রাজনীতি

ঐক্যবদ্ধ চাপে অবাধ নির্বাচনে বাধ্য করা হবে: ড. কামাল

প্রকাশ: ০৪ আগস্ট ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

ঐক্যবদ্ধ চাপ সৃষ্টি করে সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে বাধ্য করা হবে। নির্বাচন কমিশনসহ নির্বাচন অনুষ্ঠানের দায়িত্বে থাকা সবাইকে অবশ্যই নিরপেক্ষ থাকতে হবে।

শনিবার রাজধানীর আরামবাগে ইডেন কমপ্লেক্সে গণফোরামের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে ড. কামাল হোসেন এ কথা বলেন। দলের বর্ধিত সভা শেষে এদিন ওই সংবাদ সম্মেলন করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন দলের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, সভাপতি পরিষদের সদস্য অ্যাডভোকেট খলিকুজ্জামান, অ্যাডভোকেট জগলুল হায়দার, শান্তিপদ ঘোষ, জামাল উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ই ম শফিকুল্লাহ প্রমুখ। 

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে 'ষোলআনা সমর্থন' জানিয়ে ড. কামাল বলেন, পঞ্চাশের দশকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা পাকিস্তানের বিরুদ্ধে 'নো' 'নো' বলে প্রতিবাদ জানিয়েছিল। আজ বিদ্যালয়ের ছোট ছোট বাচ্চার মুখে সেই প্রতিবাদ উচ্চারিত হচ্ছে।

ড. কামাল বলেন, এ সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন হবে না। সরকারের চরিত্র এরই মধ্যে মানুষের কাছে উন্মোচিত হয়েছে। অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের বিষয়টি আইনে থাকলেও যারা নির্বাচন অনুষ্ঠান করবেন, তাদের সদিচ্ছার অভাব রয়েছে। নির্বাচন কমিশন বেইমান না হলে অবশ্যই নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, একটি সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে শিগগির ঐক্যের ডাক দেওয়া হবে। ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠানে বাধ্য করা হবে। নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানে সরকারের প্রতি মানুষের যে অবিশ্বাস রয়েছে, এ সরকারকে তা থেকে মুক্ত হতে হবে।

ড. কামাল বলেন, ২০০৮ সালে নির্বাচন করার জন্য সাবেক রাষ্ট্রপতি ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদকে সরাতে হয়েছিল। এ জন্য তিনি নিজে রাষ্ট্রদ্রোহী মামলার আসামিও হয়েছিলেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগ অবাধ নির্বাচনে ভয় পায় না। বর্তমান আওয়ামী লীগ ভয় পায়। তাই আশঙ্কা করা হচ্ছে, আসন্ন নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠু হবে না। বর্তমান সরকারের কার্যক্রম দেখে বঙ্গবন্ধুর 'একজন ক্ষুদ্র কর্মী' হিসেবে তার 'কান্না পায়' বলেও উল্লেখ করেন ড. কামাল হোসেন। 

আরও পড়ুন

ভারতের শ্বাস রুদ্ধ করে ’টাই’ আফগানদের

ভারতের শ্বাস রুদ্ধ করে ’টাই’ আফগানদের

ভারত 'বধ' করেই ফেলেছিল আফগানিস্তান। কিন্তু ম্যাচটা শেষ পর্যন্ত টাই ...

পল্টন-সোহরাওয়ার্দী কোনোটাই পাচ্ছে না বিএনপি

পল্টন-সোহরাওয়ার্দী কোনোটাই পাচ্ছে না বিএনপি

আগামীকাল বৃহস্পতিবার প্রথমে রাজধানীতে জনসভা করার ঘোষণা দিয়েছিল বিএনপি। ওইদিন ...

শীর্ষ চার রুশ ব্লগার বাংলাদেশে

শীর্ষ চার রুশ ব্লগার বাংলাদেশে

বাংলাদেশের পর্যটন সম্ভাবনাকে রাশিয়ার জনগণের সামনে তুলে ধরা এবং দ্বিপক্ষীয় ...

ভূমিহীনের জন্য বরাদ্দ জমিতে বড়লোকের পুকুর

ভূমিহীনের জন্য বরাদ্দ জমিতে বড়লোকের পুকুর

মুক্ত জলাশয়ে মাছ ধরে তা বিক্রি করে সংসার চলতো ভূমিহীন ...

জাতীয় ঐক্যকে চাপে রাখবে আ'লীগ ও ১৪ দলীয় জোট

জাতীয় ঐক্যকে চাপে রাখবে আ'লীগ ও ১৪ দলীয় জোট

শুরুতে স্বাগত জানালেও জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া গঠন এবং সরকারবিরোধীদের নিয়ে ...

জিততেই হবে আজ

জিততেই হবে আজ

অতীতের ভুল তারা কখনোই স্বীকার করে না। মানতে চায় না ...

প্রশাসনে নির্বাচনী রদবদল

প্রশাসনে নির্বাচনী রদবদল

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রশাসন সাজানোর উদ্যোগ নিয়েছে ...

বিএনপির সমাবেশের পর ঐক্যের লিয়াজো কমিটি

বিএনপির সমাবেশের পর ঐক্যের লিয়াজো কমিটি

আগামী শনিবার বিএনপির সমাবেশের পর 'বৃহত্তর জাতীয় ঐক্যের' লিয়াজো কমিটি ...