রাজনীতি

কাঠগড়ায় সিইসি

প্রকাশ: ১০ আগস্ট ২০১৮       প্রিন্ট সংস্করণ     

মসিউর রহমান খান

'জাতীয় নির্বাচনে অনিয়ম হবে না, এমন নিশ্চয়তা দেওয়ার সুযোগ নেই'- প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে. এম. নুরুল হুদার দেওয়া এমন বক্তব্যের সঙ্গে একমত নন নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অন্য সদস্যরা। তারা বলেছেন, এটা কোনোভাবেই কমিশনের বক্তব্য নয়। সম্পূর্ণরূপে সিইসির ব্যক্তিগত মন্তব্য।

অন্যদিকে সাং-বিধানিক পদে থেকে সিইসি এমন মন্তব্য দেওয়ায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন রাজনৈতিক নেতারাও। নির্বাচন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এটা কোনোভাবেই ব্যক্তিগত মন্তব্য হতে পারে না। কারণ তিনি এ মন্তব্য করেছেন সিইসির মতো সাংবিধানিক পদে থেকে।

গত মঙ্গলবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন প্রশিক্ষণ (ইটিআই) ভবনে এক কর্মশালার উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সিইসি বলেছিলেন, জাতীয় নির্বাচনে কোথাও কোনো অনিয়ম হবে না- এমন নিশ্চয়তা দেওয়ার সুযোগ তার নেই। এর আগে 'প্রতিবন্ধী ভোটারদের নির্বাচন প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা' শীর্ষক কর্মশালার উদ্বোধন করেন তিনি।

সিইসির এই মন্তব্য নিয়ে গত দু'দিন ধরে দেশের রাজনৈতিক মহল ও নাগরিক সমাজের মধ্যে বেশ চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে। এর আগে রাজনৈতিক দলের সঙ্গে ইসির ধারাবাহিক সংলাপ চলাকালে সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানকে 'বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রতিষ্ঠাতা' হিসেবে আখ্যায়িত করে রাজনৈতিক অঙ্গনে ঝড় তোলেন সিইসি। তার এই বক্তব্যের জের ধরে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী সংলাপ বর্জন করেন এবং সিইসি কে. এম. নুরুল হুদার পদত্যাগ দাবি করেন।

নুরুল হুদার নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব নেওয়ার পর গত দেড় বছরে একাধিকবার নানা ঘটনায় নিজেদের মধ্যে বিতর্কে জড়িয়েছেন। তবে এসব বিতর্ক তেমন একটা প্রকাশ্য হয়নি। এর আগে সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচারে এমপিদের অংশগ্রহণের সুযোগ দেওয়া নিয়ে নিজেদের মধ্যে বিতর্কে জড়ায় ইসি। সিইসিসহ চার কমিশনার এমপিদের প্রচারে নামার সুযোগের পক্ষে সিদ্ধান্ত নিলেও কমিশনার মাহবুব তালুকদার এমইউ নোট দিয়ে কমিশনের এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে অবস্থান নেন। শেষ পর্যন্ত আইন মন্ত্রণালয়ের আপত্তিতে বিষয়টি আটকে যায়। সদ্যসমাপ্ত পাঁচ সিটি নির্বাচনে বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ সম্পর্কেও কমিশন সদস্যদের মধ্যে বেশ কিছুদিন ধরে টানাপড়েন চলছে বলে ইসি সূত্রে জানা গেছে। বিশেষ করে গত ৩০ জুলাই অনুষ্ঠিত বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে তাদের মধ্যে মতবিরোধ চরমে ওঠে।

ইসি-সংশ্নিষ্টরা জানিয়েছেন, আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনের তেমন দেরি নেই। এরই মধ্যে নির্বাচনের বিভিন্ন প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে। ডিসেম্বরের শেষদিকে অথবা জানুয়ারির প্রথমদিকে সংসদ নির্বাচন হবে- এমন ঘোষণাও দিয়েছেন সিইসি। নিয়ম অনুযায়ী ২৮ জানুয়ারির মধ্যে নির্বাচন করার আইনি বাধ্যবাধকতা রয়েছে। এমন প্রেক্ষাপটে সিইসির এই মন্তব্য নিয়ে ঘরে-বাইরে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। খোদ কমিশন সদস্যরাই সিইসির এই বক্তব্যের দায় নিতে নারাজ। তারা বলেছেন, কমিশনের সঙ্গে কোনো আলোচনা ছাড়াই সিইসি এ মন্তব্য করেছেন। তবে সমকালের পক্ষ থেকে সিইসি কে. এম. নুরুল হুদার সঙ্গে এ বিষয়ে তার বক্তব্য জানার চেষ্টা করা হলে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

