ময়মনসিংহ

বাড়ির পথে দেয়াল

মই বেয়ে আসা-যাওয়া!

প্রকাশ: ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮       প্রিন্ট সংস্করণ     

মুক্তাগাছা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি

পাকা দেয়ালের এক কোনায় লাগানো বাঁশের মই। আর অন্য পাশে মাটি দিয়ে উঁচু করে বানানো হয়েছে ঢালু পথ। বাঁশের মই আর মাটি দিয়ে বানানো পথ দিয়েই নিজ বাড়িতে যাতায়াত করছে একটি হতদরিদ্র পরিবার। এভাবে যাতায়াত করতে গিয়ে পড়ে গুরুতর আহত হচ্ছেন পরিবারের সদস্যরা। মুক্তাগাছা শহরের মনিরামবাড়ির একটি বাড়ির চারপাশে প্রতিবেশীর তোলা দেয়ালের কারণে পরিবারটির এমন দুর্ভোগ। অভিযোগ উঠেছে, দরিদ্র পরিবারটিকে বেকায়দায় ফেলে কম দামে ওই বাড়ি কেনার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে তার প্রতিবেশী। এ ঘটনায় স্থানীয় প্রশাসনের কাছে আবেদন করেও কোনো প্রতিকার পায়নি এই পরিবারটি।

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা শহরের মনিরামবাড়ি এলাকার বাসিন্দা ভুক্তভোগী মুজিবুর রহমান একজন রিকশাচালক ও দিনমজুর। প্রায় ১৫ বছর আগে একই এলাকার আবুল হোসেনের কাছ থেকে ২০ হাজার টাকায় পৌনে তিন শতাংশ জমি কেনেন তিনি। ওই জমিতে টিনের বাড়ি বানিয়ে পরিবার নিয়ে বাস করছেন দরিদ্র মুজিবুর রহমান। জমি কেনার সময় বাড়ির চারপাশ ছিল পুরোটাই খালি। জমির মালিক রাস্তা দেখিয়ে মুজিবুরের কাছে জমি বিক্রি করেন। এর পর তার চারপাশের জমিগুলোও অন্যরা কিনে বাড়ি করেন। জমি ক্রেতারা তাদের নিজেদের মতো করে দেয়াল তুলে বাড়ি নির্মাণ করেন।

মুজিবুরের দক্ষিণ পাশ, যে পাশ দিয়ে সে বাড়ি থেকে বের হতো, ওই পাশের জমি কেনেন উপজেলার হাতিল গ্রামের বাসিন্দা ও অগ্রণী ব্যাংক ময়মনসিংহের ছোটবাজার শাখার কেয়ারটেকার আবদুল হালিম। প্রায় ছয় বছর আগে তিনি সেখানে পাকা বাড়ি নির্মাণ করেন। তখন মুজিবুরের চলার পথ রেখেই বাড়ির দেয়াল নির্মাণ করলেও ছয় মাস আগে সে পথ বন্ধ করে দেয়াল নির্মাণ করেন আবদুল হালিম। এতে অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে মজিবুরের পুরো পরিবার। বাধ্য হয়ে পাকা দেয়ালের দুই পাশে বাঁশের মই আর মাটি উঁচু করে চলাচলের পথ তৈরি করেন মুজিবুর। তার ছোট ছোট পাঁচ সন্তান পার হতে গিয়ে পড়ে আহত হয়েছে। এভাবে দুই মাস চলাচলের পর সন্তানদের কথা ভেবে মুজিবুর বাড়িটি ছেড়ে একই এলাকায় ভাড়া বাসায় ওঠেন। এ নিয়ে এলাকার প্রভাবশালীদের হস্তক্ষেপ চাইলেও কেউ সাড়া দেননি। থানা ও উপজেলা প্রশাসনের কাছে আবেদন করেও বাড়িটি দেয়ালমুক্ত করতে পারেননি মুজিবুর। অসহায় মুজিবুর রহমান এখন বাড়িটি দেয়ালমুক্ত করতে মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন।

