রাজনীতি

সরকার ইচ্ছা করেই জিয়ার কবরে যেতে দেয়নি: ফখরুল

প্রকাশ: ০৭ নভেম্বর ২০১৭      

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

সরকার ইচ্ছাকৃতভাবেই ‘জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবসে’ শেরেবাংলা নগরে জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদনে যেতে দেয়নি বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, কমনওয়েথ পার্লামেন্টারি সম্মেলন (সিপিসি)এর অজুহাত দেখিয়ে সরকার ইচ্ছাকৃতভাবে জিয়াউর রহমানের কবরে শ্রদ্ধা নিবদন করতে যেতে দেয়নি। জিয়াউর রহমানের কবরের জায়গাটা বাদ দিলেও সরকার পারতো। কারণ ওই দিকটাতে সম্মেলনের জন্য খুব বেশি প্রয়োজন হয় না।

মঙ্গলবার দুপুরে নয়াপল্টনে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এ কথা বলেন।

 তিনি বলেন, এই সরকার সমস্ত গণতান্ত্রিক অধিকারগুলো কেড়ে নিচ্ছে। গায়ের জোরে সব কিছু করতে চায়। একাত্তর সালে স্বাধীনতা যুদ্ধ করে যে স্বাধীনতা অর্জন করেছিলাম, সেই স্বাধীনতাকে সুসংহত করার জন্যই ৭ নভেম্বর বাংলাদেশের মানুষ ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টা নিয়েছিল। এদিনে বহুদলীয় গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা পুনঃস্থাপিত হওয়ার সুযোগ হয়েছিল। এই কারণেই এই দিনটি মানুষ স্মরণ করছে। 

ফখরুল বলেন, প্রতি বছরই দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া দলের নেতাকর্মীদের নিয়ে জিয়ার কবরে শ্রদ্ধা  নিবেদন করেন, ফাতেহা পাঠ করেন। এবারই ব্যতিক্রম হলো। ইচ্ছাকৃতভাবে সরকার নেতাকর্মীদের সেই অধিকার থেকে করলো। সিপিসি সম্মেলন একটা অজুহাত।

তিনি বলেন, ১১ নভেম্বর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের কথা ঘোষণা করেছিলাম। সেটা বিভিন্ন কারণে একদিন পর ১২ নভেম্বর সমাবেশ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

ফখরুল আরও বলেন, ঢাকায় অংশ নেয়া সিপিসি সম্মেলনের সদস্য দেশগুলোকে বাংলাদেশে গণতন্ত্র না থাকার বিষয়টি বিষয়টি  অবহিত করা হয়েছে। জনসম্মুখে আমাদের কোনো বক্তব্য নেই। সরকার সমাবেশ করতে দিচ্ছে না। তবে বাংলাদেশের গণতন্ত্রের কী অবস্থা তা বিভিন্নভাবে তাদের জানানো হয়েছে।

তিনি বলেন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি যে সংসদ নির্বাচন হয়েছে ওই নির্বাচনে মানুষ ভোট দিতে যায়নি। বর্তমান সংসদ জনগনের নির্বাচিত সংসদ নয়। বিএনপিও এই সংসদকে বৈধ হিসাবে মনে করে না। তাই এই সংসদে যে আইনগুলো পাস করা হচ্ছে তার বৈধতা কতটুুক আছে তা ভবিষ্যত বলে দেবে।

সংবাদ সম্মেলনের অন্যদের মধ্যে ছিলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সদস্য আবুল খায়ের ভুঁইয়া, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খানি সোহেল, দলের কেন্দ্রীয় নেতা হাবিবুল ইসলাম হাবিব, মীর সরফত আলী সপু, আবদুস সালাম আজাদ, মুনির হোসেন,  সেলিমুজ্জামান সেলিম প্রমুখ।





আরও পড়ুন

‘দেবী’তে মুগ্ধ দর্শক

‘দেবী’তে মুগ্ধ দর্শক

প্রথমবার প্রয়াত বরেণ্য লেখক হুমায়ূন আহমেদের মিসির আলী উঠে এলেন ...

শিক্ষা ও দক্ষতা উন্নয়নে আরও বিনিয়োগ করতে হবে: রাষ্ট্রপতি

শিক্ষা ও দক্ষতা উন্নয়নে আরও বিনিয়োগ করতে হবে: রাষ্ট্রপতি

রাষ্ট্রপতি এম আবদুল হামিদ ভবিষ্যৎ চাহিদা মেটাতে মানবসম্পদ, শিক্ষা এবং ...

কক্সবাজারে ব্যারিস্টার মইনুলের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

কক্সবাজারে ব্যারিস্টার মইনুলের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

কক্সবাজারে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে।কক্সবাজার ...

মইনুলের গ্রেফতারে রাজনীতির সম্পর্ক নেই: নাসিম

মইনুলের গ্রেফতারে রাজনীতির সম্পর্ক নেই: নাসিম

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ ...

ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির দায়ে রাবির সাবেক শিক্ষার্থী কারাগারে

ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির দায়ে রাবির সাবেক শিক্ষার্থী কারাগারে

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের  স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি ...

টপ অর্ডারকে দায়িত্ব নিতে হবে: রাজপুত

টপ অর্ডারকে দায়িত্ব নিতে হবে: রাজপুত

জিম্বাবুয়ের গল্পটা বাংলাদেশের ঠিক উল্টো। বাংলাদেশ দলের এতোদনি ত্রাতা ছিলেন ...

শ্যামল কান্তি লাঞ্ছনা মামলায় সেলিম ওসমানকে অব্যাহতি

শ্যামল কান্তি লাঞ্ছনা মামলায় সেলিম ওসমানকে অব্যাহতি

নারায়ণগঞ্জে স্কুলশিক্ষক শ্যামল কান্তি ভক্তকে কান ধরে উঠবস ও লাঞ্ছনার ...

খাসোগির মৃতদেহ কোথায়, জানতে চান এরদোয়ান

খাসোগির মৃতদেহ কোথায়, জানতে চান এরদোয়ান

সাংবাদিক জামাল খাসোগিকে 'পরিকল্পিতভাবে' হত্যা করা হয়েছে অভিযোগ তুলে তার ...