অপহৃত বিজিবি সদস্যের সঙ্গে অমানবিক আচরণ মিয়ানমারে

প্রকাশ: ২০ জুন ২০১৫      

কক্সবাজার অফিস

অপহৃত বিজিবি সদস্যের সঙ্গে অমানবিক আচরণ মিয়ানমারে

মিয়ানমারে আটক বিজিবি সদস্য আবদুর রাজ্জাক সংগৃহীত

কক্সবাজারের টেকনাফে নাফ নদী থেকে অপহৃত বিজিবি সদস্য নায়েক রাজ্জাকের সঙ্গে অমানবিক আচরণ করছে মিয়ানমার। বিনা চিকিৎসায় আহত এই বিজিবি সদস্যকে হাতকড়া পরিয়ে আটকে রাখা হয়েছে। যা আন্তর্জাতিক রীতিনীতির পরিপন্থি এবং আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সনদের চরম লঙ্ঘন বলে এর কড়া প্রতিবাদ জানিয়েছে বিজিবি। এদিকে অপহৃত বিজিবি সদস্যকে গতকাল শুক্রবারও ফেরত দেয়নি মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপি।
টেকনাফে বিজিবি ৪২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল আবু জার আল জাহিদ জানিয়েছেন, মিয়ানমারে আটক বিজিবি সদস্যকে ফেরত আনার বিষয়ে পতাকা বৈঠকের জন্য বারবার প্রস্তাব পাঠানো হলেও মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ এতে সাড়া দেয়নি। শুক্রবার যে কোনো সময় পতাকা বৈঠক হতে পারে বলে আগে জানানো হয়েছিল।
বিজিবি
অধিনায়ক বলেন, এর আগে বৃহস্টপতিবার সকাল ১০টায় টেকনাফ স্থলবন্দর রেস্ট হাউসে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। ওই বৈঠকে মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বিজিপির হেফাজতে থাকা নায়েক রাজ্জাককে ফেরত দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু মিয়ানমারের পক্ষ থেকে বৈঠকের ব্যাপারে এ পর্যন্ত সবুজ সংকেত মেলেনি।
মিয়ানমারে আটক বিজিবির নায়েক রাজ্জাকের একটি ছবি ইন্টারনেটে প্রকাশ করেছে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপি। তাকে মিয়ানমারের একটি সীমান্ত ক্যাম্পে হাতকড়া পরানো অবস্থায় আটকে রাখা হয়েছে। ছবিতে দেখা গেছে নায়েক রাজ্জাকের মুখমণ্ডলে রক্তের দাগ। তার সামনে রাখা আছে একটি এম ২২ রাইফেল, গুলি, ৪টি মোবাইল সেট, একটি দা, একটি ছুরি ও দুটি টর্চলাইট।
একটি দেশের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যকে নির্যাতন ও বিনা চিকিৎসায় হাতকড়া পরিয়ে এভাবে আটকে রাখা মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন এবং এ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বিজিবি।
গত বুধবার সকালে নাফ নদীতে বাংলাদেশের জলসীমায় মৎস্য শিকাররত দুটি নৌকায় তল্লাশি চালায় ওই এলাকায় টহলরত বিজিবির একটি দল। এ সময় মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিজিপি পূর্বদিক থেকে একটি ট্রলারে এসে বিজিবির টহল দলের নৌকায় বেপরোয়া গুলি চালায়। এতে বিজিবির সিপাহী বিপ্লব কুমার (২১) গুলিবিদ্ধ হন। একপর্যায়ে আহত বিপ্লব কুমারকে নিয়ে বিজিবি দল নিরাপদ অবস্থানে সরে এলেও নায়েক আবদুর রাজ্জাককে অপহরণ করে নিয়ে যায় মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী।




পরবর্তী খবর পড়ুন : প্রথম দশ দিন রহমতের

'আর কারও সন্তান যেন জঙ্গি না হয়'

'আর কারও সন্তান যেন জঙ্গি না হয়'

'আমি হতভাগ্য পিতা, আবার হতভাগ্য দাদাও। জঙ্গিবাদের বিষবাষ্প আমার সন্তান ...

১২ অস্ত্রধারী চিহ্নিত

১২ অস্ত্রধারী চিহ্নিত

নারায়ণগঞ্জে হকার ইস্যুতে গত মঙ্গলবারের সহিংস ঘটনায় ১২ অস্ত্রধারীকে চিহ্নিত ...

আবাসন কোম্পানির কব্জায় সরকারি সম্পত্তি

আবাসন কোম্পানির কব্জায় সরকারি সম্পত্তি

সাভারে শুধু ব্যক্তি পর্যায়ে নয়, অবাধে দখল হচ্ছে সরকারি জমিও। ...

 দুর্গাসাগরে এসেই ফিরে গেল অতিথি পাখিরা

দুর্গাসাগরে এসেই ফিরে গেল অতিথি পাখিরা

দীর্ঘ এক দশক পর দুর্গাসাগরে এসেছিল একঝাঁক অতিথি পাখি। তবে ...

 নির্ভার আওয়ামী লীগ বিএনপিতে দুশ্চিন্তা

নির্ভার আওয়ামী লীগ বিএনপিতে দুশ্চিন্তা

চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা) আসনে বর্তমান এমপি ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ। ...

সেই রশিদ তবুও মন্ত্রণালয়ের সুনজরে

সেই রশিদ তবুও মন্ত্রণালয়ের সুনজরে

কুষ্টিয়ার গুদামগুলোতে ধারণ ক্ষমতা না থাকলেও নতুন করে এখানে আমন ...

জিতলেই ফাইনালে জিম্বাবুয়ে, শ্রীলংকার টিকে থাকার লড়াই

জিতলেই ফাইনালে জিম্বাবুয়ে, শ্রীলংকার টিকে থাকার লড়াই

ঢাকায় নামার পরদিন চন্ডিকা হাথুরুসিংহেকে এক গণমাধ্যমকর্মী প্রশ্ন করেছিলেন, গত ...

এ সপ্তাহেই প্রধান বিচারপতি নিয়োগ হতে পারে

এ সপ্তাহেই প্রধান বিচারপতি নিয়োগ হতে পারে

চলতি সপ্তাহে প্রধান বিচারপতি নিয়োগ দেওয়া হতে পারে। কে হচ্ছেন ...