আজীবন সদস্যপদ পেলেন অঞ্জু ঘোষ

প্রকাশ: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮     আপডেট: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

অনলাইন ডেস্ক

ঢাকাই চলচ্চিত্র ইতিহাসের অন্যতম ব্যবসা সফল ছবি 'বেদের মেয়ে জোসনা'। ছবির নায়িকা ছিলেন অঞ্জু ঘোষ। নায়ক হিসেবে ছিলেন ইলিয়াস কাঞ্চন। ১৯৮৯ সালে মুক্তি পাওয়া এ ছবির নায়িকাকে অনেকেই হয়তো ভুলেই বসেছিলেন।  কারণ দেশে ছিলেন না তিনি। কলকাতায় বসবাস করে আসছিলেন। অবশেষে ২২ বছর পর ঢাকায় ফিরেছেন তিনি।  শুধুই কী তাই! ২২ বছর পর পা রাখলেন চলচ্চিত্রের আতুড়ঘর এফডিসিতে। বাংলাদেশে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির আমন্ত্রণেই এফডিসিতে এলেন বরেণ্য এ  নায়িকা। 

রবিবার বিকালে অঞ্জু ঘোষকে ঘিরে এফডিসিত হয়ে উঠে জমজমাট। নতুন পুরোনো অনেকেই তাকে দেখার জন্য ছুটে আসেন এফডিসিতে। শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে তাকে জানানো সম্মাননা। সেই সঙ্গে সমিতির আজীবন সদস্যপদ দিয়েও তাকে সম্মানিত করা হয়। অঞ্জু ঘোষের জন্য আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বরেণ্য এ নায়িকাকে আজীবন সদস্য করার ঘোষণা দেন সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর।

এ সময় তার পাশে অঞ্জু ঘোষ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন, সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানসহ অনেকেই। শুধু ঘোষণাতেই সীমাবদ্ধ থাকেননি সমিতির সভাপতি। তিনি এই সম্মাননার একটি চিঠি তুলে দেন অঞ্জু ঘোষের হাতে।

অঞ্জু ঘোষকে আজীবন সদস্যপদ দেওয়া প্রসঙ্গে মিশা সওদাগর বললেন, ‌‌' অঞ্জু ঘোষ আমাদের চলচ্চিত্র ইন্ডাষ্ট্রির গর্ব। তিনি যেখানেই থাকুক না কেন  তিনি আমাদেরই। এই বিশ্বায়নের  যুগে আমি সেটাই বিশ্বাস করি। একজন অঞ্জু ঘোষকে বাদ দিয়ে একটা ‘বেদের মেয়ে জোসনা’ বাদ দিয়ে আমরা আমাদের ইন্ডাষ্ট্রি কল্পনা করতে পারিনা।

২২ বছর পর সবার ভালোবাসা পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে যান অঞ্জু ঘোষ। মনের কথাটা গুছিয়ে না বলতে পারলেও তিনি বলেন, ‘আপনারা জোসনাকে এতকাল মনে রাখবেন, এভাবে বরণ করে নেবেন, সত্যি ভাবিনি।’

মিত অভিনয় করতেন

আরও পড়ুন

সালাহ-ফিরমিনোয় হার নেইমার-এমবাপ্পেদের

সালাহ-ফিরমিনোয় হার নেইমার-এমবাপ্পেদের

সালাহ-সাদিও মানে-ফিরমিনো বনাম নেইমার-এমবাপ্পে-কাভানি! কিংবা বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের সাবেক দুই কোচ ...

হংকংয়ের বিপক্ষে কষ্টের জয় ভারতের

হংকংয়ের বিপক্ষে কষ্টের জয় ভারতের

হংকংয়ের ইনিংসের তখন ২৯ ওভার চলছে। কোন উইকেট না হারিয়ে ...

মুশফিক বিশ্রামে খেলবেন মুমিনুল

মুশফিক বিশ্রামে খেলবেন মুমিনুল

রুটি সেঁকতে গিয়ে শেষ পর্যন্ত না আবার হাতটাই পুড়ে যায়- ...

শিক্ষার্থীরা আশাবাদী, সন্দেহ যাচ্ছে না ছাত্রনেতাদের

শিক্ষার্থীরা আশাবাদী, সন্দেহ যাচ্ছে না ছাত্রনেতাদের

সাধারণ শিক্ষার্থীরা আশাবাদী। তবে কিছুটা সন্দেহ আর সংশয়ে আছে ক্যাম্পাসে ...

স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নে বাড়ছে গড় আয়ু

স্বাস্থ্যসেবার উন্নয়নে বাড়ছে গড় আয়ু

বাংলাদেশের মানুষের গড় আয়ু ক্রমশই বাড়ছে। ১০ বছর আগে ২০০৮ ...

৩০০ আসনে প্রার্থী দিতে প্রস্তুতি নিচ্ছে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য

৩০০ আসনে প্রার্থী দিতে প্রস্তুতি নিচ্ছে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য

চলমান রাজনীতিতে নতুন মাত্রা যোগ করেছে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য। আওয়ামী ...

'থাহনের জাগা নাই, পড়ালেহা করব ক্যামনে'

'থাহনের জাগা নাই, পড়ালেহা করব ক্যামনে'

ভিটেমাটির সঙ্গে শিশু নাসরিন আক্তারের স্কুলটিও গেছে পদ্মার গর্ভে। তীরে ...

রোগশোক ভুলে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে ওরা

রোগশোক ভুলে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে ওরা

হাটহাজারীর কাটিরহাট থেকে ছয় কিলোমিটার ইটবিছানো রাস্তার পর প্রায় এক ...