চিঠিপত্র

প্রকাশ: ১৪ জানুয়ারি ২০১৮      

বৃক্ষ নিধন নয়

সম্প্রতি যশোর-বেনাপোল ৩৮ কিলোমিটার রাস্তা সম্প্রসারণের নামে দুই হাজারের বেশি গাছ কাটার সিদ্ধান্ত হয়েছে। যশোর শহরের দড়াটানা মোড় থেকে বেনাপোল পর্যন্ত সড়কটির দুই পাশে দুই হাজারেরও বেশি গাছ আছে। এখানে শতবর্ষী অনেক রেইনট্রি আছে। সীমান্তের ওপারে এই সড়কটি পরিচিত 'যশোর রোড' নামে। সীমান্তের ওপারেও রাস্তা চওড়া হয়েছে, কিন্তু একটা গাছও কাটা হয়নি। আমাদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসেও এ সড়কটির রয়েছে ঐতিহাসিক অবস্থান। লাখ লাখ শরণার্থী ভারতে গিয়েছিল এই সড়ক ধরে।

মুক্তিযুদ্ধের সময় মার্কিন কবি অ্যালেন গিন্সবার্গ যুদ্ধ-এলাকা পরিদর্শন করেছিলেন। ফিরে গিয়ে তিনি লিখেছিলেন তার ঐতিহাসিক কবিতা 'সেপ্টেম্বর অন যশোর রোড'। স্মৃতিবিজড়িত এই রাস্তাটি ৪ লেনে উন্নীত করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। কিন্তু আমাদের শঙ্কা হলো, চার লেন করার জন্য রাস্তার দুই পাশে থাকা ২ হাজার ৩১২টি গাছ কেটে ফেলার সিদ্ধান্ত সিদ্ধান্ত হয়েছে। উন্নয়নের জন্য শতবর্ষী এই গাছগুলো কেটে ফেলা হবে একটি আত্মধ্বংসী উদ্যোগ। এসব গাছ না কেটেও রাস্তা চওড়া করা যায় কি-না তা আরেকবার ভাবার প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছে। বৃক্ষ ও মানুষ একে অপরের পরিপূরক।

আবদুল্লাহ আল মাউন, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা
বাংলাদেশে যখন গড় আয়ু ছিল ৫০ বছর, তখন চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা করা হয়েছিল ৩০ বছর। বর্তমানে গড় আয়ু ৭২ বছর, অথচ সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩০ বছরেই আটকে আছে। দেশে লাখ লাখ বেকার বয়সের মারপ্যাঁচে চাকরি পাচ্ছে না। মহামান্য রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ স্পিকার থাকা অবস্থায় চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ বছর করার যুক্তি দেখিয়েছিলেন। সবার প্রাণের দাবি চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ বছর করা হোক, যাতে মেধাবী বেকাররা তাদের মেধা যাচাইয়ে সরকারি চাকরিতে প্রবেশ করে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে পারেন। এ ব্যাপারে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করছি।

মুন্নাফ হোসেন, ফুলবাড়িয়া, ময়মনসিংহ



পিরোজপুরে রেল সংযোগ চাই

দেশের দক্ষিণের এক জেলা শহর পিরোজপুর। এ জেলার ব্যাপক উন্নয়নে প্রয়োজন রেললাইন স্থাপন ও পিরোজপুরের পাড়েরহাটে নদীবন্দর গড়ে তোলা। রেল সংযোগ ও বন্দর স্থাপিত হলে পিরোজপুরে ব্যবসা-বাণিজ্যের সমৃদ্ধি ঘটবে। ব্যাপক কর্মসংস্থানের সুযোগও হবে। নেপাল ও ভুটানের পক্ষে মোংলা বন্দরের পরিবর্তে পাড়েরহাটকে লাইটারেজ বন্দর হিসেবে ব্যবহার করাও সহজ হয়ে উঠবে। শুধু তাই নয়, ভারী শিল্পযন্ত্র পরিবহনের মাধ্যমে ব্যাপক শিল্পায়নের সুযোগ সৃষ্টি হবে। পাশাপাশি বৈদেশিক বাণিজ্য বৃদ্ধি পাবে এবং নতুন নতুন ব্যবসার ক্ষেত্রও তৈরি হবে। পাড়েরহাটে বন্দর হলে এ বন্দরকে ২৪ ঘণ্টা সচল রাখতে পাওয়ার স্টেশন বা বড় জেনারেটর স্থাপনের প্রয়োজন হবে। এতে পিরোজপুর জেলা শহরে সরাসরি বিদ্যুৎ পাওয়ারও সুযোগ ঘটবে। উল্লেখ্য, পিরোজপুরের কাছাকাছি পাটগাতি পর্যন্ত রেললাইন সম্প্রসারণ কাজ ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে। তাই এর সম্প্রসারণ পিরোজপুর পর্যন্ত হবে- এটাই প্রত্যাশা। সরকারের স্ব স্ব বিভাগ বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করতে পারে।

