সালমানের জামিন নিয়ে শঙ্কা

প্রকাশ: ০৭ এপ্রিল ২০১৮     আপডেট: ০৭ এপ্রিল ২০১৮      

অনলাইন ডেস্ক

যোধপুরের আদালতে সালমান খানের জামিন আবেদনের বিষয়ে আজ শনিবার শুনানির দিন ধার্য ছিল। কিন্তু যে বিচারক সালমানকে পাঁচ বছরের সাজা দিয়েছিলেন সেই বিচারক হঠাৎ বদলি হওয়ায় তার জামিন পাওয়া নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে। খবর এনডিটিভির।

শুক্রবার কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলার বিচারক রবীন্দ্র কুমার যোশিকে হঠাৎ বদলি করা হয়। তার জায়গায় নতুন বিচারক এসেছেন চন্দ্র কুমার সংগারা। কিন্তু তিনি আজ কাজে যোগ দেবেন কিনা, তা এখনও জানা যায়নি। ফলে সালমানের জামিন নিয়ে ধোঁয়াশার সৃষ্টি হয়েছে।

জেলে বসেই বিচারকের বদলির খবর পেয়েছেন সালমান। এ খবর শোনার পর থেকে সালমান নিজেও বিচলিত।

গতকাল শুক্রবার যোধপুরের আদালতে জামিনের আবেদন জানিয়ে সালমানের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, যে সাক্ষীদের কথার উপর ভিত্তি করে এই মামলার সাজা ঘোষণা করা হয়েছে, তাদের মন্তব্য মোটেও গ্রহণযোগ্য নয়। বেশ কিছুক্ষণ শুনানির পর রায় দান স্থগিত রেখেছিলেন বিচারপতি রবীন্দ্র কুমার যোশি। আজ শনিবার রায় হওয়ার কথা ছিল। 

কারাগারে সালমান খানের জন্য বাইরে থেকে খাবার আনার অনুমতি নেই। বৃহস্পতিবার রাতে সালমান খানকে ডাল, রুটি ও সবজি খেতে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তা খেতে আপত্তি জানিয়েছিলেন সালমান। 

যোধপুর কারা তত্ত্বাবধায়ক বিক্রম সিং বলেন, সেলিব্রেটি হওয়ার কারণে সালমানকে কারাগারে বিশেষ কোনো সুবিধা দেওয়া হচ্ছে না। আর দশজন বন্দীর মতোই তিনি সুবিধা পাচ্ছেন। তার কক্ষে কাঠের বিছানা, কম্বল ও কুলার দেওয়া হয়েছে। তার কয়েদি নম্বর ১০৬। 

গত বৃহস্পতিবার দুপুরে রায় ঘোষণার পরপরই তাকে যোধপুর কারাগারে নেওয়া হয়। ২০০৬ সালেও এই যোধপুর কারাগারে পাঁচরাত কাটাতে হয়েছিল সালমানকে।

এদিকে সালমান খানের পাঁচ বছরের সাজা হওয়ায় বড় অঙ্কের ক্ষতির মুখে পড়েছেন বলিউডের বেশ কয়েকজন প্রযোজক ও পরিচালক। অনিশ্চয়তার মুখে পড়েছে বেশ কয়েকটি ছবির শুটিং ও মুক্তি।

২০ বছর আগের কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলায় বৃহস্পতিবার সালমান খানকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয় যোধপুরের আদালত। একই মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় খালাস পান বলিউড তারকা টাবু, নীলম, সোনালি বেন্দ্রে ও সাইফ আলি খান।

বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনের ৯/৫১ ধারায় দোষী প্রমাণিত হন সালমান। এই আইনে সর্বোচ্চ ৬ বছর ও সর্বনিম্ন ১ বছরের কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে।

১৯৯৮ সালের অক্টোবরে যোধপুরে 'হাম সাথ সাথ হ্যায়' ছবির শুটিং চলাকালে কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার অভিযোগ ওঠে সালমান খানের বিরুদ্ধে। কৃষ্ণসার হরিণ ভারতের বিশনয় সম্প্রদায়ের মানুষের কাছে পূজনীয় প্রাণী। তারা এই হরিণের পূজা করেন। সালমান খানের যাতে সাজা হয় সেজন্য দীর্ঘদিন ধরে এই মামলার পেছনে লেগে ছিলেন বিশনয় সম্প্রদায়ের মানুষ।

আরও পড়ুন

আগারগাঁওয়ে পাসপোর্ট করতে এসে দালালসহ ধরা রোহিঙ্গা নারী

আগারগাঁওয়ে পাসপোর্ট করতে এসে দালালসহ ধরা রোহিঙ্গা নারী

পাসপোর্ট করার জন্য রাজধানীর আগারগাঁও পাসপোর্ট অফিসে এসে দালালসহ ধরা ...

খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের আদেশ রোববার

খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের আদেশ রোববার

কুমিল্লার এক হত্যা মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার হাইকোর্টে জামিন ...

রোহিঙ্গা শিশুদের নিজের সন্তানের মতো দেখুন: প্রিয়াঙ্কা

রোহিঙ্গা শিশুদের নিজের সন্তানের মতো দেখুন: প্রিয়াঙ্কা

কক্সবাজারের শরণার্থী ক্যাম্পগুলোতে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গা নারী ও শিশুদের সব ...

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে অবরোধের সুপারিশ কানাডার দূতের

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে অবরোধের সুপারিশ কানাডার দূতের

রোহিঙ্গা সংকটের স্থায়ী সমাধান নিশ্চিত করতে মিয়ানমারের ওপর অর্থনৈতিক অবরোধ ...

সাংবাদিক এনামুলের ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

সাংবাদিক এনামুলের ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

দৈনিক সমকালের গোবিন্দগঞ্জ প্রতিনিধি এনামুল হককে মারধর করার প্রতিবাদে ও  ...

ট্রাম্প-কিমের বৈঠক বাতিল

ট্রাম্প-কিমের বৈঠক বাতিল

উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ...

বাংলাদেশের কাছে বিশ্বের শেখার আছে: প্রিয়াঙ্কা

বাংলাদেশের কাছে বিশ্বের শেখার আছে: প্রিয়াঙ্কা

বলিউড অভিনেত্রী ও ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত প্রিয়াঙ্কা চোপড়া বলেছেন, বিপুল সংখ্যক ...

বিচার বহির্ভূত হত্যা নয়, এনকাউন্টার হচ্ছে: কাদের

বিচার বহির্ভূত হত্যা নয়, এনকাউন্টার হচ্ছে: কাদের

চলমান মাদকবিরোধী অভিযানে সাত দিনে ৫২ জনের মৃত্যুর ঘটনাকে ‘এনকাউন্টার’ ...