মুজিবুর রহমান কান্নাজড়িত কণ্ঠে সমকালকে বলেন, 'জমি কেনার সময় তাদেরকে রাস্তা দেখিয়ে জমি বিক্রি করেন জমির মালিক আবুল হোসেন। এর পর জমির মালিকের ভাইদের সঙ্গে আঁতাত করে আবদুল হালিম তাদের চলাচলের পথ হঠাৎ করেই বন্ধ করে দেন। আবদুল হালিমের উদ্দেশ্য, আমি যেন কম দামে তাদের কাছে বাড়িটি বিক্রি করে অন্যত্র চলে যাই।'

পাকা দেয়াল তুলে চলার পথ বন্ধ করার বিষয়ে অভিযুক্ত আবদুল হালিম সমকালকে বলেন, ভাড়াটিয়াদের সুবিধার্থে মুজিবুরের চলাচলের পথ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এখন মইও সরিয়ে দেওয়া হবে, যাতে দেয়াল বেয়ে মুজিবুরের পরিবার আর যেতে না পারে। বাড়ি করার সময় অনেক ইট বালু চুরি করেছে। তাকে আর আমার সীমানায় ঢুকতে দেওয়া হবে না। তিনি বলেন, এক সময় মুজিবুরের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক ছিল। তখন তাকে চলাচলের রাস্তা দেওয়া হয়েছে। এখন সম্পর্ক ভালো না, তাই দেয়াল তুলে পথ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। রাস্তা বন্ধ করে কম দামে জমি কেনার বিষয়টি অস্বীকার করেন আবদুল হালিম।

মুক্তাগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আহম্মেদ মোল্লা বলেন, এ ধরনের ঘটনায় কেউ থানায় অভিযোগ করতে আসেনি। অভিযোগ পেলে বাড়িটি দেয়ালমুক্ত করার চেষ্টা করব।

একাধিক আসনে লড়তে পারেন যারা

একাধিক আসনে লড়তে পারেন যারা

রাজনীতির নানামুখী হিসাব-নিকাশের কারণে আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনে একাধিক আসনে ...

আক্রান্ত হয়েও জানেন না অর্ধেক মানুষ

আক্রান্ত হয়েও জানেন না অর্ধেক মানুষ

দেশে ডায়াবেটিস আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলছে। নারী-পুরুষ-শিশু সব ...

ঋণখেলাপি হয়েও ব্যাংক পরিচালক

ঋণখেলাপি হয়েও ব্যাংক পরিচালক

ঢাকা ব্যাংকের পরিচালক এমএনএইচ বুলু ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের মিরপুর রোড ...

দণ্ড স্থগিত না হলে প্রার্থিতা বাতিল: ইসি

দণ্ড স্থগিত না হলে প্রার্থিতা বাতিল: ইসি

একাদশ সংসদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে দেওয়া নির্বাচন কমিশনের (ইসি) ...

২০ হাজার টাকায় শিক্ষক নিবন্ধন পাশের সনদ দেয় তারা

২০ হাজার টাকায় শিক্ষক নিবন্ধন পাশের সনদ দেয় তারা

বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষের (এনটিআরসিএ) ভুয়া ওয়েবসাইট খুলে ...

কলেজ শিক্ষকের ধর্ষণে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা!

কলেজ শিক্ষকের ধর্ষণে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা!

মাত্র ১০ বছরের মেয়েটি স্থানীয় একটি স্কুলে পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ে। অভিযোগ উঠেছে, ...

কর্নেল (অব.) জাফর ইমামের মনোনয়ন ফরম ছিনতাই!

কর্নেল (অব.) জাফর ইমামের মনোনয়ন ফরম ছিনতাই!

ফেনী-১ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে চাওয়া কর্নেল (অব.) জাফর ...

চোখ হারানো প্রত্যেকে পেলেন ৫ লাখ টাকা

চোখ হারানো প্রত্যেকে পেলেন ৫ লাখ টাকা

চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের ইম্প্যাক্ট মাসুদুল হক মেমোরিয়াল কমিউনিটি হেলথ সেন্টারে ...