লিয়াকত হোসেন খোকন, রূপনগর, ঢাকা

ফুট ওভারব্রিজ স্থাপন করুন
বাংলাদেশের জনগণ বেশিরভাগ সময় হেঁটে বা বিভিন্ন যানবাহনে গন্তব্যে পৌঁছে। সে অবস্থা ঢাকাতেও। ঢাকার দুটি জনবহুল সড়ক হচ্ছে টিভি সেন্টার ও বিজয় সরণি। এই জনবহুল পথে জনগণের পারাপারের সময় যানজটের সৃষ্টি হয়; দুর্ঘটনাও ঘটতে পারে। রামপুরা টিভি সেন্টারের ওখান দিয়ে যাত্রাবাড়ী, শনির আখড়া থেকে শুরু করে মাদারটেক, নন্দিপাড়া, মেরাদিয়া, গোরান প্রজেক্ট এবং রামপুরা প্রজেক্টের বহু গাড়ি ২৪ ঘণ্টা চলাচল করছে।

এমনকি উত্তরা, গুলশান, তেজগাঁও থেকে শুরু করে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে চলাচল করছে। এই ত্রিকোণ রাস্তার পুলিশ বক্স থেকে উল্টোদিকে হাতিরঝিলের ওপরে ওভারব্রিজ স্থাপন করলে যানজটের কিছুটা নিরসন এবং জনগণের চলাফেরার সুবিধা হতো। আরও একটি ব্যস্ততম সড়ক হচ্ছে বিজয় সরণি। এখান দিয়ে সব সময় দেশের নেত্রীসহ বিভিন্ন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা চলাফেরা করেন। সে স্থানে একটি চতুষ্পদ ওভারব্রিজ স্থাপন খুবই প্রয়োজন। এ দুটি ওভারব্রিজ তৈরি হলে জনগণের চলাচলের সুবিধা ও যানজটও

কিছু অংশে কমে আসত। সংশ্নিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ, রামপুরা ও বিজয় সরণির ওপর একটি ওভারব্রিজ করে জনগণের চলাচল সহজ করুন।

সাইদ উদ্দিন চাকলাদার জলি, মাদারটেক, ঢাকা

পরবর্তী খবর পড়ুন : সঞ্চয়ের সেকাল-একাল

জনগণের ঐক্য ব্যর্থ হয় না

জনগণের ঐক্য ব্যর্থ হয় না

দেশ ও গণতন্ত্রের প্রয়োজনে জনগণের ঐক্য কখনও ব্যর্থ হয় না- ...

'চ্যালেঞ্জ' নিয়েই মাঠে নামছে টাইগাররা

'চ্যালেঞ্জ' নিয়েই মাঠে নামছে টাইগাররা

থ্যাংকলেস জব! খেলার জগতে শব্দটা ব্যবহার করা হয় আম্পায়ার বা ...

সাপের 'বিষে' বিষ নেই

সাপের 'বিষে' বিষ নেই

রাজধানীর কুড়িল বিশ্বরোড থেকে গত বছরের এপ্রিলে সাপের বিষ পাচারে ...

আফগানিস্তানে নির্বাচন ঘিরে ব্যাপক সহিংসতা

আফগানিস্তানে নির্বাচন ঘিরে ব্যাপক সহিংসতা

আফগানিস্তানের পার্লামেন্ট নির্বাচন ঘিরে দেশজুড়ে ব্যাপক সহিংসতা হয়েছে। শনিবার অনুষ্ঠিত ...

স্বামী-সন্তানের সামনেই লাশ হলেন রুমা

স্বামী-সন্তানের সামনেই লাশ হলেন রুমা

রাজধানীর মিরপুরের মধ্য পাইকপাড়ার বাসা থেকে চিকিৎসার জন্য চিকিৎসকের কাছে ...

মহাকাশে 'নকল চাঁদ' বসাবে চীনা কোম্পানি

মহাকাশে 'নকল চাঁদ' বসাবে চীনা কোম্পানি

রাতের আকাশের উজ্জ্বলতা বাড়াতে মহাকাশে একটি ফেক মুন বা নকল ...

সংসদের শেষ অধিবেশন শুরু রোববার

সংসদের শেষ অধিবেশন শুরু রোববার

দশম জাতীয় সংসদের ২৩তম অধিবেশন শুরু হচ্ছে রোববার। স্পিকার ড. ...

ইয়াবা বহনের অভিযোগে সোহাগ পরিবহনের বাসচালক গ্রেফতার

ইয়াবা বহনের অভিযোগে সোহাগ পরিবহনের বাসচালক গ্রেফতার

রাজধানীর মালিবাগ এলাকা থেকে সোহাগ পরিবহনের একটি বাসের চালককে গ্রেফতার ...