গোপন যুদ্ধে ইরান ও ইসরায়েল

প্রকাশ: ১৩ জানুয়ারি ২০১৮      

সমকাল ডেস্ক

সিরিয়ার মাটিতে সম্প্রতি ইসরায়েলি বাহিনীর অভিযান ও বিমান হামলার তীব্রতা ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যম ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানগুলো বলছে, এসব অভিযান ও হামলার লক্ষ্যবস্তু হচ্ছে সিরিয়ায় থাকা ইরানি সমরাস্ত্র। এসব সমরাস্ত্রের কিছু অংশের গন্তব্য লেবাননের শিয়াগোষ্ঠী হিজবুল্লাহ। কিন্তু হিজবুল্লাহর হাতে গিয়ে পড়ার আগেই অভিযান চালিয়ে তেহরানের পরিকল্পনা নস্যাৎ করে দিতে বদ্ধপরিকর ইসরায়েল।

সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, ইরানের ক্ষেপণাস্ত্রগুলো উন্নতমানের। ইসরায়েলের কৌশলগত আধিপত্যের ভিত্তি দুর্বল করে দেওয়ার মতো ক্ষমতা রয়েছে এগুলোর।

সামরিক বিশ্নেষক অ্যালেক্স ফিশম্যান বলেন, ইসরায়েলের এসব হামলার মধ্য দিয়ে সিরীয় ভূখে ইরানের বিরুদ্ধে তেল আবিবের 'গোপন যুদ্ধ' প্রকাশ হয়ে পড়তে পারে।

ইসরায়েলভিত্তিক দৈনিক পত্রিকা ইয়েদিওথ আহরনোথে অ্যালেক্স ফিশম্যান লিখেছেন, আমাদের এ ধারণাটি ব্যবহার করতে হবে যে, ইসরায়েল দৃশ্যত সিরিয়ায় ইরানের বিরুদ্ধে সামরিক সংঘাতে জড়িয়েছে। সম্প্রতি ইসরায়েলের মন্ত্রিসভা সিরিয়া, লেবানন ও ইরানের বিরুদ্ধে নিজেদের নীতি নিয়ে আলোচনা করেছে। তারা হয়তো যথার্থ উপসংহারে পৌঁছেছে। ২০১৭ সালেই ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যমগুলো সিরিয়ায় ইরানের সেনা, নৌ ও বিমান ঘাঁটি থাকার সম্ভাবনার ব্যাপারে সরব হয়। শিয়া মিলিশিয়াদের বিরুদ্ধে কথা বলতে শুরু করে তারা। ফিশম্যান বলেন, ইরানের হুমকি উপেক্ষা করতে পারে না ইসরায়েল। তারা প্রকৃত সামরিক চ্যালেঞ্জ তৈরি করেনি। সিরিয়ান ফ্রন্টের সঙ্গে প্রধান সমস্যা হচ্ছে ভূমি থেকে ভূমিতে ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করা। তাদের নির্ভুল রকেটচালিত ক্ষেপণাস্ত্রগুলো লেবানন থেকে শুরু করে গোলান মালভূমি পর্যন্ত বিস্তৃত। এর টার্গেটকৃত পরিধি হচ্ছে পুরো ইসরায়েলি ভূখ। এ পরিস্থিতি ইসরায়েলকে চ্যালেঞ্জের মুখে ঠেলে দিয়েছে। ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায়ও মিসাইল ফ্রন্ট প্রতিষ্ঠা করছে ইরান। অ্যালেক্স বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া যদি কূটনৈতিক উপায়ে এসব সংকটের সমাধান বের করতে না পারে কিংবা এ ব্যাপারে আগ্রহী না হয়, তাহলে ইসরায়েলকেই তার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে। মিডল ইস্ট মনিটর অবলম্বনে।

পরবর্তী খবর পড়ুন : আসামে আতঙ্কে মুসলিমরা

আসছে ভোট, প্রস্তুত ইসি

আসছে ভোট, প্রস্তুত ইসি

একাদশ সংসদ নির্বাচনের লক্ষ্যে নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে তফসিল ঘোষণা এবং ...

রূপালি গিটার ফেলে দূরে বহুদূরে

রূপালি গিটার ফেলে দূরে বহুদূরে

এই রূপালি গিটার ফেলে/একদিন চলে যাব দূরে বহুদূরে/ সেদিন চোখে ...

আজ শুভ বিজয়া দশমী

আজ শুভ বিজয়া দশমী

সব পূজামণ্ডপের বাতাসেই এখন বিষাদের ছায়া। হিন্দু ধর্মাবলম্বী মানুষের ঘরে ...

খাসোগির সন্ধানে 'জঙ্গলে তল্লাশি' পুলিশের

খাসোগির সন্ধানে 'জঙ্গলে তল্লাশি' পুলিশের

সৌদি রাজপরিবারের কঠোর সমালোচক সাংবাদিক জামাল খাসোগির অনুসন্ধান চালিয়ে যাচ্ছে ...

প্রিয়াঙ্কা-নিকের বিয়ে ডিসেম্বরেই

প্রিয়াঙ্কা-নিকের বিয়ে ডিসেম্বরেই

১০ বছরের ছোট মার্কিন সংগীত শিল্পী নিক জোনাসের সঙ্গে বাগদান ...

১০০ আসনে ছাড় দিতে পারে বিএনপি

১০০ আসনে ছাড় দিতে পারে বিএনপি

নির্বাচন ঘনিয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে জোট সম্প্রসারণেরও উদ্যোগ নিচ্ছে ক্ষমতাসীন ...

জসীমের উচ্ছেদ খেলায় নিঃস্ব মানুষ ফেরত চায় জমি

জসীমের উচ্ছেদ খেলায় নিঃস্ব মানুষ ফেরত চায় জমি

কালিয়াকৈরে মূর্তিমান আতঙ্কের নাম ছিল বনখেকো জসীম ইকবাল। পরে তার ...

তৃতীয় সাবমেরিন কেবলে যুক্ত হচ্ছে বাংলাদেশ

তৃতীয় সাবমেরিন কেবলে যুক্ত হচ্ছে বাংলাদেশ

তৃতীয় সাবমেরিন কেবলে সংযুক্ত হচ্ছে বাংলাদেশ। চট্টগ্রাম থেকে সিঙ্গাপুর পর্যন্ত ...