বগুড়ায় দুর্যোগ ঝুঁকি হ্রাস প্রকল্পের কার্যক্রম বন্ধ

প্রকাশ: ১৩ জানুয়ারি ২০১৮      

বগুড়া ব্যুরো



বগুড়ায় ত্রাণ ও পুনর্বাসন অধিদপ্তরের দুর্যোগজনিত ঝুঁকি হ্রাস প্রকল্পটির কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। বিগত চারদলীয় দলীয় জোট সরকারের সময়ে নেওয়া এ প্রকল্পের মাধ্যমে জেলায় প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকা ঋণ হলেও আদায় হয়েছে মাত্র দেড় কোটি টাকা। এই ঋণ বিতরণে অনিয়ম ও ঋণ গ্রহীতারা সময়মতো কিস্তি পরিশোধ না করায় প্রকল্পটির কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে বলে সংশ্নিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন অফিস জানায়, ২০০৪-০৫ অর্থবছর থেকে বন্যা ও প্রাকৃতিক দুর্যোগপ্রবণ এলাকার দরিদ্র মানুষের জন্য ঋণ নেওয়ার ছয় মাস পর থেকে ৪ শতাংশ হারে সার্ভিস চার্জ ধরে জেলায় দুই দফায় চার কোটি ৪০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। প্রথম দফায় জেলার বন্যা এলাকা সারিয়াকান্দি, ধুনট, সোনাতলা ও গাবতলী উপজেলায় আটটি ইউনিয়নে দুই কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়ার পর ওই অর্থবছরেই এই টাকা বিতরণ করা হয়। পরের অর্থবছরে জেলার আরও সাতটি উপজেলার জন্য দুই কোটি ৪০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। ওই টাকাও বিতরণ করা হয় ২০০৬-০৭ অর্থবছরের মধ্যে। প্রকল্পের নিয়ম অনুযায়ী, ঋণ নেওয়ার ছয় মাস পর থেকে কিস্তি দেওয়া শুরু করে এক বছরের মধ্যে ঋণ গ্রহীতারা ঋণ পরিশোধ করার পর আবারও নতুন করে বেশি পরিমাণ ঋণ নিতে পারবেন। কিন্তু এ প্রকল্পটির ক্ষেত্রে বাস্তবে হয়েছে উল্টো। যারা ঋণ নিয়েছে তাদের বেশিরভাগই তার কিস্তি সময়মতো পরিশোধ করেননি। ফলে আদায় হয়েছে মাত্র এক কোটি ৪৩ লাখ ৭২ হাজার টাকা। জানা গেছে, ২০০৭ সালের পর থেকে ঋণের আর কোনো কিস্তি আদায় করা সম্ভব হয়নি। কর্তৃপক্ষ বলছে, প্রকল্পটি চালু করার একাধিকবার উদ্যোগ নেওয়া হলেও ঋণ উত্তোলন ও প্রদানের ক্ষেত্রে জনবল সংকটসহ ঋণ গ্রহীতাদের সঠিক নাম-ঠিকানা এবং টাকার পরিমাণের সঠিক হিসাব সংশ্নিষ্ট দপ্তরে না থাকায় প্রকল্পটি চালু করা সম্ভব হয়নি।

অভিযোগ রয়েছে, এই খাতের টাকা ঋণ হিসেবে বিতরণের সময় দলীয় সুপারিশে বেশিরভাগ দলীয় লোকদের মাঝে বিতরণ করা হয়েছিল। যে কারণে দলীয় দোহাই দিয়ে এবং দলীয় প্রভাব খাটিয়ে নেওয়া ঋণের কিস্তিও পরিশোধ করা হয়নি। এর মধ্যে যেমন জেলার সোনাতলা উপজেলার তেকানী-চুকাইনগর ইউনিয়নে বিতরণ করা ৩০ লাখ টাকা ঋণের একটি টাকাও আদায় হয়নি। অভিযোগ রয়েছে, ওই ইউনিয়নের চারদলীয় জোটের সময়কার চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা আশরাফ উদ্দিন দলীয় লোকজন ছাড়াও আত্মীয়স্বজনের মাঝে এই ঋণ বিতরণ করেছেন। সে সময় ঋণ বিতরণে অনিয়মের অভিযোগে গঠিত তদন্ত কমিটিও অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় ওই চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মামলা করতে বাধ্য হন। এ রকম জেলার বিভিন্ন এলাকায় অনিয়মের ঘটনায় একাধিক অভিযোগ জমা পড়ে জেলা প্রশাসকসহ সংশ্নিষ্ট দপ্তরে। এর পর থেকেই মূলত ঋণ প্রদান বন্ধ করে দেওয়া হয়।

জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা শাহারুল ইসলাম মো. আবু হেনা বলেন, প্রকল্পটি দরিদ্রদের জন্য ভালো ছিল; কিন্তু ঋণ বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ থাকায় ও কিস্তি পরিশোধ না করায় এর কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। প্রকল্পটি চালু করতে একাধিকবার উদ্যোগ নেওয়া হলেও জনবল সংকট ও আগের ঋণ গ্রহীতাদের হদিস না পাওয়ায় তা সম্ভব হয়নি।
গাড়ির হর্ন বাজানোয় চালককে খুন!

গাড়ির হর্ন বাজানোয় চালককে খুন!

চট্টগ্রাম নগরীর চট্টেশ্বরী পল্টন রোডে গাড়ির হর্ন বাজানোকে কেন্দ্র করে ...

নেইমারের চুল নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে তোলপাড়

নেইমারের চুল নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে তোলপাড়

ব্রাজিল তারকা নেইমারের চুলের নতুন নতুন স্টাইলের কথা সবার জানা। ...

রেকর্ড ফাউলের শিকার নেইমার

রেকর্ড ফাউলের শিকার নেইমার

১৯৬৬ সালের বিশ্বকাপ দেখেছেন এবং এখনও বেঁচে আছেন এমন মানুষের ...

জকিগঞ্জে দেড় লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দী

জকিগঞ্জে দেড় লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দী

সিলেটের জকিগঞ্জের সুরমা-কুশিয়ারা নদীর পানি ২ সেন্টিমিটার কমলেও লোকালয়ে বৃদ্ধি ...

প্রত্যাশা নয়, ভালোর আশায় দ. কোরিয়া

প্রত্যাশা নয়, ভালোর আশায় দ. কোরিয়া

মহাদেশীয় কোটার কারণে বিশ্বকাপে এশিয়ার দল থাকে বটে। কিন্তু শিরোপার ...

তাদের কাছে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নয়, ইস্যু গুরুত্বপূর্ণ: কাদের

তাদের কাছে খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নয়, ইস্যু গুরুত্বপূর্ণ: কাদের

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়টি নিয়ে তার দলের নেতারা ...

মাগুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় বাবা-মেয়ে নিহত

মাগুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় বাবা-মেয়ে নিহত

মাগুরা-যশোর সড়কের মাগুরার শালিখা উপজেলার কৃষ্ণপুর এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় বাবা-মেয়ে ...

নতুন সেনাপ্রধান আজিজ আহমেদ

নতুন সেনাপ্রধান আজিজ আহমেদ

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর নতুন প্রধান হিসেবে দায়িত্ব নিচ্ছেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল আজিজ ...