মনে মনে

১২ আগস্ট ২০১৮

বন্ধু তুমি, বন্ধু আমার

বন্ধুত্ব প্রকৃতির সর্বশ্রেষ্ঠ অলিখিত একটা সম্পর্কের নাম। এই সম্পর্কটা জীবনের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে থাকে। বন্ধুত্ব টিকিয়ে রাখতে হলে এর যত্ন নিতে হয়। কখনও-সখনও হাসিমুখে নিজের ইচ্ছেটাও লুকিয়ে রাখতে হয়। ত্যাগ করতে শিখতে হয় বন্ধুর জন্য। বন্ধুত্ব টিকিয়ে রাখা যতটা কষ্টসাধ্য এর ফল ততটাই মিষ্টি। এই বন্ধুত্বের শিকড় হচ্ছে বিশ্বাস। বন্ধুবিহীন জীবন অবিশ্বাস্য ও অপরিপূর্ণ। জীবনে চলার পথে অনেকের সঙ্গে বন্ধুত্ব হয় কিন্তু সময় ও বাস্তবতার পরিপ্রেক্ষিতে সবার সঙ্গে বন্ধুত্ব টিকিয়ে রাখা সম্ভব হয়ে ওঠে না। এমনিভাবে প্রয়োজনের কারণে কিছু মানুষ দূরে চলে গেলেও সবাইকে আবার ভোলা যায় না। যদিও স্থান এবং কালভেদে আবার কারও সঙ্গে গড়ে ওঠে নতুন বন্ধুত্ব। এভাবে জীবনে অনেকে বন্ধু হয় বটে কিন্তু প্রকৃত বন্ধু খুব কমই জোটে। অনেকটা রবিঠাকুরের ছুটি গল্পের ফটিকের মতো বলা যায়। লেখাপড়ার জন্য খুব ছোটবেলায়ই বাড়ি ছেড়েছিলাম। ওখানে পূর্বপরিচিত কেউ ছিল না আমার। প্রথম দিনগুলোতে নিঃসঙ্গতাই যেন আমার সঙ্গী ছিল। তখন আমার শৈশবের স্মৃতিগুলো মনে হলে ভেতরটা খুব করে পোড়াত। মাঝে মধ্যে গভীর রাতে ঘুম ভেঙে গেলে গাঁয়ের দলছুট ছেলেদের কথা মনে করে খুব কান্না করতাম। আমার কাছের সহপাঠীরাই তখন আমাকে সান্ত্বনা দিত। আদর মেখে কত করে বোঝাত! খুব শিগগির ওদের অতি আপন হয়ে গিয়েছিলাম আমি। ওই দিনগুলোতে ওরা আমাকে সান্ত্বনা, সঙ্গ না দিলে হয়তো আজ এই পর্যন্ত আসা হতো না। তাই আজও স্কুলজীবনের সেই বন্ধুদের বড্ড বেশি মিস করি।

সিয়াম বিন আহমদ, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া

ঝড়-বৃষ্টির জীবন

আমার জীবনের প্রথম তুমি এসেছিলে, তোমার আগে আমাকে কেউ এভাবে ভালোবাসেনি। তোমাকেও আমি আমার জীবনের চেয়ে বেশি ভালোবাসি। তোমার জন্য আমার জীবনের সবকিছু বিসর্জন দিয়েছি। তোমাকে অনেক যত্ন করে রেখেছি, যাতে কোনো বিড়ম্বনা তোমার জীবনে না আসে। যখন তুমি আমার আপনজন হয়ে আমাকে ভালোবাসতে শুরু করলে তখন আমি পণ করেছি, আমার জীবনের একমাত্র তুমি। তুমি ছাড়া আমার জীবনে কাউকে কখনও কল্পনা করি না। তোমার কাজকে আমার কাজ মনে করি। তুমি আমার আছ, আমার থাকবে- এটাই প্রত্যাশা। কলেজ জীবনে তোমার জন্য আমি অনেক পরিশ্রম করেছিলাম। তোমার পড়ালেখা শেষের পথে। তুমি বল তোমার জীবনে যত পরীক্ষা দিয়েছ, কোন পরীক্ষাটা তুমি একা দিয়েছ? সব পরীক্ষায় তোমার সঙ্গে গিয়েছিলাম, যাতে তোমার কোনো সমস্যা না হয়। আমি জানি, যতই ঝড় আসুক, অটুট থাকবে এ প্রেমের বন্ধন। জানি তুমি, আমাকে অনেক ভালোবাস, তুমি অন্য মেয়েদের মতো না। তুমিও আমাকে গ্রহণ করেছ তোমার আপনজন মনে করে।

মুকুল, সাভার

অসম্ভব, শব্দটি আছে...

আমি অনেক দিন আগে তোমাকে হারিয়ে ফেলেছি। কিন্তু আজও তোমার জন্য আমার মন কাঁদে। তুমি এখন কেমন আছ আমি জানি না। মনটা শুধু একবার তোমাকে দেখতে চায়। হয়তো তুমি ইচ্ছা করেই আমার থেকে দূরে থাকতে চাইছ, কিন্তু কেন, আমি জানি না। সেই বৃষ্টির দিনে তোমার সঙ্গে আমার দেখা হয়েছিল। সেদিন সবকিছু সারা দিন আকূল নৃত্য নেচেছিল, আমি সারা দিন কারও জন্য অপেক্ষা করে ছিলাম। মনে হচ্ছিল কেউ একজন আমার কাছে আসছে, খুব অসম্ভব দূর থেকে, শেষ পর্যন্ত তুমি এসেছিলে আমার কাছে। আমি আজও বৃষ্টির দিনে তোমার অপেক্ষা করি। তুমি যদি চাও সারা জীবন আমি তোমার প্রতীক্ষায় কাটিয়ে দেব। কিন্তু তুমি কি কোনো দিন আসবে না? নাকি জীবন তোমার কাছ থেকে অসম্ভব শব্দটি চিরস্থায়ী করে দিয়েছে। জীবন জীবনের মতো করে কাটাতে হয়। অযথা জটিলতায় জড়ানো উচিত নয়। অসম্ভব শব্দ দিয়ে জড়িয়ে ফেললো না জীবনকে।

কাজল, বরিশাল

© সমকাল 2005 - 2018

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫, ৮৮৭০১৯৫, ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১, ৮৮৭৭০১৯৬, বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০ । ইমেইল: info@samakal.com