চামড়া পাচারের আশঙ্কা ট্যানারি মালিকদের

প্রকাশ: ২৫ আগস্ট ২০১৮     আপডেট: ২৫ আগস্ট ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

এলাকাভিত্তিক রাজনৈতিক নেতা ও সামাজিক ক্লাবগুলো নিয়ন্ত্রণ করেছেন এবার চামড়ার দাম। এ কারণেই নির্ধারিত দরের তুলনায় এ বছর কাঁচা চামড়ার দাম অনেক কমেছে। কম দামের কারণে কাঁচা চামড়া ভারতে পাচার হয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন ট্যানারি মালিকরা। 

শনিবার চামড়ার বাজারের সার্বিক অবস্থা তুলে ধরতে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানায় বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিটিএ)। রাজধানীর ধানমণ্ডিতে বিটিএ কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন সংগঠনের সভাপতি শাহীন আহমেদ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিটিএর সিনিয়র সহসভাপতি মো. মাজাকাত হারুন মানিক, সহসভাপতি ইলিয়াসুর রহমান বাবুল, সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত উল্লাহ, কোষাধ্যক্ষ মিজানুর রহমান প্রমুখ। 

সংবাদ সম্মেলনে বিটিএ সভাপতি বলেন, সীমান্ত দিয়ে চামড়া পাচার হয়ে যেতে পারে। এজন্য আগামী এক মাস বিজিবি সদস্যদের সতর্ক থাকার আহ্বান জানাচ্ছেন তারা। চামড়ার কোনো ট্রাক যাতে সীমান্ত পার হয়ে না যেতে পারে সে জন্য কড়াকড়ি আরোপ ও নজরদারি জোরদার করতে হবে। অন্যদিকে চামড়ার বাজারের অবস্থা খারাপ হওয়ার পেছনে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটিরশিল্প করপোরেশনের (বিসিক) দায়ও রয়েছে। বিসিকের কারণেই চামড়া শিল্পনগরী এক যুগ ধরে প্রক্রিয়াধীন। ট্যানারি মালিকদের বিসিক সহযোগিতা করছে না। 

শাহীন আহমেদ বলেন, ট্যানারি মালিকরা পুঁজি সংকটে রয়েছেন। বর্তমানে যে অবস্থা চলছে তা অব্যাহত থাকলে ভবিষ্যতে এ শিল্পে অস্থিরতা আরও বাড়বে। ৩০ বছরের মধ্যে কাঁচা চামড়ার দর সর্বনিম্ন রয়েছে বলে গণমাধ্যমের খবরকে বিচ্ছিন্ন ঘটনা দাবি করে তিনি বলেন, সরকারের বেঁধে দেওয়া দামেই লবণযুক্ত চামড়া কিনবেন ট্যানারি মালিকরা। লবণ ছাড়া বা সংরক্ষণ না করে কেউ বিক্রি করতে এলে দাম পাবেন না। 

বিটিএ সভাপতি বলেন, প্রতিটি চামড়ায় লবণ দেওয়ার খরচ হয় ১০৫ টাকা। আর শ্রমিকের মজুরি, পরিবহন খরচসহ অন্যান্য বাবদ ২০০ টাকার মতো খরচ হয়। ঢাকায় একটি গরুর চামড়া ৮০০ টাকা বিক্রি হলে অন্যান্য খরচ দিয়ে দাম পড়ে এক হাজার টাকা।

বিটিএ সভাপতি বলেন, এবারের কোরবানিতে চামড়া সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হবে। এবার ৫০ থেকে ৫৫ লাখ গরুর চামড়া এবং ৩০ থেকে ৩৫ লাখ ছাগলের চামড়া সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে। আগামী ১০ দিনের মধ্যে ট্যানারি মালিকদের পক্ষ থেকে চামড়া সংগ্রহ করা হবে। 

