হিয়ার মাঝারে...

১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

দীপান্বিতা ইতি

গল্পটা যুদ্ধের, গল্পটা দেশপ্রেমের, গল্পটা ইতিহাস জয় করা এক পল্টনের। ১৯৬৭ সালে সিকিম সীমান্তে চীনের সঙ্গে ভারতের আর্মিদের রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের ইতিহাস নিয়েই নির্মিত 'পল্টন'। ১৩ বছরের বিরতি শেষে 'পল্টন' নির্মাণের মাধ্যমে আবারও পরিচালনায় ফিরলেন বর্ষীয়ান নির্মাতা এবং প্রযোজক জে পি দত্ত। 'বর্ডার', 'রিফিউজি', 'এলওসি কারগিল' ছবির এই জাতীয় পুরস্কারজয়ী নির্মাতাকে বলা হয় ইতিহাসভিত্তিক যুদ্ধের পটভূমিতে নির্মিত দেশপ্রেমের চলচ্চিত্রের নিপুণ কারিগর। তাই দেশাত্মবোধ, ত্যাগ আর সাহসিকতার অনন্য নজির হবে 'পল্টন', তা মুক্তির আগেই চোখ বন্ধ করে বলা যায়।

৭ সেপ্টেম্বর মুক্তি পাচ্ছে 'পল্টন'। জে পি দত্তের অন্যান্য ছবির মতোই এই ছবিটিও তারকাবহুল। জ্যাকি শ্রফ, অর্জুন রামপাল, সনু সৌদ, গুরুমিত চৌধুরী, ঈশা গুপ্তা, সোনাল চৌহানের মতো তারকাদের দেখা যাবে বিভিন্ন চরিত্রে। অবশ্য মহরতের সময় ঘোষণা করা হয়েছিল, অন্যতম প্রধান চরিত্রে অভিনয় করবেন অভিষেক বচ্চন। কিন্তু শুটিং চলাকালীন জানা যায়, 'পল্টন' থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন জুনিয়র বচ্চন। নিজের সিদ্ধান্তকে 'বিধ্বংসী' আখ্যা দিয়ে সংবাদমাধ্যমে বলেন, ব্যক্তিগত কারণে জে পি দত্তের এই ছবির অংশ হতে পারছেন না তিনি। প্রসঙ্গত জে পি দত্তের 'রিফিউজি' ছবির মাধ্যমেই বলিউডি পা রাখেন অভিষেক বচ্চন। এরপর 'এলওসি কারগিল' ও 'উমরাও জান' ছবিতেও দেখা যায় এই নির্মাতা-অভিনেতা জুটিকে। অভিষেক তাকে মেন্টর ও পরিবারের অংশ দাবি করলেও এমন সিদ্ধান্তে ক্ষেপেছেন জে পি দত্ত। সাংবাদিকের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, 'এই প্রশ্নটা বচ্চনদের গিয়ে করুন। তখন কী হয়েছিল এবং কেন অভিষেক বেরিয়ে গেলেন, সেই প্রশ্নটা বচ্চনরাই ভালো দিতে পারবেন'। অবশ্য উড়ো খবরে শোনা যায়, পর্দায় তার উপস্থিতি কম বলে লাদাখে শুটিং ছেড়ে চলে আসেন অভিষেক।

ট্রেলর মুক্তির পর সন্তুষ্ট সমালোচক মহলের দাবি, জে পি দত্তের আরেকটি সিগনেচার সিনেমা মুক্তি পেতে যাচ্ছে। ৩ মিনিট ১০ সেকেন্ডের এই ট্রেলরে উঠে এসেছে ইতিহাসের এক ঝলক। ১৯৬২ সালের যুদ্ধে চীনের কাছে হেরে যাওয়ার পর ১৯৬৭ সালের ১১ সেপ্টেম্বর ফের শুরু হয় যুদ্ধ। সিকিমের নাথুলায় হামলা চালায় চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মি।

প্রায় ৪ দিন ধরে চলে ওই যুদ্ধ। এরপর ১৯৬৭ সালের অক্টোবর মাসে ফের সিকিমের চো লা-তে ফের হামলা চালায় চীনা সেনা। কিন্তু সেই হামলাও বেশিদিন স্থায়ী হয়নি। সিকিমের নাথুলা দখল করতে চীন কীভাবে পরিকল্পনা করে এগিয়ে আসে ভারতীয় সীমান্তের কাছে, সেই ছবিই সিনেমার ট্রেলরের পরতে পরতে উঠে এসেছে।

