জীবন সংগ্রাম

এখন অন্যের জন্য সংগ্রামে ফরিদা

প্রকাশ: ০৫ মে ২০১৮      

ফয়সল আহমদ বাবলু, সিলেট

নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ফরিদা আলম— সমকাল

তার স্বামী শামসুল আলম একজন সৎ নিষ্ঠাবান মানুষ। সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের অধীনে সিলেট ওসমানী জাদুঘরের কেয়ারটেকার কাম আপার ডিভিশনাল অ্যাসিট্যান্ট (ইউডিএ) ছিলেন তার স্বামী। স্বামীর বেতনের টাকাই ছিল পরিবারের মূল চালিকা শক্তি। স্বামীর সততায় নিজেও ছিলেন গর্বিত। তাই কখনো সংসারে নিজের চাহিদার কথাও জানান দেননি তিনি, সবকিছুই সয়েছেন মুখ বুজে। সংগ্রামী এই নারীর নাম ফরিদা আলম। তিনি নিজে এখন প্রতিষ্ঠিত। সন্তানরাও ভালো চাকরি করছে। তবে সংগ্রামী এই নারীর সংগ্রাম এখনো থামেনি। এখন তিনি সংগ্রাম করছেন অন্যের জন্য। নিজের জানা কাজ এখন তিনি শেখাচ্ছেন অন্যদের, যাতে করে কোনো নারী সমাজে পিছিয়ে না থাকে; নিজেরাই যাতে নিজেদের কর্মসংস্থান খুঁজে নিতে পারে। সেই ফরিদা আলম সমকালের সঙ্গে একান্ত আলাপচারিতায় তুলে ধরেছেন তার সুখ-দুঃখের কথা।

ফরিদা আলম জানান, ঘরে একটি সেলাই মেশিন দিয়ে যাত্রা শুরু করেন। ওই মেশিনে প্রথমে তিনি নিজে কাজ শেখেন। এখন তিনি নগরীর শাহজালাল উপশহরে মোনালিসা বুটিকস ও মোনালিসা টেইলার্সের মালিক। পাশাপাশি ব্রাকের এসডিপি প্রকল্পের আওতায় অসহায় ও ছিন্নমূল নারী ও শিশুদের প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছেন। এছাড়া নিজ উদ্যোগে এবং বাংলাদেশ উইমেন্স চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (বিডব্লিউসিসিআই) নারী উদ্যোক্তাদের প্রশিক্ষণও দিচ্ছেন তিনি। বলতে গেলে, এখন তিনি প্রতিদিনই প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন নারীদের। 

ফরিদা বেগম জানান, স্বামীর ওপর যাতে সংসারের চাপ বেশি না পড়ে সে চিন্তা থেকে ১৯৯৬ সালে যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের মাধ্যমে সেলাই প্রশিক্ষণ নিয়ে ঘরে কাজ শুরু করেন। আস্তে আস্তে তার কাজের পরিধি বাড়তে থাকে। একা কাজ শেষ করতে না পেরে সঙ্গে কয়েকজন নারীকে যুক্ত করেন। একদিকে তাদেরকে কাজ শেখান অন্যদিকে তিনি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানও খুলে বসেন। নগরীর শাহজালাল উপশহর এলাকায় মোনালিসা বুটিকস ও মোনালিসা টেইলার্স নামে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলেন। ধীরে ধীরে তার দোকানের নাম ছড়িয়ে পড়ে চারিদিকে। এত চাপ সামাল দিয়ে সকলের কাজ সঠিকভাবেই করে দেন ফরিদা। আর এভাবেই হয়ে ওঠেন একজন দক্ষ নারী উদ্যোক্তা।

এখন ফরিদার চিন্তা চেতনা সমাজের পিছিয়ে পড়া নারীদের নিয়ে। তার মতে, নারী যদি স্বাবলম্বী হয় তাহলে সমাজ অনেকটা এগিয়ে যাবে।

নিজের টেইলার্সে কাজে ব্যস্ত ফরিদা আলম— সমকাল

বর্তমানে ফরিদা আলম বাংলাদেশ উইমেন্স চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (বিডব্লিউসিসিআই) সাধারণ সম্পাদক। এর মাধ্যমে তিনি শতাধিক নারীকে প্রশিক্ষণ দেন। তার প্রশিক্ষণ নিয়ে অনেক নারী আজ সমাজে প্রতিষ্ঠিত। অনেক ছেলেও বিদেশে ভালো চাকরি করছে। তার কাছে প্রশিক্ষণ নিয়ে বকুল বেগম নামে এক নারী কুশীঘাটে টেইলার্স ও সেলাই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন। এছাড়া রোকশানা বেগম, নাসরিন বেগম, ফাহিমা বেগমসহ অনেকেই নিজ প্রতিষ্ঠান দিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করছেন। অনেক নারী সিলেটের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ভালো বেতনে চাকরি করছেন। তার কাছ থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে ফ্রান্স ও দুবাইতে অনেক ছেলে কাজ করছেন বলেও জানালেন তিনি।

