লোবাল স্টান্ডার্ডে বাংলাদেশ কোন জায়গাতে আছে। গ্লোবাল জায়ান্টগুলো যদি বাংলাদেশে ঢুকতে চায় তবে কিভাবে উপকৃত হবো আমরা?
সাব্বির নাসির:
আমার কাছে মনে হয় গ্লোবাল সিকিউরিটি ও কনজুমার রাইটসে বাংলাদেশ অনেকটাই এগিয়েছে। কিছু সার্টিফিকেশন দিয়ে আপনি বুঝতে পারবেন গ্লোবাল কতটা এগিয়েছেন যেমন হ্যাচাপ, গ্লোবাল গ্যাপ। আমরা সব আউটলেটে গ্লোবাল গ্যাপ সার্টিফিকেট নেয়ার চেষ্টা করছি। ভারতে কিন্তু গ্লোবাল রিটেইলরা চাইলেই প্রবেশ করতে পারে না, সেখানে এন্ট্রি বেরিয়ার দেয়া আছে। যদি ৫১-৪৯ জয়েন্ট ভেনচার না হয় তাহলে ঢুকতে দেয়া হয় না। আমাদের এখানেও এরকম নীতি ফলো করা উচিত। বাইরের রিটেইলরা আসলে তারা নিজেদের মতো পণ্যের দাম নির্ধারণ সেক্ষেত্রে সরকারের কিছু করার থাকবে না। তবে এক্ষেত্রে দেশি রিটেইল গুরুত্ব দেয়া প্রয়োজন।

আরও পড়ুন

জনগণের ঐক্য ব্যর্থ হয় না

জনগণের ঐক্য ব্যর্থ হয় না

দেশ ও গণতন্ত্রের প্রয়োজনে জনগণের ঐক্য কখনও ব্যর্থ হয় না- ...

'চ্যালেঞ্জ' নিয়েই মাঠে নামছে টাইগাররা

'চ্যালেঞ্জ' নিয়েই মাঠে নামছে টাইগাররা

থ্যাংকলেস জব! খেলার জগতে শব্দটা ব্যবহার করা হয় আম্পায়ার বা ...

সাপের 'বিষে' বিষ নেই

সাপের 'বিষে' বিষ নেই

রাজধানীর কুড়িল বিশ্বরোড থেকে গত বছরের এপ্রিলে সাপের বিষ পাচারে ...

আফগানিস্তানে নির্বাচন ঘিরে ব্যাপক সহিংসতা

আফগানিস্তানে নির্বাচন ঘিরে ব্যাপক সহিংসতা

আফগানিস্তানের পার্লামেন্ট নির্বাচন ঘিরে দেশজুড়ে ব্যাপক সহিংসতা হয়েছে। শনিবার অনুষ্ঠিত ...

স্বামী-সন্তানের সামনেই লাশ হলেন রুমা

স্বামী-সন্তানের সামনেই লাশ হলেন রুমা

রাজধানীর মিরপুরের মধ্য পাইকপাড়ার বাসা থেকে চিকিৎসার জন্য চিকিৎসকের কাছে ...

মহাকাশে 'নকল চাঁদ' বসাবে চীনা কোম্পানি

মহাকাশে 'নকল চাঁদ' বসাবে চীনা কোম্পানি

রাতের আকাশের উজ্জ্বলতা বাড়াতে মহাকাশে একটি ফেক মুন বা নকল ...

সংসদের শেষ অধিবেশন শুরু রোববার

সংসদের শেষ অধিবেশন শুরু রোববার

দশম জাতীয় সংসদের ২৩তম অধিবেশন শুরু হচ্ছে রোববার। স্পিকার ড. ...

ইয়াবা বহনের অভিযোগে সোহাগ পরিবহনের বাসচালক গ্রেফতার

ইয়াবা বহনের অভিযোগে সোহাগ পরিবহনের বাসচালক গ্রেফতার

রাজধানীর মালিবাগ এলাকা থেকে সোহাগ পরিবহনের একটি বাসের চালককে গ্রেফতার ...