৫৭ বছরেও চূড়ান্ত হয়নি কর্মচারী নিয়োগবিধি

পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর

প্রকাশ: ১৩ জানুয়ারি ২০১৮      

মাসুক আলতাফ চৌধুরী, কুমিল্লা



পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক (এফপিআই) জহির আহমেদ- এটা বললে সবাই চেনেন। কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার হাসনাবাদ ইউনিয়নে তার কর্মস্থল। পাশের বাইশগাঁও ইউনিয়নেও অতিরিক্ত কাজ করছেন তিনি। কাজের প্রতি মনোযোগী থাকায় এলাকায় বেশ সুনাম তার। ২০১২ সালে ওই পদে যোগদান করেন।

পাশাপাশি দাঁড়িয়ে কথা বলছিলেন আরও একজন। একই উপজেলার ঝলম দক্ষিণ ইউনিয়নের অবসরে যাওয়া এফপিআই মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম। ৩৯ বছর এফপিআইর একই পদে চাকরি করে অবসরে গেছেন ২০১৫ সালে। পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের কর্মচারীদের নিয়োগবিধি না থাকায় সুদীর্ঘ কর্মজীবনে পদোন্নতির মুখ দেখেননি ওই বীরযোদ্ধা।

দু'জন মিলে জানালেন নিজেদের কথা। বললেন, পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের বয়স ৫৭ বছর পেরিয়ে গেলেও কর্মচারী নিয়োগ ও পদোন্নতির কোনো বিধিমালা চূড়ান্ত হয়নি আজও। অধিদপ্তরের অধীন মাঠ পর্যায়ে কর্মরত পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক (এফপিআই) ও পরিবার কল্যাণ সহকারীদের (এফডব্লিউএ) চাকরির সারাজীবন একই পদে থেকে অবসরে যেতে হচ্ছে। এতে মাঠ পর্যায়ে কর্মরত ২৮ হাজার কর্মীর মধ্যে দিন দিন বাড়ছে ক্ষোভ আর হতাশা।

১৯৫০ সালে স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান হিসেবে যাত্রা শুরু করে পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর (এফপিআই)। শুরুতে বিদেশি সহায়তায় সীমিত আকারে কর্মসূচি শুরু হলেও পরে ব্যাপক আকার ধারণ করে। ১৯৬০ সালের দিকে পরিবার পরিকল্পনা সেবাটি সরকারি হাসপাতাল ভিত্তিক করা হয়। মুক্তিযুদ্ধের পর পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর করেন বঙ্গবন্ধু। তখন ওই কর্মচারীরা প্রকল্পের আওতায় ছিলেন। ১৯৯৯ সালে কর্মচারীদের রাজস্ব খাতে স্থানান্তর করা হয়। ওই সময় অধিদপ্তরের নিয়োগ ও পদোন্নতি বিধিমালা নতুন করে হালনাগাদ করার কাজও শুরু হয়। এরপর ১৮ বছরেও কার্যকর হয়নি ওই বিধিমালা।

মাঠ কর্মচারী সমিতির কুমিল্লা জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জহির আহমেদ আরও জানান, অধিদপ্তরের জন্ম থেকেই তারা অবহেলা ও বঞ্চনার শিকার। একের পর এক আশ্বাস দেওয়া হলেও কাজের কাজ কিছুই হয়নি। প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

নাঙ্গলকোট উপজেলার বেলঘর ইউনিয়নের এফপিআই সামছুল হক সমকালকে বলেন, ১৯৮৪ সাল থেকে একই পদে চাকরি করছি। চাকরির শেষ দিকে চলে এসেছি, এখনও একই পদে আছি। লালমাই উপজেলার পেরুল ইউনিয়নের এফপিআই রাহুল চন্দ্র সিংহও একই ক্ষোভের কথা জানান। তিনিও ১৯৮২ সাল থেকে একই পদে রয়েছেন। ভুক্তভোগী অন্তত ১০ মাঠকর্মীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নিয়োগ ও পদোন্নতিবিধি বাস্তবায়নের পাশাপাশি ইউনিয়ন পরিবার পরিকল্পনা কমিটির সভার ভাতা বৃদ্ধি, এফপিআইদের স্যাটেলাইট ভাতা ও কাজের সুবিধা বিবেচনায় মোটরসাইকেল প্রদান, নিয়োগবিধিতে শিক্ষাগত উন্নতিকরণসহ দাবিগুলো দীর্ঘদিনের।

মাঠ কর্মচারী সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যকরী সভাপতি মো. ফরোজ মিয়া জানান, সারাদেশে ছড়িয়ে থাকা ২৮ হাজার মাঠকর্মীর দুঃখ-কষ্টের দিন যেন শেষ হওয়ার নয়। সরকারের অন্যান্য বিভাগে যোগ্যতা ও জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে পদোন্নতি হলেও আমাদের অধিদপ্তরের কর্মীরা সেটা থেকে বঞ্চিত।

মাঠ পর্যায়ের কর্মীদের এসব সমস্যার বিষয়ে জানতে অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. মোস্তফা সরওয়ারের দাপ্তরিক ও ব্যক্তিগত ফোনে বেশ কয়েকবার যোগাযোগ করেও কথা বলা সম্ভব হয়নি। সোমবার দুপুরে অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রশাসন) মো. রমজান আলী প্রশ্নের জবাবে জানান, নিয়োগবিধির বিষয়টি আসলে অফিসিয়াল ব্যাপার। আমাদের নিয়োগবিধি আছে ও নতুন কিছু পদও সৃষ্টি হয়েছে। এখন সেটা

সংশোধনের কাজ চলছে। এ নিয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে একটি সভাও হয়েছে এবং সমস্যা সমাধানে পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তর কাজ করে যাচ্ছে বলেও দাবি করেন তিনি।
গেইলকে কিনে আইপিএল বাঁচিয়েছেন শেবাগ!

গেইলকে কিনে আইপিএল বাঁচিয়েছেন শেবাগ!

এখনো ক্রিকেট প্রেমিরা দানবীয় ব্যাটিং বলতে গেইলকেই বোঝে। টিভি খুলে ...

১০০ বলের ফরম্যাটে টুর্নামেন্ট আয়োজনের প্রস্তাব ইসিবির

১০০ বলের ফরম্যাটে টুর্নামেন্ট আয়োজনের প্রস্তাব ইসিবির

ক্রিকেটের নতুন সংস্করণ চালুর পরিকল্পনা করছে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট ...

নওগাঁয় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

নওগাঁয় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় তিন মোটরসাইকেল আরোহী নিহত ...

‘তিন ছাত্রীকে অভিভাবকের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে’

‘তিন ছাত্রীকে অভিভাবকের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কবি সুফিয়া কামাল হল থেকে বৃহস্পতিবার গভীর ...

মাদারীপুরে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে ১৫

মাদারীপুরে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে ১৫

মাদারীপুরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে ...

ঘরে মোরগ ঢোকায় ৩ জনকে পিটুনি

ঘরে মোরগ ঢোকায় ৩ জনকে পিটুনি

ঘরে মোরগ প্রবেশ করায় মোরগের মালিকসহ তার পরিবারের তিন সদস্যকে ...

তমা মির্জার চার চলচ্চিত্র

তমা মির্জার চার চলচ্চিত্র

চলতি বছরে চারটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র ...

৭শ’ বছরের গাছ বাঁচাতে স্যালাইন!

৭শ’ বছরের গাছ বাঁচাতে স্যালাইন!

ভারতের হায়দরাবাদের তেলেঙ্গনাতে একটি সাতশ বছরের পুরনো বট গাছকে পোকমাকড়ের ...