ফরিদা জানান, সমাজে পিছিয়ে পড়া অসহায় হিজড়াদেরও প্রশিক্ষণ দেন তিনি। অনেক হিজড়া প্রশিক্ষিত হয়ে অপকর্ম থেকে সরে এসেছে। গত বছর জাতীয় যুব উন্নয়নের সফল আত্মকর্মীর পুরস্কার রাষ্ট্রপতির হাত থেকে নেন ফরিদা।

২০১৩ সালে আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস জয়ীতা অন্বেষণে অর্থনৈতিকভাবে সফল নারী উদ্যোক্তার পুরস্কার পেয়েছেন জানিয়ে ফরিদা বলেন, এই অবস্থানে আসতে তাকে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়েছে। তার মতে, সিলেটের নারী উদ্যোক্তাদের ভাগ্যের পরিবর্তন হচ্ছে না। তাই তাদের আগে শিক্ষিত করে তুলতে হবে। যারা চাকরি করতে চায় তাদেরকে চাকরিতে দিতে হবে। আর বিদেশে যাওয়া এবং প্রবাসী পাত্র দেখে বিয়ে দেওয়ার প্রবণতা থেকে বের হয়ে আসতে হবে।

সিলেটের নারীদের উন্নয়নে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে ফরিদা বলেন, ইতিমধ্যে যারা প্রশিক্ষণ নিয়েছেন, তাদের প্রায় সবাই এখন নিজেদের নিয়ে ব্যস্ত। নিজেদের কাজের পাশাপাশি সবাই যদি পিছিয়ে পড়া নারীদের উন্নয়নে এগিয়ে আসে তাহলে সমাজে নারীদের দিকে কেউ আর উল্টো চোখে দেখবে না।

রাজশাহী খুলনা বরিশাল ও রংপুরের ৮১ আসনে আ'লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

রাজশাহী খুলনা বরিশাল ও রংপুরের ৮১ আসনে আ'লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল ও রংপুর বিভাগের কমপক্ষে ৮১ আসনে দলীয় ...

এমপি হতে চান ১২ হাজার!

এমপি হতে চান ১২ হাজার!

আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে এমপি হতে চান ১২ হাজারের বেশি নেতা। ...

শিক্ষকদের ভোটের 'ভেট'

শিক্ষকদের ভোটের 'ভেট'

নির্বাচনের আগেই সারাদেশের সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষকরা পেলেন বেশ কিছু ...

শেকড়ের টান উপেক্ষা করা যায় না

শেকড়ের টান উপেক্ষা করা যায় না

ইউরোপে যখন রক আর টেকনো নিয়ে মাতামাতি চলছে, ঠিক সেই ...

নতুন মুখ আসতে পারে বগুড়ার তিন আসনে

নতুন মুখ আসতে পারে বগুড়ার তিন আসনে

বগুড়ায় এবার অন্তত তিনটি আসনে ধানের শীষ প্রতীকে নতুন প্রার্থী ...

জয়পুরহাটে লেভেল ক্রসিংয়ে অল্পের জন্য বাঁচলো ৪৮ বাস যাত্রী

জয়পুরহাটে লেভেল ক্রসিংয়ে অল্পের জন্য বাঁচলো ৪৮ বাস যাত্রী

জয়পুরহাটের আক্কেলপুর পৌর এলাকার পশ্চিম আমুট্ট (মহিলা কলেজ সংলগ্ন) এলাকায় ...

সিডরে নিখোঁজের ১১ বছর পর প্রত্যাবর্তন

সিডরে নিখোঁজের ১১ বছর পর প্রত্যাবর্তন

প্রলংয়করী ঘূর্ণিঝড় সিডরে নিখোঁজের ১১ বছর পর বাড়ি ফিরেছেন শরণখোলা ...

সরকারি কাজে বাধা দেয়ায় রাবি ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতির জেল

সরকারি কাজে বাধা দেয়ায় রাবি ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতির জেল

সরকারি কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক ...