শ্মশান ঘাটের শ্যাওড়া গাছে ভূত পেড়েছে ডিম

০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

আ বে দী ন জ নী

আজব খবর



শুনছি এ কী আজব খবর, ভয়েই শরীর হিম

শ্মশান ঘাটের শ্যাওড়াগাছে ভূত পেড়েছে ডিম!

কেউবা বলে এক হালি ডিম, কেউবা বলে ছয়টা

সত্য করে কেউ জানে না ডিম পেড়েছে কয়টা।



ডিমগুলো কে গুনতে যাবে? কার আছে এই সাধ্য

সাঁঝেরবেলা ভূতের বাসায় বাজে নানান বাদ্য।

ঘোড়া হয়ে লেজটা নাচায়, ডাকে চিঁহি চিঁহি

কাশতে থাকে খুকখুকিয়ে, হাসে হা হা হি হি।



ওইখানে কেউ যায় যদি হায় ফেরে না সে আর

জাপটে ধরে মোচড় মেরে মটকিয়ে দেয় ঘাড়।

শ্যাওড়াগাছের ধারে-কাছে তাই তো যাওয়া মানা

এই কথাটা এই গেরামের সবার আছে জানা।



কিন্তু সেদিন দুষ্টু ছেলে বল্টু এসে কয়-

ওই গাছে তো ভূত থাকে না, কীসের এতা ভয়?

গাছে আছে একটা বাসা, খড়-কুটুতে বোনা

কেমন করে থাকবে সেথায় ভূতের ছানাপোনা ?



বললো সবাই-তোর কথা কি আমরা গায়ে মাখি?

অমনি হঠাৎ শ্যাওড়া ডালে ডাকল ঈগলপাখি।

অনেক লোকের প্রশ্ন তবু-কইরে ঈগল কই?

ডিম পেড়েছে ভূত না ঈগল, এই নিয়ে হইচই!





আ হ মে দ খা ন হী র ক

আব্বুটা তো



আব্বুটা তো ভালো না

থাকেই না বাসায়

সকাল সকাল অফিস ছোটে

আসে না সন্ধ্যায়।



আব্বুটা তো ভালো না

ফেরে খুবই ক্লান্ত

আমি কত অপেক্ষা করি

যদি সে তা জানত!



আব্বুটা তো একঘেয়ামি

পারেও না তো খেলতে

আমার সমান পারেও না

গাড়িগুলো ঠেলতে।



আব্বুটা তো খুব হিসাবি

চায় যেতে না বেড়াতে

কিন্তু আমি জেদ ধরলে

পারেও না তো এড়াতে



আব্বুটা তো জবড়জং

আব্বু তবু সেরা

আমায় পেলেই জড়িয়ে ধরে

হাসিতে মুখ চেরা।







জা হা ঙ্গী র আ ল ম জা হা ন

তোমার জন্য



তোমার জন্য রেখেছি সবুজ মাঠ

রেখেছি পুকুর, পুকুরের বাঁধা ঘাট।

তপ্ত দুপুরে পুকুরের জলে নাওয়া

রেখেছি আরো নির্মল বায়ু-হাওয়া।



তোমার জন্য রেখেছি নদী ও নাও

উদাস মাঝির ভাটিয়ালি সুর, তা-ও।

রেখেছি আকাশ, আকাশে মেঘের ভেলা

ফেলে আসা সেই মধুময় ছেলেবেলা।



তোমার জন্য রেখেছি জোছনা রাত

সুবাস মাখানো স্বর্গের পারিজাত।

রেখেছি আরো কুয়াশা মোড়ানো ভোর

কতো স্মৃতিময় দুরন্ত কৈশোর।



তোমার জন্য রেখেছি উদাস দুপুর

রেখেছি বর্ষা- বৃষ্টি টাপুরটুপুর।

কেয়া-কদমের গন্ধ ছড়ানো দিন

রেখেছি আমার স্মৃতিগুলো অমলিন।



তোমার জন্য রেখেছি আমার সব

বুকের ভিতরে চেপে রাখা কলরব।

জীবনের শেষ সন্ধ্যা ঘনালে পরে

দিয়ে যাবো সব তোমাকেই অগোচরে।

© সমকাল 2005 - 2018

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মুস্তাফিজ শফি । প্রকাশক : এ কে আজাদ

১৩৬ তেজগাঁও শিল্প এলাকা, ঢাকা - ১২০৮ । ফোন : ৮৮৭০১৭৯-৮৫, ৮৮৭০১৯৫, ফ্যাক্স : ৮৮৭০১৯১, ৮৮৭৭০১৯৬, বিজ্ঞাপন : ৮৮৭০১৯০ । ইমেইল: info@samakal.com