গোপন যুদ্ধে ইরান ও ইসরায়েল

প্রকাশ: ১৩ জানুয়ারি ২০১৮      

সমকাল ডেস্ক

সিরিয়ার মাটিতে সম্প্রতি ইসরায়েলি বাহিনীর অভিযান ও বিমান হামলার তীব্রতা ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যম ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানগুলো বলছে, এসব অভিযান ও হামলার লক্ষ্যবস্তু হচ্ছে সিরিয়ায় থাকা ইরানি সমরাস্ত্র। এসব সমরাস্ত্রের কিছু অংশের গন্তব্য লেবাননের শিয়াগোষ্ঠী হিজবুল্লাহ। কিন্তু হিজবুল্লাহর হাতে গিয়ে পড়ার আগেই অভিযান চালিয়ে তেহরানের পরিকল্পনা নস্যাৎ করে দিতে বদ্ধপরিকর ইসরায়েল।

সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, ইরানের ক্ষেপণাস্ত্রগুলো উন্নতমানের। ইসরায়েলের কৌশলগত আধিপত্যের ভিত্তি দুর্বল করে দেওয়ার মতো ক্ষমতা রয়েছে এগুলোর।

সামরিক বিশ্নেষক অ্যালেক্স ফিশম্যান বলেন, ইসরায়েলের এসব হামলার মধ্য দিয়ে সিরীয় ভূখে ইরানের বিরুদ্ধে তেল আবিবের 'গোপন যুদ্ধ' প্রকাশ হয়ে পড়তে পারে।

ইসরায়েলভিত্তিক দৈনিক পত্রিকা ইয়েদিওথ আহরনোথে অ্যালেক্স ফিশম্যান লিখেছেন, আমাদের এ ধারণাটি ব্যবহার করতে হবে যে, ইসরায়েল দৃশ্যত সিরিয়ায় ইরানের বিরুদ্ধে সামরিক সংঘাতে জড়িয়েছে। সম্প্রতি ইসরায়েলের মন্ত্রিসভা সিরিয়া, লেবানন ও ইরানের বিরুদ্ধে নিজেদের নীতি নিয়ে আলোচনা করেছে। তারা হয়তো যথার্থ উপসংহারে পৌঁছেছে। ২০১৭ সালেই ইসরায়েলি সংবাদমাধ্যমগুলো সিরিয়ায় ইরানের সেনা, নৌ ও বিমান ঘাঁটি থাকার সম্ভাবনার ব্যাপারে সরব হয়। শিয়া মিলিশিয়াদের বিরুদ্ধে কথা বলতে শুরু করে তারা। ফিশম্যান বলেন, ইরানের হুমকি উপেক্ষা করতে পারে না ইসরায়েল। তারা প্রকৃত সামরিক চ্যালেঞ্জ তৈরি করেনি। সিরিয়ান ফ্রন্টের সঙ্গে প্রধান সমস্যা হচ্ছে ভূমি থেকে ভূমিতে ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করা। তাদের নির্ভুল রকেটচালিত ক্ষেপণাস্ত্রগুলো লেবানন থেকে শুরু করে গোলান মালভূমি পর্যন্ত বিস্তৃত। এর টার্গেটকৃত পরিধি হচ্ছে পুরো ইসরায়েলি ভূখ। এ পরিস্থিতি ইসরায়েলকে চ্যালেঞ্জের মুখে ঠেলে দিয়েছে। ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায়ও মিসাইল ফ্রন্ট প্রতিষ্ঠা করছে ইরান। অ্যালেক্স বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া যদি কূটনৈতিক উপায়ে এসব সংকটের সমাধান বের করতে না পারে কিংবা এ ব্যাপারে আগ্রহী না হয়, তাহলে ইসরায়েলকেই তার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে। মিডল ইস্ট মনিটর অবলম্বনে।

পরবর্তী খবর পড়ুন : আসামে আতঙ্কে মুসলিমরা

গেইলকে কিনে আইপিএলের প্রাণ দিয়েছে শেবাগ!

গেইলকে কিনে আইপিএলের প্রাণ দিয়েছে শেবাগ!

এখনো ক্রিকেট প্রেমিরা দানবীয় ব্যাটিং বলতে গেইলকেই বোঝে। টিভি খুলে ...

১০০ বলের ফরম্যাটে টুর্নামেন্ট আয়োজনের প্রস্তাব ইসিবির

১০০ বলের ফরম্যাটে টুর্নামেন্ট আয়োজনের প্রস্তাব ইসিবির

ক্রিকেটের নতুন সংস্করণ চালুর পরিকল্পনা করছে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট ...

নওগাঁয় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

নওগাঁয় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় তিন মোটরসাইকেল আরোহী নিহত ...

‘তিন ছাত্রীকে অভিভাবকের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে’

‘তিন ছাত্রীকে অভিভাবকের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) কবি সুফিয়া কামাল হল থেকে বৃহস্পতিবার গভীর ...

মাদারীপুরে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে ১৫

মাদারীপুরে প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগের প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে ১৫

মাদারীপুরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে ...

ঘরে মোরগ ঢোকায় ৩ জনকে পিটুনি

ঘরে মোরগ ঢোকায় ৩ জনকে পিটুনি

ঘরে মোরগ প্রবেশ করায় মোরগের মালিকসহ তার পরিবারের তিন সদস্যকে ...

তমা মির্জার চার চলচ্চিত্র

তমা মির্জার চার চলচ্চিত্র

চলতি বছরে চারটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র ...

৭শ’ বছরের গাছ বাঁচাতে স্যালাইন!

৭শ’ বছরের গাছ বাঁচাতে স্যালাইন!

ভারতের হায়দরাবাদের তেলেঙ্গনাতে একটি সাতশ বছরের পুরনো বট গাছকে পোকমাকড়ের ...