এদিকে সিইসিকে আরও সংযত হয়ে কথাবার্তা বলার পরামর্শ দিয়েছেন সরকারি দল আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, 'বাংলাদেশের বাস্তবতায় সিইসি হয়তো মনে করেছেন- এটাই সত্যি। কিন্তু তার বক্তব্য আরও সংযত হওয়া দরকার। তিনি একটি রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানের মূল দায়িত্বে রয়েছেন।' ভবিষ্যতে সিইসি এ ধরনের বক্তব্য দেবেন না- এমন আশাবাদও ব্যক্ত করেন সেতুমন্ত্রী। গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকার কেরানীগঞ্জের ইকুরিয়ায় বিআরটিএর পরিবহন তদারকির কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

সংসদের বাইরে অবস্থানকারী অন্যতম দল বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সমকালকে বলেন, 'সিইসি দেশের নির্বাচনী বাস্তব অবস্থা তুলে ধরেছেন। বর্তমান কমিশন কোনো প্রক্রিয়া ছাড়াই যেভাবে দ্রুত দায়িত্ব পেয়েছেন, তাদের যে শর্তে কমিশনের জন্য মনোনীত করা হয়েছে, তাতে এর থেকে ভালো নির্বাচন তারা করতেও পারবেন না। সেই সত্য কথাটাই তিনি বলেছেন। তার এ বক্তব্যে দেশের বর্তমান চিত্র ফুটে উঠেছে।'

জাতীয় পার্টির মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমীন হাওলাদার এমপি সমকালকে বলেন, 'বাস্তবতা খুবই নির্মম। তার বক্তব্য বাস্তব অবস্থার প্রতিচ্ছবি।' তবে এই পদে থেকে সিইসির এমন মন্তব্য উচিত কি-না, তা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে বলে উল্লেখ করেন রুহুল আমীন হাওলাদার।

গতকাল বৃহস্পতিবার নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেন, 'সিইসির এই বক্তব্যে যারা ভোটে অনিয়ম করতে চায় তারা উৎসাহী হবে।' তিনি জানান, সিইসি একটি স্পর্শকাতর বিষয়ের অবতারণা করেছেন। তিনি (সিইসি) বলেছেন, জাতীয় নির্বাচনে অনিয়ম হবে না, এমন নিশ্চয়তা নেই। তিনি ঠিক জানেন না, সিইসি কেন, কোন প্রেক্ষাপটে কথাটা বলেছেন। এটা তার ব্যক্তিগত অভিমত হতে পারে। তবে তিনি সিইসির এই বক্তব্যের সঙ্গে মোটেই একমত নন। আগামী জাতীয় নির্বাচনে যারা অনিয়ম করতে চায়, তারা এ ধরনের কথায় উৎসাহিত হতে পারে বলে তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেন।

সিইসির এই বক্তব্যকে কমিশনের বক্তব্য হিসেবে গ্রহণের সুযোগ নেই- এমন মন্তব্য করে কমিশনার রফিকুল ইসলাম সমকালকে বলেন, 'সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য কমিশন সদস্যরা সাংবিধানিকভাবে শপথ গ্রহণ করে দায়িত্ব নেন। নির্বাচনকে গ্রহণযোগ্য করতে তাদের পক্ষ থেকে সব পদক্ষেপই নেওয়া হয়। তার পরও ভোটে কোনো অঘটন ঘটলে ব্যবস্থা নেওয়া হয় বা ভবিষ্যতেও হবে।' তিনি বলেন, 'সিইসির এই বক্তব্য কোনোভাবেই কমিশনের বলে মনে করা ঠিক হবে না। এটা সম্পূর্ণভাবে তার ব্যক্তিগত মত।'

