রাজনীতি

খালেদা জিয়াকে আটকে রাখতে চায় সরকার: ফখরুল

প্রকাশ: ০৪ নভেম্বর ২০১৭     আপডেট: ০৪ নভেম্বর ২০১৭      

সমকাল প্রতিবেদক

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন,বর্তমান সরকার ক্ষমতার অপব্যবহার করে খালেদা জিয়ার মামলাগুলোর দ্রুত শুনানি করছে। 

তিনি বলেন, দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলাগুলো সাধারণত দেখা গেছে যে এক মাস-দুই মাস-তিন মাস পরে তারিখ পড়ে। কিন্তু সরকার ক্ষমতার অপব্যবহার করে প্রতি সপ্তাহে হাজিরার তারিখ দিয়ে দেশনেত্রীকে আটকে রাখতে চায়।

শনিবার সন্ধ্যায় সেগুন বাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি কার্যালয় মিলনায়তনে আফসার আহমদ স্মৃতি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান প্রয়াত আফসার আহমদ সিদ্দিকীর ১৬তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই প্রতিত্রিক্রয়া ব্যক্ত করেন।  

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের আহবায়ক বেগম জাহানারা সিদ্দিকী। সভা পরিচালনা করেন এনডিপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মঞ্জুর হোসেন ঈসা। 

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন, শামসুজ্জামাস দুদু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবদুস সালাম, শিক্ষা বিষয়ক সহ সম্পাদক হেলেন জেরিন খান প্রমুখ। 

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, বৃহস্পতিবার বিশেষ আদালতে দেশনেত্রী নিজেই আশঙ্কা করছেন নির্বাচন থেকে দুরে রাখার জন্যই তার বিরুদ্ধে নানা ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। তার নামে মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছে। 

এই অবস্থা থেকে উত্তরণে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা যারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি সবাইকে নিয়ে তাদেরকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জাতীয় ঐক্য সৃষ্টি করতে হবে।  

মির্জা ফখরুল বলেন,কে কোন দল করেন সেদিকে না তাকিয়ে দেশকে বাঁচানোর জন্য,গণতন্ত্রকে বাঁচানোর জন্য সকলের ঐক্যবদ্ধ হওয়া উচিত। কারণ আওয়ামী লীগের অপশক্তির বিরুদ্ধে জয়যুক্ত হতে হবে। 

তিনি বলেন, কক্সবাজার উখিয়ায় রোহিঙ্গাদের ত্রাণ দেয়ার যাত্রাপথে খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলা করেছে সরকারের সন্ত্রাসীরা। আর এখন সেই ঘটনায় উল্টো বিএনপির ৩২ জন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হয়েছে। অনেককে গ্রেফতারও করা হয়েছে। 

তিনি বলেন,সাংবাদিকসহ বিএনপি নেতাকর্মীদের গাড়িতে আক্রমণ করা হলো। স্বেচ্ছাসেবক দলের একজন মারাই গেছেন। ১৪ জন আহত হয়েছে,তিনজনকে গাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গেছে। অথচ এসব ঘটনার পর ক্ষমতাসীনরা অবলীলায় বলছে এটা বিএনপির অভ্যন্তরীণ কোন্দলে হয়েছে।

মির্জা ফখরুল বলেন,এই সরকার মিথ্যা কথা বলে জাতির সঙ্গে প্রতারণা করছে। সেই সরকারের ওপর কখনো বিশ্বাস রাখা যায় না,আস্থা রাখা যায় না। এজন্যই জনগণ এই সরকারের ওপর আস্থা হারিয়েছে। জনগণের সঙ্গে কোনো সম্পর্ক নেই সরকারের। 

ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য সরকার সব কিছুই গায়ের জোরে করছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

বিষয় : রাজনীতি মির্জা ফখরুল খালেদা জিয়া সরকার

পরবর্তী খবর পড়ুন : খুন হওয়ার শঙ্কায় লেবাননের প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ

আরও পড়ুন

যেভাবে দ্বিতীয় রাউন্ডে যেতে পারে আর্জেন্টিনা

যেভাবে দ্বিতীয় রাউন্ডে যেতে পারে আর্জেন্টিনা

এবারের বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার ‘সুপার ফ্লপ শো’ চলছেই। প্রথম ম্যাচে আইসল্যান্ডের ...

স্বরূপে ফিরুক ব্রাজিল

স্বরূপে ফিরুক ব্রাজিল

সোচি থেকে বুধবার রাত ১১টায় নেইমার-মার্সেলোরা যখন সেন্ট পিটার্সবার্গে পৌঁছান ...

আর্জেন্টিনার বিদায় ঘণ্টা কি বেজেই গেল?

আর্জেন্টিনার বিদায় ঘণ্টা কি বেজেই গেল?

গত বিশ্বকাপের রানার আপ দল। এবারের আসরেও ফেভারিটের তকমা নিয়ে ...

ব্যাংকে সুদহার কমানোর সিদ্ধান্ত তদারক করবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক

ব্যাংকে সুদহার কমানোর সিদ্ধান্ত তদারক করবে কেন্দ্রীয় ব্যাংক

ঋণ ও আমানতের সুদহার কমানোর সিদ্ধান্ত যেন ঘোষণাতেই সার না ...

মাজেদা রিকশা না চালালে পরিবার চলবে কীভাবে

মাজেদা রিকশা না চালালে পরিবার চলবে কীভাবে

১৪ বছর বয়সী মাজেদার অপরাধ- সে না খেয়ে থাকতে চায়নি। ...

ওরা আছে ভাগার তালে

ওরা আছে ভাগার তালে

রাশিয়ান পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শনিবার থেকে বুধবার পর্যন্ত ফিনল্যান্ড ...

বাঁশবাড়িয়া সৈকতে গোসলে নেমে নিখোঁজ ২ ভাই

বাঁশবাড়িয়া সৈকতে গোসলে নেমে নিখোঁজ ২ ভাই

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার বাঁশবাড়িয়া সৈকতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ হয়েছে ...

২৪ ঘণ্টার মধ্যে নৌকার জয়-পরাজয় নিশ্চিত হতে পারে: জাহাঙ্গীর

২৪ ঘণ্টার মধ্যে নৌকার জয়-পরাজয় নিশ্চিত হতে পারে: জাহাঙ্গীর

গাজীপুর মহানগরের প্রত্যেক ভোটারের কাছে গিয়ে গিয়ে বিনয়ের সঙ্গে নৌকা ...