জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানীর স্বীকৃতি দিলেন ট্রাম্প

প্রকাশ: ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭     আপডেট: ০৭ ডিসেম্বর ২০১৭      

সমকাল ডেস্ক

মুসলিম বিশ্বসহ আন্তর্জাতিক মতামত উপেক্ষা করেই অবশেষে জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। 

বুধবার ওয়াশিংটন সময় দুপুরে এ ঘোষণা দেন তিনি। এ সময় তিনি যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস তেল আবিব থেকে সরিয়ে জেরুজালেমে নিতেও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে নির্দেশ দেন। তবে স্থানান্তরের দিনক্ষণ বলেননি তিনি।

 ট্রাম্পের এ পদক্ষেপকে ইসরায়েল স্বাগত জানালেও ফুঁসে উঠেছে ফিলিস্তিন, জর্ডান, তুরস্ক, ইরান, পাকিস্তানসহ মুসলিম বিশ্ব। হুঁশিয়ারি দিয়েছে ওআইসি, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, জার্মানি। এ নিয়ে গভীর উদ্বেগ জানিয়েছেন পোপ ফ্রান্সিস। 

ফিলিস্তিনের হামাস বলেছে, ট্রাম্পের এ স্বীকৃতি মধ্যপ্রাচ্যের শান্তি প্রক্রিয়ার জন্য 'মৃত্যুর চুম্বন' ছাড়া কিছুই নয়। সব মিলিয়ে ট্রাম্প মধ্যপ্রাচের পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত করে তুললেন বলেই অভিমত বিশ্নেষকদের। খবর বিবিসি, সিএনএন ও এএফপির। 

জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী স্বীকৃতি দেওয়ার ঘোষণার আগে ওয়াশিংটনে কেবিনেট বৈঠকে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, এই প্রক্রিয়া অনেক আগেই সম্পন্ন করা উচিত ছিল। 

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের অনেক প্রেসিডেন্ট প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন; কিন্তু তারা ঘোষণা দেননি। তারা হয়তো সাহস না পেয়েই মত বদলেছেন। নিজেকে 'প্রতিশ্রুতির বাস্তবায়ন ঘটানোর ক্ষেত্রে সাহসী' দাবি করে ট্রাম্প বলেন, পূর্ববর্তী প্রেসিডেন্টরা যা করতে পারেননি, তাই তিনি করবেন। 

যুক্তরাষ্ট্র তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে দূতাবাস সরিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে ১৯৯৫ সালে একটি আইন পাস করে। 

'জেরুজালেম অ্যাম্বাসি অ্যাক্ট' অনুযায়ী, তেল আবিব শহর থেকে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস স্থানান্তর করা হবে কি-না, সে সিদ্ধান্ত জানাতে প্রত্যেক মার্কিন প্রেসিডেন্টকে ছয় মাস অন্তর একটি সিদ্ধান্তে স্বাক্ষর করতে হয়। আইন অনুযায়ী জেরুজালেমে স্থানান্তর করার প্রক্রিয়া স্থগিত রাখার বিষয়টি প্রেসিডেন্টের এখতিয়ার। এতদিন প্রেসিডেন্টরা ছয় মাস পর পর স্বাক্ষর করে দূতাবাস স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত স্থগিত রেখেছেন। এবার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তা আর স্থগিত রাখলেন না। 

আরও পড়ুন

আন্দোলনে বিএনপি শরিকদের নজর আসনে

আন্দোলনে বিএনপি শরিকদের নজর আসনে

খালেদা জিয়া কারাগারে; নির্বাচনের চেয়ে তার মুক্তি বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে ...

এখনই ফয়সালা চায় ১৪ দলের শরিকরা

এখনই ফয়সালা চায় ১৪ দলের শরিকরা

আগামী সংসদ নির্বাচনের আসন বণ্টনের দাবিতে এখনই সোচ্চার আওয়ামী লীগ ...

নকশা পরিবর্তনে কমেছে সক্ষমতা

নকশা পরিবর্তনে কমেছে সক্ষমতা

দ্বিতীয় সাবমেরিন কেবল ট্রান্সমিশন লিংক স্থাপনে মূল নকশার পরিবর্তন করে ...

শিক্ষা ক্যাডারে সাড়ে ১২ হাজার নতুন পদ

শিক্ষা ক্যাডারে সাড়ে ১২ হাজার নতুন পদ

নতুন সাড়ে ১২ হাজার পদ সৃষ্টি হচ্ছে বিসিএস (সাধারণ শিক্ষা) ...

 সক্রিয় আওয়ামী লীগ ও জাপা, নির্ভার বিএনপি

সক্রিয় আওয়ামী লীগ ও জাপা, নির্ভার বিএনপি

লালমনিরহাট-৩ (সদর) আসনে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী সরকারি দল আওয়ামী লীগ। ...

যেমন ভিড় তেমন বিক্রি

যেমন ভিড় তেমন বিক্রি

দুপুর দেড়টা :  সবেমাত্র শেষ হয়েছে শিশুপ্রহর, বেরিয়ে আসছে সবাই, ...

বিয়েবাড়ির ধুমধামে নিমেষেই বিষাদ

বিয়েবাড়ির ধুমধামে নিমেষেই বিষাদ

বিয়েবাড়িতে ধুমধাম আনন্দ-উল্লাস চলছে, গরু-খাসি জবাই করে চলছে রান্নাবান্না। বিশাল ...

ছুটির বিকেলে নাতি-নাতনির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী

ছুটির বিকেলে নাতি-নাতনির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী

ব্যস্ততার মাঝে সামান্য সময় মিললে সেটুকুই পরিবারের সঙ্গে ভাগ করে ...