একই ধরনের মন্তব্য করেছেন কমিশনের আরেক সদস্য ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদৎ হোসেন চৌধুরী। তিনি বলেন, 'প্রতিবন্ধীদের ভোটার তালিকায় নিবন্ধন সম্পর্কিত এক অনুষ্ঠানে সিইসি এমন মন্তব্য করেছেন। সেখানে অন্য কোনো কমিশনার ছিলেন না। এ ধরনের কোনো বিষয়ে কমিশন সভায় আলোচনা হয়নি। তার ব্যক্তিগত এই মন্তব্যকে কমিশনের বক্তব্য হিসেবে আমলে নেওয়ার কোনো সুযোগ নেই।'

সিইসির এই মন্তব্যের বিষয়ে আরেক কমিশনার কবিতা খানম বলেন, স্বচ্ছ ও সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজনে কমিশন সদস্যরা শপথ নিয়েছেন। নির্বাচনে অনিয়ম হওয়ার সুযোগ নেই। সিইসির বক্তব্য কোনোভাবেই সমর্থনযোগ্য নয়। তিনি হয়তো ব্যক্তিগত মত দিয়েছেন। এ ধরনের বক্তব্যের বিষয়ে কমিশনে কোনো আলোচনা হয়নি।

এদিকে সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজন সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার সমকালের সঙ্গে আলাপকালে বলেন, 'সদ্য সমাপ্ত পাঁচ সিটিতে তারা (ইসি) যে মানের নির্বাচন করেছেন, সেটাকেই যদি জাতীয় নির্বাচনের মানদণ্ড নির্ধারণ করে থাকেন, তাহলে জাতির জন্য এটি অশনিসংকেত।' সিইসির এই বক্তব্যকে তিনি কোনোভাবেই ব্যক্তিগত মন্তব্য হিসেবে গ্রহণ করতে রাজি নন। কারণ সাংবিধানিক পদে থেকে ব্যক্তিগত মন্তব্যের সুযোগ নেই। তিনি বলেন, সিইসিও এই বক্তব্য দেওয়ার সময় বলেননি যে, এটা তার ব্যক্তিগত মত।

পুলিশ জানে না খুনি কারা

পুলিশ জানে না খুনি কারা

রাজধানীর উপকণ্ঠ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলায় তিন যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধারের ...

আস্থার প্রতিদান দিলেন ইমরুল-সাইফ

আস্থার প্রতিদান দিলেন ইমরুল-সাইফ

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করা ইমরুল কায়েস দলের অটোমেটিক চয়েস ...

বাংলাদেশেই চিরশায়িত বাংলার অকৃত্রিম বন্ধু

বাংলাদেশেই চিরশায়িত বাংলার অকৃত্রিম বন্ধু

ফাদার মারিনো রিগনের নিজ হাতে লাগানো 'সোনা ঝুড়ি' গাছটি ফুল ...

এবার সাদা ইয়াবা

এবার সাদা ইয়াবা

এবার সাদা রঙের ইয়াবা উদ্ধার হলো রাজধানীর রামপুরার উলন রোড ...

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে ইসির সাক্ষাৎ ১ নভেম্বর

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে ইসির সাক্ষাৎ ১ নভেম্বর

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রচারে জীবন্ত কোনো প্রাণী ব্যবহার করা ...

সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আ' লীগ ১০ আসনও পাবে না: কাদের সিদ্দিকী

সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আ' লীগ ১০ আসনও পাবে না: কাদের সিদ্দিকী

বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আওয়ামী লীগ ১০টির ...

চার্জশিটের আগে গ্রেফতারে সরকারের অনুমতি লাগবে

চার্জশিটের আগে গ্রেফতারে সরকারের অনুমতি লাগবে

আদালতে চার্জশিট গ্রহণের আগে সরকারি কর্মচারিদের গ্রেফতারে অনুমতি নিতে হবে-এমন ...

রণবীর-দীপিকার বিয়ের তারিখ চূড়ান্ত

রণবীর-দীপিকার বিয়ের তারিখ চূড়ান্ত

সকল জল্পনার অবসান ঘটিয়ে শিগগিরই বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন বলিউডের দুই ...