রাজনীতি

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা কারা কর্তৃপক্ষের বিষয়: তোফায়েল

প্রকাশ: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮     আপডেট: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ- ফাইল ছবি

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে, কিন্তু তিনি সে প্রস্তাব গ্রহণ করেননি। বিএনপির দাবি বেসরকারি হাসপাতালে তার চিকিৎসা দিতে হবে। তাকে অন্য কোনো হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হবে কি না সেটা কারা কর্তৃপক্ষের বিষয়। 

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়ার বিচার হচ্ছে আদালতে, এখানে সরকারের কিছু করার নেই। 

রোববার রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে এক সেমিনার শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তোফায়েল আহমেদ। কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনের ষষ্ঠ জাতীয় কনভেনশন উপলক্ষে এ সেমিনারের আয়োজন করা হয়। 

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আলী আকবরের সভাপতিত্বে সেমিনারে তিনটি প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ড. এসপি গুপ্ত, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. সাইফুদ্দন শাহ এবং ড. কাটিনকো ডি বালাগ। সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন সংসদ সদস্য এ এফ এম বাহাউদ্দিন নাসিম। 

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, তিনি যখন কুমিল্লা জেলে বন্দি ছিলেন, তার চিকিৎসাও বঙ্গবন্ধু মেডিকেল হাসপাতালে হয়েছে। এর চেয়ে ভালো হাসপাতাল তো দেশে নেই। এখানে সব বড় বড় ডাক্তার আছেন। দেশের বড় বড় সব নেতাদের চিকিৎসা এখানে হয়েছে। 

নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারে খালেদা জিয়ার বিচার নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তোফায়েল আহমেদ বলেন, খালেদা জিয়ার অসুস্থতার কথা বিবেচনা করে কারাগারে বিচারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এ কারাগারে কর্নেল তাহেরসহ বড় বড় রাজনৈতিক নেতাদের বিচার হয়েছে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, নির্বাচনের আগে বিএনপি গোলযোগ সৃষ্টি করতে চায়। এ সুযোগ তারা পাবে না। ঘোষিত তারিখ অনুযায়ী নির্ধারিত সময়ে বর্তমান সরকারের অধীনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বিএনপির উচিত নির্বাচনের প্রস্তুতি নেওয়া। দলটি নির্বাচন করতে চায় না। গোলমাল বাধাতে চায়। কিন্তু তাদের সামনে কোনো ইসস্যু নেই, তাই খালেদা জিয়ার বিচার ও চিকিৎসাকে কেন্দ্র করে ইস্যু তৈরির চেষ্টা করছে।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ খাদ্য উৎপাদনে অনেক ভালো করেছে। রপ্তানি আগের চেয়ে অনেক বেড়েছে। রপ্তানি আয় এখন ৩৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। বাংলাদেশ মৎস্য রপ্তানিতে বিশ্বে চতুর্থ এবং সবজি রপ্তানিতে তৃতীয়। তিনি বলেন, দেশের কৃষকদের স্বার্থ রক্ষায় কৃষি পণ্যের উপযুক্ত মূল্য নিশ্চিত করতে আবারো ২৮ ভাগ আমদানি শুল্ক আরোপ করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

সাগরিকায় আজ সিরিজ জয়ের ম্যাচ

সাগরিকায় আজ সিরিজ জয়ের ম্যাচ

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সর্বশেষ ওয়ানডে অনুষ্ঠিত হয়েছিল দুই বছর ...

নির্বাচন বানচালের জন্যই ৭ দফা ও সংলাপের দাবি

নির্বাচন বানচালের জন্যই ৭ দফা ও সংলাপের দাবি

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ...

৪১৭ জনের বিরুদ্ধে দুদক চার্জশিট দিচ্ছে

৪১৭ জনের বিরুদ্ধে দুদক চার্জশিট দিচ্ছে

আগ্নেয়াস্ত্রের ভুয়া লাইসেন্স দেওয়া-নেওয়ার অভিযোগে ৪১৭ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দিচ্ছে ...

তফসিলের আগেই সংলাপে বসার আহ্বান জানাবে ঐক্যফ্রন্ট

তফসিলের আগেই সংলাপে বসার আহ্বান জানাবে ঐক্যফ্রন্ট

অবশেষে আজ বুধবার সিলেটে জনসভা করছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। একাদশ জাতীয় ...

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর দিকেই যত অভিযোগ

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর দিকেই যত অভিযোগ

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে মহাসড়কের পাশ থেকে চার যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধারের ...

অতিথি পাখিতে এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জার আশঙ্কা

অতিথি পাখিতে এভিয়ান ইনফ্লুয়েঞ্জার আশঙ্কা

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেছেন, ...

এক মঞ্চে রংপুরের ১৬২ রাজনৈতিক নেতা

এক মঞ্চে রংপুরের ১৬২ রাজনৈতিক নেতা

একই মঞ্চে শান্তিপূর্ণ ও অহিংস নির্বাচনের শপথ নিয়েছেন রংপুর বিভাগের ...

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান, ফার্মাসিউটিক্যালস সিলগালা

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান, ফার্মাসিউটিক্যালস সিলগালা

সাভারের নবীনগর এলাকার মির্জানগরে অবস্থিত গণস্বাস্থ্য সমাজ ভিত্তিক মেডিকেল কলেজ ...