সাহিত্যে রসবোধ খুব গুরুত্বপূর্ণ: অ্যাডাম জনসন

প্রকাশ: ০৯ নভেম্বর ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

ঢাকা লিট ফেস্টের দ্বিতীয় দিন শুক্রবার বাংলা একাডেমির আব্দুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে লেখক ও পাণ্ডুলিপি সম্পাদক কেলি ফ্যালকোনারের সঙ্গে একটি সেশনে আলোচনায় অংশ নেন পুলিৎজারজয়ী লেখক ও যুক্তরাষ্ট্রের স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজির অধ্যাপক অ্যাডাম জনসন। 

এ সময় তিনি বলেন, সাহিত্যে রসবোধ খুব গুরুত্বপূর্ণ। এই রসবোধ লেখার সঙ্গে পাঠকের আন্তঃযোগাযোগ সহজ করে দেয়।

অ্যাডাম জনসন বলেন, প্রতিটি মানুষের জীবনের গল্পগুলো তাকে ঘিরেই আবর্তিত হয়। লক্ষ্য ঠিক করে, নানা চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে আমরা যখন কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাই, তখন সেটাকে জীবনের সার্থকতা বলে মেনে নিই। এই গল্পের পুরোটায় ওই ব্যক্তি নায়কের ভূমিকা থাকে।

তিনি জানান, যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনার স্থানীয় চিড়িয়াখানায় নৈশপ্রহরী হিসেবে কাজ করতেন তার বাবা। তার আট বছর বয়সে মা-বাবার বিচ্ছেদ হয়। শৈশবে অ্যাডাম বাবার সঙ্গে প্রায়ই ঘুরতে যেতেন সোনোরান মরুভূমিতে। ধূ ধূ মরুতেই তিনি গভীরভাবে অনুধাবন করতে থাকেন প্রাণের অস্তিত্ব। শিশু বয়সের এই অনুধাবন তাকে সাহিত্যের পথে যাত্রা করতে সহায়তা করে। 

উত্তর কোরিয়ায় ভ্রমণের অভিজ্ঞতা নিয়ে লেখা ‘দ্য অরফ্যান মাস্টারস সন’ উপন্যাসের জন্য পুলিৎজার পুরস্কার পান অ্যাডাম। 

ফিকশন, নন-ফিকশন দুই ধারার পাণ্ডুলিপির সম্পাদক হিসেবে লন্ডনের বিভিন্ন প্রকাশনা সংস্থায় কাজ করেছেন কেলি।

অ্যাডামের কাছে প্রথমেই কেলি জানতে চান মুক্ত পৃথিবী প্রসঙ্গে। উত্তরে অ্যাডাম বলেন, বাতাসের বয়ে যাওয়া, পাখির কলতান— এগুলো উপলব্ধি করতে পারলেই মুক্ত পৃথিবীতে মুক্তভাবে বেঁচে থাকাটা অনুভব করতে পারবেন আপনি।

লেখালেখির ক্ষেত্রে গবেষণা ও অভিজ্ঞতাকে গুরুত্ববহ মনে করেন অ্যাডাম। কেলি তার সঙ্গে একমত হয়ে যোগ করেন, লেখা শুরুর আগে মৌলিক গবেষণা জরুরি। এরপর কয়েক মাস বিরতি নিয়ে লিখতে শুরু করা যেতে পারে। এটি ওই লেখাকে স্বতস্ফূর্তভাবে সম্পন্ন হতে সহায়তা করে।

প্রাচ্য-পাশ্চাত্যের মধ্যে সাহিত্য বিনিময়ের ব্যাপারে একমত হন অ্যাডাম ও কেলি। এ বিষয়ে কেলি বলেন, প্রাচ্যের সাহিত্যের মাত্র তিন শতাংশ পশ্চিমে অনূদিত হয়।

বাংলাদেশের আতিথেয়তায় মুগ্ধ অ্যাডাম বলেন, পৃথিবীর অনেক দেশে গিয়েছি। কিন্তু বাংলাদেশের মানুষের মতো উষ্ণ আতিথেয়তা অন্য কোথাও পাইনি। এর কারণ এদেশের মানুষের তুলনাহীন মানবতাবোধ। এই চর্চা ছড়িয়ে দিতে হবে।

আরও পড়ুন

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস মার্কেটে, আহত ২০

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস মার্কেটে, আহত ২০

সীতাকুন্ডের ভাটিয়ারী পোর্টলিংকে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে হানিফ পরিবহনের যাত্রীবাহী বাস রাস্তার ...

ছাড়পত্র পাওয়া রোহিঙ্গারা ক্যাম্প ছেড়ে পালাচ্ছে

ছাড়পত্র পাওয়া রোহিঙ্গারা ক্যাম্প ছেড়ে পালাচ্ছে

বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ১৫ নভেম্বর থেকে রোহিঙ্গা ...

১০ বছর পর উৎসবমুখর নয়াপল্টন

১০ বছর পর উৎসবমুখর নয়াপল্টন

প্রায় দশ বছর পর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ...

সাক্ষাৎকার নয় দিকনির্দেশনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী

সাক্ষাৎকার নয় দিকনির্দেশনা দেবেন প্রধানমন্ত্রী

এবার আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার নেওয়া হবে না। তবে তাদের ...

হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার পেলেন রিজিয়া রহমান

হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার পেলেন রিজিয়া রহমান

'হুমায়ূন আহমেদ নেই, হুমায়ূন আহমেদ আছেন। যারা তার সাহচর্য পেয়েছিলেন, ...

আসন হারানোর শঙ্কায় জাপা

আসন হারানোর শঙ্কায় জাপা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মহাজোটের প্রধান শরিক আওয়ামী লীগের কাছে ...

জামায়াতও ৩৫ আসনের কমে মানতে নারাজ

জামায়াতও ৩৫ আসনের কমে মানতে নারাজ

নিবন্ধন বাতিল হওয়ায় দলীয় পরিচয়ে ভোটে অংশ নেওয়ার সুযোগ নেই ...

হুমায়ূন জয়ন্তী আজ

হুমায়ূন জয়ন্তী আজ

'আমরা জানি একদিন আমরা মরে যাব, এই জন্যেই পৃথিবীটাকে এত ...