ভারতে বিচারপতিদের বিক্ষোভ: প্রধান বিচারপতির বাসভবনে সরকারি দূত

প্রকাশ: ১৩ জানুয়ারি ২০১৮      

অনলাইন ডেস্ক

দিল্লিতে সংবাদ সম্মেলনে ভারতের সুপ্রিম কোর্টের চার বিচাপতি (বাঁ থেকে ডানে) বিচারপতি কুরিয়ান জোসেফ, বিচারপতি জাস্তি চেলামেশ্বর, বিচারপতি রঞ্জন গগৈ ও বিচারপতি মদন লকুর— জিনিউজ

ভারতের সুপ্রিম কোর্টের চার বিচারপতির নজিরবিহীন বিক্ষোভের প্রেক্ষাপটে আলোচনার জন্য প্রধান বিচারপতির বাসভবনে গেছেন দেশটির সরকারি দূত।

শনিবার সকালে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দপ্তরের মুখ্য সচিব দেশটির প্রধান বিচারপতির বাসভবনে যান বলে জিনিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার সন্ধ্যায় আইনমন্ত্রী রবিশঙ্কর প্রসাদকে আলোচনার জন্য ডেকে পাঠান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দীর্ঘ সময় ধরে তাদের মধ্যে বৈঠক হয়।

পুরো বিষয়টি নিয়ে শুক্রবারই ভারতের অ্যাটর্নি জেনারলের সঙ্গে বৈঠক করেন দেশটির প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র। এরপর শনিবার সকালে আরও এক দফায় আলোচনার জন্য প্রধান বিচারপতির বাড়ি যান প্রধানমন্ত্রী দপ্তরের মুখ্য সচিব। তবে সেখানে তাদের মধ্যে কী ধরনের আলোচনা হয়েছে সে বিষয়ে জানা যায়নি।

এদিকে শনিবার দুপুরে বৈঠকে বসার কথা রয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্টের বার অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যদের। চলমান বিতর্ককে সামনে রেখে তাদের অবস্থান ঠিক করতেই এই বৈঠক বলে সূত্রের খবর। বিকেলে বার অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষে সাংবাদিক বৈঠক করা হবে।

শুক্রবার সকালে সাংবাদিক বৈঠক করে প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে নজিরবিহীন বিক্ষোভ দেখান সুপ্রিম কোর্টের চার বিচারপতি জে চেমালেশ্বর, বিচারপতি কুরিুয়ান জোসেফ, বিচারপতি রঞ্জন গগৈ ও বিচারপতি মদন লকুর। সেখানে নিজেদের অভিযোগ স্পষ্ট ভাবে না জানালেও তারা বলেন, বর্তমান বিচারব্যবস্থায় অনেক ফাঁক রয়েছে। তার সঙ্গে বিচারব্যবস্থার নিরপেক্ষতা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তারা। 

তারা জানান, পুরো বিষয়টি প্রধান বিচারপতিকে লিখিত আকারে জানালেও তাতে কোনও কাজ হয়নি। তিনি বিষয়টি নিয়ে কর্ণপাত করেননি।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুক্রবার দিনভর তোলপাড় হয় গোটা ভারত। বিষয়টি নিয়ে মত প্রকাশ করেন ভারতের সাবেক থেকে বর্তমান বহু আইনজীবী। প্রতিক্রিয়া মেলে রাজনৈতিক মহলের পক্ষ থেকেও। কেউ পক্ষে, আবার কেউ বিপক্ষে বললেও, সকলের মতে এই ঘটনায় দেশের সাধারণ মানুষ বিচার ব্যবস্থার ওপর আস্থা কমবে।

আরও পড়ুন

আতাউরকে নিয়ে বিব্রত বিএনপি

আতাউরকে নিয়ে বিব্রত বিএনপি

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএন-সিসি) নির্বাচন স্থগিতাদেশ দেওয়ার রিট আবেদনকারী ...

এত অস্ত্র বৈধ নাকি অবৈধ

এত অস্ত্র বৈধ নাকি অবৈধ

পরিস্থিতি উত্তপ্ত হতে না হতেই বৈধ-অবৈধ অস্ত্র দেখা যাচ্ছে নারায়ণগঞ্জের ...

শান্তি চায় নাগরিক সমাজ

শান্তি চায় নাগরিক সমাজ

নারায়ণগঞ্জকে যারা সন্ত্রাসের জনপদ হিসেবে পরিচিত করে তুলেছে, মঙ্গলবারের ঘটনাও ...

এই 'অভিজ্ঞতা' দিয়ে কী করবে চট্টগ্রাম বন্দর

এই 'অভিজ্ঞতা' দিয়ে কী করবে চট্টগ্রাম বন্দর

চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল এম খালেদ ইকবালকে বদলি ...

আওয়ামী লীগ-বিএনপি বিভেদে সুযোগ নিতে চায় জাপা

আওয়ামী লীগ-বিএনপি বিভেদে সুযোগ নিতে চায় জাপা

নৌকার আসন হিসেবে পরিচিত হলেও অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণে পিরোজপুর-৩ (মঠবাড়িয়া) ...

 'মানুষ বিপদে পড়ার ভয়ে প্রতিবাদ করছে না'

'মানুষ বিপদে পড়ার ভয়ে প্রতিবাদ করছে না'

ক্রমশ মানুষ কথা বলা বন্ধ করে দিচ্ছে। প্রতিবাদ করছে না ...

ভাড়া বিমানে খাবার পৌঁছালো রেস্টুরেন্ট

ভাড়া বিমানে খাবার পৌঁছালো রেস্টুরেন্ট

আবাসস্থলের আশেপাশে পছন্দের রেস্টুরেন্টের কোনো শাখা না থাকায়, অথবা ডেলিভারি ...

পদ্মায় আরেকটি স্প্যান বসছে রোববার

পদ্মায় আরেকটি স্প্যান বসছে রোববার

পদ্মা সেতুতে আরেকটি স্প্যান বসানো হবে আগামী রোববার। সেতুর জাজিরা ...