রাজনীতি

জনগণ জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষক বিএনপিকে চায় না: কাদের

প্রকাশ: ১৪ মার্চ ২০১৮     আপডেট: ১৪ মার্চ ২০১৮      

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি

কর্মিসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের— সমকাল

জঙ্গিবাদের 'পৃষ্ঠপোষক' বিএনপিকে জনগণ আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বুধবার দুপুরে টাঙ্গাইল শহীদ স্মৃতি পৌর উদ্যানে জেলা আওয়ামী লীগের কর্মিসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, 'বাংলাদেশের জনগণ সাম্প্রদায়িকতা, জঙ্গিবাদের পৃষ্ঠপোষক, গণতন্ত্রবিরোধী সেই অশুভ শক্তি বিএনপিকে আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না। সেটা আগামী নির্বাচনে আবারও প্রমাণ হবে।'

বিএনপির প্রতি ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, 'তাদের কাজেকর্মে প্রমাণ হয়েছে তারা জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার পৃষ্ঠপোষক। মুক্তিযুদ্ধের মুখোশ পড়ে তারা নির্বাচন আসে। তারা মুক্তিযুদ্ধের আর্দশ লালন ও পালন করে না।'

মন্ত্রী বলেন, 'বিএনপি আজ দিশেহারা ও বেপরোয়া। গত নয় বছরে নয় মিনিটের জন্যও আন্দোলন করতে পারেনি। জনগণ তাদের নেতিবাচক রাজনীতির সাথে নেই। তাদের আন্দোলনের ডাকে জনগণ সারা দেয়নি। দিন যায়, মাস যায়, বছর যায়— দেখতে দেখতে নয় বছর। আন্দোলন হবে কোন বছর? বিএনপির আন্দোলনে মরা গাঙ্গে জোয়ার আসে না। বিএনপি হচ্ছে এখন বাংলাদেশ নালিশ পার্টি। ঘরে বসে প্রেস বিফিংয়ে মিথ্যাচারের ভাঙা রের্কড বাজায়।'

দুর্নীতির মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাজাপ্রাপ্তি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 'বিএনপির নেত্রী দুর্নীতির মামলায় দণ্ডিত হয়েছে। আর বিএনপি বলে— সরকার তাকে জেলে পাঠিয়েছে। এটা কি সরকারের আদেশ না আদালতের আদেশ? তাহলে তাদের আন্দোলন কাদের বিরুদ্ধে? আদালতের বিরুদ্ধে তারা আন্দোলনের ডাক দিয়েছে। এখন বিএনপি বলে— বিএনপিকে নাকি সরকার দেউলিয়া করে ফেলেছে। আমি বলবো— নেতিবাচক রাজনীতির জন্য বিএনপি দেউলিয়া হয়ে যাচ্ছে। আওয়ামী লীগের বিএনপিকে দেউলিয়া করতে হবে না। আত্মঘাতী, নেতিবাচক রাজনীতি করে বিএনপি জনবিচ্ছিন্ন হয়ে যাচ্ছে। আগুন দিয়ে যারা মানুষ পুড়িয়ে মারে তারা কি গণতন্ত্র বিশ্বাস করে? এরা ক্ষমতায় এলে এদের হাতে মানুষ কি নিরাপদ? এটা মুক্তিযুদ্ধের দেশ। তাই বিএনপির হাতে দেশ নিরাপদ নয়।'

ওবায়দুল কাদের বলেন, 'দেশ বাঁচাতে হলে আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে হবে। কর্মীরা হলো আওয়ামী লীগের প্রাণ। কর্মীরা বাঁচলে আওয়ামী লীগ বাঁচবে। দলের দুর্যোগের সময় এই কর্মীরাই দলকে বাঁচিয়ে রাখে।'

টাঙ্গাইল জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফজলুর রহমান খান ফারুকের সভাপতিত্বে কর্মিসভায় অন্যদের মধ্যে তথ্য প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক, যুগ্ম সম্পাদক ডা. দীপু মনি, শিক্ষা ও মানবসম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামছুর নাহার চাঁপা, কেন্দ্রীয় সদস্য মারুফা আক্তার পপি, ছানায়ার হোসেন এমপি, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জোয়াহেরুল ইসলাম জোয়াহের প্রমুখ বক্তব্য দেন।

সভায় জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সকল সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

বিষয় : সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের আওয়ামী লীগ কর্মিসভা টাঙ্গাইল

পরবর্তী খবর পড়ুন : মুক্তিযুদ্ধ এখনও শেষ হয়নি: ড. খলীকুজ্জামান

আরও পড়ুন

প্রত্যাশা নয়, ভালোর আশায় দ. কোরিয়া

প্রত্যাশা নয়, ভালোর আশায় দ. কোরিয়া

মহাদেশীয় কোটার কারণে বিশ্বকাপে এশিয়ার দল থাকে বটে। কিন্তু শিরোপার ...

'জায়ান্ট-কিলার' সুইডেনের সামনে দ. কোরিয়া

'জায়ান্ট-কিলার' সুইডেনের সামনে দ. কোরিয়া

রাশিয়া বিশ্বকাপে সব থেকেও 'কি যেন নেই নেই' ভাব, তার ...

ইব্রাহিমের ছবি মনে করিয়ে দেয় তরুণ সাইফফে

ইব্রাহিমের ছবি মনে করিয়ে দেয় তরুণ সাইফফে

বলিউড অভিনেতা সাইফ আলী খান ও কারিনা কাপুরের ছেলে তৈমুর ...

তাদের কাছে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নয়, ইস্যু গুরুত্বপূর্ণ: কাদের

তাদের কাছে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নয়, ইস্যু গুরুত্বপূর্ণ: কাদের

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়টি নিয়ে তার দলের নেতারা ...

মাগুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় বাবা-মেয়ে নিহত

মাগুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় বাবা-মেয়ে নিহত

মাগুরা-যশোর সড়কের মাগুরার শালিখা উপজেলার কৃষ্ণপুর এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় বাবা-মেয়ে ...

ছুটি শেষেও সচিবালয়ে ঈদের আমেজ

ছুটি শেষেও সচিবালয়ে ঈদের আমেজ

তিন দিন সরকারি ছুটির পর আজ সোমবার খুলেছে সব সরকারি ...

ব্রাজিলের অভিযোগ উড়িয়ে দিল সুইজারল্যান্ড

ব্রাজিলের অভিযোগ উড়িয়ে দিল সুইজারল্যান্ড

শিরোপায় চোখ ব্রাজিলের। তবে শুরুটা সেভাবে হলো না। সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে ...

নাইজেরিয়ায় আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত ৩১

নাইজেরিয়ায় আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহত ৩১

নাইজেরিয়ার উত্তরপূর্বাঞ্চলে আত্মঘাতী বোমা হামলায় অন্তত ৩১ জন নিহত হয়েছে।স্থানীয় ...