সিঙ্গাপুরে ঐতিহাসিক বৈঠকে ট্রাম্প-কিম

প্রকাশ: ১২ জুন ২০১৮     আপডেট: ১২ জুন ২০১৮      

অনলাইন ডেস্ক

ক্যাপেলা হোটেলে বৈঠক শুরুর আগে করমর্দন করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প ও কিম জং উন-রয়টার্স

সব জল্পনা-কল্পনা ও উত্তেজনার অবসান ঘটিয়ে সিঙ্গাপুরে বৈঠকে বসেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার প্রধান নেতা কিম জং উন।  

সিঙ্গাপুরের সেন্তোসা দ্বীপের ক্যাপেলায় হোটেলে স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সকাল ৯টায় এই বৈঠক শুরু হয়। খবর বিবিসি, রয়টার্স ও আল জাজিরার।

বৈঠক শুরুর আগে ট্রাম্প বলেন, ‘আমি মনে করি এ বৈঠক সফল হবে এবং আমাদের মধ্যে নতুন সম্পর্ক তৈরি হবে। এতে কোনো সন্দেহ নাই।’

এদিকে কিম বলেন, ‘এই বৈঠকে বসা আমাদের জন্য সহজ ছিল না। অনেক বাধা অতিক্রম করে শেষ পর্যন্ত আমরা বৈঠকে বসতে পেরেছি।’

উত্তর কোরিয়ার পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ বিষয়ে বহু প্রতীক্ষিত এ ঐতিহাসিক বৈঠক উপলক্ষে সিঙ্গাপুরে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। বৈঠকের মূল বিষয়- যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে উত্তর কোরিয়ার পরমাণু অস্ত্র সংবরণ এবং উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে নিজেদের পূর্ণ নিরাপত্তা।

এই বৈঠককে শান্তির লক্ষ্যে 'একটি সুযোগ' হিসেবে অভিহিত করেছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম থেকে আশা করা হয়েছে, এর মাধ্যমে উত্তর কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে নতুন সম্পর্কের সূচনা হবে। যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বৈঠক ইতিবাচক হলে উত্তর কোরিয়াকে যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে অভূতপূর্ব নিরাপত্তা দেওয়া হবে।

৩০ একর জায়গার ওপর নির্মিত ক্যাপেলা হোটেলটি মূলত ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক আমলের ভবনেই গড়ে উঠেছে। এই ভবনগুলো সংস্কার করে বানানো হয়েছে হোটেলটি। সেখানে এক সময় ছিল ব্রিটিশ সেনাদের অফিসার্স মেস। মোট ১১২টি রুম ও কয়েকটি ভিলা রয়েছে হোটেলটিতে। 

সেন্তোসা দ্বীপটিকে বৈঠকের ভেন্যু হিসেবে বাছাই করার সবচেয়ে বড় কারণ নিরাপত্তা। সিঙ্গাপুরের মূল ভূখণ্ড থেকে বিচ্ছিন্ন দ্বীপটিতে চারদিক থেকে নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা অনেকটাই সহজ।

এখন অত্যন্ত চকচকে আর আলো ঝলমল একটি জায়গা হলেও সেন্তোসা দ্বীপের রয়েছে অন্ধকার এক অতীত। ইতিহাসের এক কালো অধ্যায় রচিত হয়েছে এখানে। সে অধ্যায়ের পাতাজুড়ে হত্যা আর রক্তপাতের কাহিনী।

আরও পড়ুন

পুলিশ জানে না খুনি কারা

পুলিশ জানে না খুনি কারা

রাজধানীর উপকণ্ঠ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলায় তিন যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধারের ...

আস্থার প্রতিদান দিলেন ইমরুল-সাইফ

আস্থার প্রতিদান দিলেন ইমরুল-সাইফ

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করা ইমরুল কায়েস দলের অটোমেটিক চয়েস ...

বাংলাদেশেই চিরশায়িত বাংলার অকৃত্রিম বন্ধু

বাংলাদেশেই চিরশায়িত বাংলার অকৃত্রিম বন্ধু

ফাদার মারিনো রিগনের নিজ হাতে লাগানো 'সোনা ঝুড়ি' গাছটি ফুল ...

এবার সাদা ইয়াবা

এবার সাদা ইয়াবা

এবার সাদা রঙের ইয়াবা উদ্ধার হলো রাজধানীর রামপুরার উলন রোড ...

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে ইসির সাক্ষাৎ ১ নভেম্বর

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে ইসির সাক্ষাৎ ১ নভেম্বর

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রচারে জীবন্ত কোনো প্রাণী ব্যবহার করা ...

সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আ' লীগ ১০ আসনও পাবে না: কাদের সিদ্দিকী

সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আ' লীগ ১০ আসনও পাবে না: কাদের সিদ্দিকী

বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগ ১০টির ...

চার্জশিটের আগে গ্রেফতারে সরকারের অনুমতি লাগবে

চার্জশিটের আগে গ্রেফতারে সরকারের অনুমতি লাগবে

আদালতে চার্জশিট গ্রহণের আগে সরকারি কর্মচারিদের গ্রেফতারে অনুমতি নিতে হবে-এমন ...

রণবীর-দীপিকার বিয়ের তারিখ চূড়ান্ত

রণবীর-দীপিকার বিয়ের তারিখ চূড়ান্ত

সকল জল্পনার অবসান ঘটিয়ে শিগগিরই বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন বলিউডের দুই ...