জামিন পেলেন সালমান খান

প্রকাশ: ০৭ এপ্রিল ২০১৮     আপডেট: ০৭ এপ্রিল ২০১৮      

অনলাইন ডেস্ক

কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলায় জামিন পেলেন বলিউড সুপারস্টার সালমান খান। শনিবার বিকেলে যোধপুরের আদালত সালমান খানের জামিন মঞ্জুর করেন। 

শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সালমানের জামিনের আবেদনের বিষয়ে শুনানি শুরু হয়। দীর্ঘ সময় শুনানি শেষে বিকেলে সালমানের জামিন মঞ্জুর করে রায় দেন বিচারক  রবীন্দ্র কুমার যোশি।

আজ শুনানিতে প্রসিকিউশন সাক্ষীদের বিশ্বাসযোগ্যতা এবং হরিণের ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন নিয়ে কথা বলেন। সালমানের আইনজীবী আদলতকে বলেন, হরিণের ময়নাতদন্তের জন্য শুধু হাড় পাঠানো হয়েছিল কিন্তু চামড়া পাঠানো হয়নি। গুলি লেগেছে কিনা তা জানার জন্য চামড়া ছিল গুরত্বপূর্ণ। এছাড়া যারা এ ঘটনার সাক্ষী দিয়েছেন তারা ভুয়া বলে দাবি করেন ওই আইনজীবী।  

তবে এ দিন সকাল থেকে সালমনের জামিন সংক্রান্ত মামলা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছিল। কারণ, শুক্রবার বিচারক রবীন্দ্র কুমার যোশি-সহ ৭২ জনকে বদলির নির্দেশ দেয় প্রশাসন। কিন্তু বিচারক বদলির এই প্রক্রিয়াটি সম্পূর্ণ করতে সাত দিন সময় লাগে। সে জন্য এ দিন যোশির এজলাসেই হয় সালমনের জামিন সংক্রান্ত মামলার শুনানি।

গত বৃহস্পতিবার ২০ বছর আগের কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলায় বৃহস্পতিবার সালমান খানকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয় যোধপুরের আদালত। একই মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় খালাস পান বলিউড তারকা টাবু, নীলম, সোনালি বেন্দ্রে ও সাইফ আলি খান।

বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনের ৯/৫১ ধারায় দোষী প্রমাণিত হন সালমান। এই আইনে সর্বোচ্চ ৬ বছর ও সর্বনিম্ন ১ বছরের কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে।

১৯৯৮ সালের অক্টোবরে যোধপুরে 'হাম সাথ সাথ হ্যায়' ছবির শুটিং চলাকালে কৃষ্ণসার হরিণ হত্যার অভিযোগ ওঠে সালমান খানের বিরুদ্ধে। কৃষ্ণসার হরিণ ভারতের বিশনয় সম্প্রদায়ের মানুষের কাছে পূজনীয় প্রাণী। তারা এই হরিণের পূজা করেন। সালমান খানের যাতে সাজা হয় সেজন্য দীর্ঘদিন ধরে এই মামলার পেছনে লেগে ছিলেন বিশনয় সম্প্রদায়ের মানুষ।

আরও পড়ুন

হৃদয়ে ক্ষত নিয়ে ঈদ করছেন শরণার্থী রোহিঙ্গারা

হৃদয়ে ক্ষত নিয়ে ঈদ করছেন শরণার্থী রোহিঙ্গারা

মাবিয়া খাতুন, বয়স আনুমানিক ৬০। খুব কাছ থেকে তিনি দেখেছেন মিয়ানমার ...

ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে ঈদের দিনেও তীব্র যানজট

ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে ঈদের দিনেও তীব্র যানজট

সিরাজগঞ্জে বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম পাড়ে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে ঈদের দিনেও তীব্র ...

লাখো মুসল্লির অংশগ্রহণে শোলাকিয়ায় ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত

লাখো মুসল্লির অংশগ্রহণে শোলাকিয়ায় ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত

লাখো মুসল্লির অংশগ্রহণে দেশের সর্ববৃহৎ ঈদগাহ মাঠ কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় ঈদুল ...

উল্লাপাড়ায় রেললাইনে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ

উল্লাপাড়ায় রেললাইনে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ

উল্লাপাড়া উপজেলার শিবপুর গ্রামের ঈশ্বরদী-ঢাকা রেল লাইনের উপর থেকে অজ্ঞাত ...

বগুড়ায় বাস-অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৩

বগুড়ায় বাস-অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৩

বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলায় একটি যাত্রীবাহী বাস ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি ...

দেশ-জাতির শান্তি ও কল্যাণ কামনা

দেশ-জাতির শান্তি ও কল্যাণ কামনা

বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার ও যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে সারাদেশে উদযাপিত হচ্ছে ...

নওগাঁয় ট্রাকচাপায় ৩ জনের মৃত্যু

নওগাঁয় ট্রাকচাপায় ৩ জনের মৃত্যু

নওগাঁয় ট্রাকচাপায় মটরসাইকেলের দুই আরোহীসহ তিন জন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার ...

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নির্ভর করছে বাংলাদেশের ওপর: সু চি

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নির্ভর করছে বাংলাদেশের ওপর: সু চি

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন কবে শুরু হবে সেটি বাংলাদেশের ওপরই নির্ভর করছে ...