জাভেদ আখতারের লেখা এবং অনু মালিকের সুর ও সঙ্গীতায়োজনে 'পল্টন' ছবির গানগুলো এক ঝাঁক শিল্পীর সঙ্গে গেয়েছন সনু নিগম। ছবির টাইটেল ট্র্যাকের গানের মিউজিক ধার করা হয়েছে ১৯৫৭ সালের হলিউড ক্লাসিক 'দ্য ব্রিজ অন দ্য রিভার কাওয়াই' থেকে। 'পল্টন' মুক্তির দিনে মুক্তি পাচ্ছে মনোজ বাজপেয়ী অভিনীত 'গালি গুলেইয়া' এবং ইমতিয়াজ আলী ও একতা কাপুর প্রযোজতি 'লায়লা মজনু'। এখানেই শেষ নয়, একই দিনে ভারতে মুক্তি পাচ্ছে ইরফান খান অভিনীত হলিউডি সিনেমা 'পাজল'। মার্ক টার্টলটাব পরিচালিত এ ছবিতে দেখা যাবে জীবনের জালে আটকে পরা এক নারী পাজল মিলিয়ে খুঁজে পায় নতুন আলো।

স্ট্রাগল করেই আজকের অবস্থানে দাঁড়িয়েছেন শুভ। পদে পদে তাকে শিখতে হয়েছে। শিখছেন এখন্‌ও। তাই ইন্ডাস্ট্রিতে কোথায় কীভাবে এগোতে হবে, তার জানা। ঢাকায় এসেই নতুন ছবির শুভ সংবাদ দিলেন এ নায়ক। 'সাপলুডু' নামে একটি ছবিতে কাজ করছেন তিনি। পরিচালনা করবেন জনপ্রিয় ন্যাটনির্মাতা গোলাম সোহরাব দোদুল। ছবির কাহিনী ও চিত্রনাট্য তৈরি করেছেন নির্মাতা নিজেই। এতে শুভর নায়িকা হিসেবে থাকছেন বিদ্যা সিনহা মিম। এ ছবির মাধ্যমে বড় পর্দায় কাজ করছেন পরিচালক। সবকিছু ঠিক থাকলে অক্টোবর মাস থেকে ছবিটির শুটিং শুরু হবে বলে জানিয়েছেন পরিচালক। ছবির গল্প বাংলাদেশের পটভূমি নিয়ে। ঢাকা, বান্দরবান, রাঙামাটি ও কক্সবাজারের লোকেশনে এর শুটিং হবে। ছবিটি নিয়ে বেশ আশাবাদী নায়ক শুভ। তিনি বলেন, 'অ্যাকশন থ্রিলার গল্প নিয়েই সাপলুডু। আমি যে ধরনের গল্পের জন্য অপেক্ষায় থাকি সাপলুডু তেমনই একটি ছবি হবে। নকল ছবি নির্মাণের একটা সংস্কৃতি আমাদের এখানে বেশ শক্ত অবস্থানেই রয়েছে। ছবির নায়কদের কাছে এমন ছবির প্রস্তাবই এখন বেশি আসে। ঠিক এই সময়ে কী ধরনের গল্পের ছবিতে অভিনয়ের আগ্রহ পান আপনি- শুভকে এমন প্রশ্ন রাখতেই উত্তরে বলেন, আমি চাই ভালো গল্পের ছবিতে কাজ করতে। একজন দর্শক হিসেবে যে গল্প আমাকে মুগ্ধ করে, কাছে টানে, সে ধরনের গল্পেই কাজ করতে চাই। এ ছাড়া আমাদের দেশ তো গল্পের ভা ার। দর্শকদের এক্সাইটিং করতে পারে এমন হাজারো গল্প রয়েছে আমাদের। আমাদের সাহিত্য প্রাণবন্ত গল্পে ভরা। সেসব গল্প নিয়ে ছবি বানালেই মৌলিক ছবি হয়ে উঠবে। সম্প্রতি যে কয়টি ছবি আলোচনায় এসেছে, এর মধ্যে মনপুরা, ঢাকা অ্যাটাক, আয়নাবাজি, অজ্ঞাতনামা- সবই দেশি মৌলিক গল্পের ছবি। একটা জিনিস ভালো লাগছে, অনেক দিন পর হলেও আমার প্রিয় মাসুদ রানা সিরিজের গল্পের প্রতি দৃষ্টি পড়েছে। পর্দায় উঠে আসছে সিরিজটি। এমন আরও অনেক গল্প রয়েছে। আমার বিশ্বাস, সে গল্পগুলোর প্রতিও পরিচালকদের নজর পড়বে।' সিনেমাপাড়ায় এই আরিফিন শুভর পা পড়েছিল ২০১০ সালে ড়ছে। পর্দায় উঠে আসছে সিরিজটি। এমন আরও অনেক গল্প রয়েছে। আমার বিশ্বাস, সে গল্পগুলোর প্রতিও পরিচালকদের নজর পড়বে।' সিনেমাপাড়ায় এই আরিফিন শুভর পা পড়েছিল ২০১০ সালে ড়ছে। পর্দায় উঠে আসছে সিরিজটি।

© সমকাল 2005 - 2018

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫, ৮৮৭০১৯৫, ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১, ৮৮৭৭০১৯৬, বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০ । ইমেইল: info@samakal.com