শাহীন আহমেদ বলেন, গত বছর যেসব কারখানা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল তারা এখনও উৎপাদনে যেতে পারেনি। আর আস্থার সংকটের কারণে দীর্ঘদিনের বিদেশি ক্রেতারা অন্য দেশে চলে গেছেন। কমপ্লায়েন্স ইস্যুতে যেসব ক্রেতা ফিরে গেছেন তাদের আনা সম্ভব হচ্ছে না। এর সঙ্গে আন্তর্জাতিক বাজারে এক থেকে এক দশমিক ৭৫ শতাংশ দাম কমেছে। ফলে ব্যবসায়ীরা ব্যাংক ঋণ পরিশোধ করতে পারেননি। চীন প্রচুর রফতানি আদেশ বাতিল করেছে। গত বছরের ৪০ থেকে ৪৫ শতাংশ চামড়া মজুদ আছে। এবছরও বিক্রির কোনো নিশ্চয়তা নেই।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, জমি রেজিস্ট্রেশন করে দেওয়ার কথা থাকলেও বিসিক গড়িমসি করছে। সিইটিপির মূল্যের সঙ্গে সমন্বয় করে জমির মূল্য নির্ধারণ করতে চাচ্ছে। শিল্প পার্কে যে অব্যবস্থাপনা হচ্ছে সম্পূর্ণ দায়-দায়িত্ব বিসিকের। ট্যানারি মালিকরা বারবার বলেছেন, একটি পরিবেশবান্ধব শিল্প পার্ক দেওয়া হোক। তাদের বিনিয়োগ কয়েক হাজার কোটি টাকা হয়েছে। নিজেদের টাকায় ব্যবসায়ীরা ট্যানারি স্থানান্তর করেছেন। এজন্য কোনো সরকারি সহায়তা পাননি। আন্তর্জাতিক বাজারের চাহিদা অনুযায়ী ট্যানারিগুলো উৎপাদন করতে পারছে না।

বিটিএ সভাপতি অভিযোগ করেন, যে ব্যাংক ঋণ দেওয়া হয় তা পর্যাপ্ত নয়। এ বছর ব্যাংকগুলো মাত্র ৪২টি ট্যানারিকে ঋণ দিয়েছে। অন্যরা উৎপাদনে যেতে না পারায় এবং রফতানি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তাদের ঋণ দেওয়া হয়নি। ঈদের মৌসুমে দুই থেকে আড়াই হাজার কোটি টাকার চামড়া বেচাকেনা হয়। এ জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ ট্যানারি মালিকদের কাছে নেই। মৌসুমি ব্যবসায়ীরা চামড়া কিনতে অর্থ লগ্নি করেছেন। এ ক্ষেত্রে মধ্যস্বত্বভোগীরা কৃত্রিম দাম সৃষ্টি করায় মৌসুমি ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। শাহীন আহমেদ বলেন, দুই থেকে তিন মাস চামড়া সংরক্ষণ করা যায়। সঠিকভাবে সংরক্ষণ করলে মৌসুমি ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরাও উপযুক্ত দাম পাবেন।

আরও পড়ুন

ভারতের শ্বাস রুদ্ধ করে ’টাই’ আফগানদের

ভারতের শ্বাস রুদ্ধ করে ’টাই’ আফগানদের

ভারত 'বধ' করেই ফেলেছিল আফগানিস্তান। কিন্তু ম্যাচটা শেষ পর্যন্ত টাই ...

পল্টন-সোহরাওয়ার্দী কোনোটাই পাচ্ছে না বিএনপি

পল্টন-সোহরাওয়ার্দী কোনোটাই পাচ্ছে না বিএনপি

আগামীকাল বৃহস্পতিবার প্রথমে রাজধানীতে জনসভা করার ঘোষণা দিয়েছিল বিএনপি। ওইদিন ...

শীর্ষ চার রুশ ব্লগার বাংলাদেশে

শীর্ষ চার রুশ ব্লগার বাংলাদেশে

বাংলাদেশের পর্যটন সম্ভাবনাকে রাশিয়ার জনগণের সামনে তুলে ধরা এবং দ্বিপক্ষীয় ...

ভূমিহীনের জন্য বরাদ্দ জমিতে বড়লোকের পুকুর

ভূমিহীনের জন্য বরাদ্দ জমিতে বড়লোকের পুকুর

মুক্ত জলাশয়ে মাছ ধরে তা বিক্রি করে সংসার চলতো ভূমিহীন ...

জাতীয় ঐক্যকে চাপে রাখবে আ'লীগ ও ১৪ দলীয় জোট

জাতীয় ঐক্যকে চাপে রাখবে আ'লীগ ও ১৪ দলীয় জোট

শুরুতে স্বাগত জানালেও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া গঠন এবং সরকারবিরোধীদের নিয়ে ...

জিততেই হবে আজ

জিততেই হবে আজ

অতীতের ভুল তারা কখনোই স্বীকার করে না। মানতে চায় না ...

প্রশাসনে নির্বাচনী রদবদল

প্রশাসনে নির্বাচনী রদবদল

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রশাসন সাজানোর উদ্যোগ নিয়েছে ...

বিএনপির সমাবেশের পর ঐক্যের লিয়াজো কমিটি

বিএনপির সমাবেশের পর ঐক্যের লিয়াজো কমিটি

আগামী শনিবার বিএনপির সমাবেশের পর 'বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের' লিয়াজো কমিটি ...