প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এরশাদের বৈঠক

প্রকাশ: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক করেছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। তাদের মধ্যে নির্বাচনকালীন সরকার ও আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে আলোচনা হয়েছে। গতকাল রোববার জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এ বৈঠক হয়। জাতীয় পার্টির নির্ভরযোগ্য সূত্র সমকালকে এ তথ্য জানিয়েছে।

জাপার এমপি সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা বৈঠকের সত্যতা নিশ্চিত  করে সমকালকে জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী ও জাপার চেয়ারম্যান সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা থেকে দেড় ঘণ্টা কথা বলেন। বৈঠকে কী বিষয়ে আলোচনা হয়েছে তা জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন তিনি।

জাপার মহাসচিব এবিএম রুহুল আমীন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য পরিবেশমন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ ও জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু বৈঠক উপস্থিত ছিলেন বলে জাপা সূত্র নিশ্চিত করেছে। তবে তারা কেউ বৈঠকের আলোচনা সম্পর্কে কথা বলতে রাজি হননি।

বৈঠকে আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ নেতাদের কেউ ছিলেন না বলে জানা গেছে। জাপার এমপিরা জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর এরশাদ তাদের আলোচনার বিষয়বস্তু সম্পর্কে জানাননি। তবে তাদের ধারণা, এরশাদকে মহাজোটে ধরে রাখতে আগেভাগেই উদ্যোগী হয়েছে সরকারি দল।

তবে জাপা চেয়ারম্যানের ঘনিষ্ঠ সূত্র সমকালকে জানিয়েছে, নির্বাচনকালীন সরকার ও আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে বৈঠকে কথা হয়েছে। এরশাদ প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়েছেন, তার দল নির্বাচনকালীন সরকারে থাকবে। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী যে সিদ্ধান্ত নেবেন তা মেনে নেবে জাপা। প্রধানমন্ত্রীর ওপরই বিষয়টি ছেড়ে দিয়েছেন এরশাদ।

২০০৬ সাল থেকে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন জোটে রয়েছে জাপা। ২০০৮ সালে জোটবদ্ধ নির্বাচন করে দলটি। ২০১৩ সালের অক্টোবরে মহাজোট ছাড়ার ঘোষণা দেন এরশাদ। নির্বাচনকালীন সরকারে যোগ না দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন ক্ষণে ক্ষণে অবস্থান বদলের জন্য আলোচিত-সমালোচিত এরশাদ। আগের কথা থেকে সরে এসে পরে নির্বাচনকালীন সরকারে যোগ দেয় জাপা। ভাগে পায় ছয়জন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী।

বর্তমান মন্ত্রিসভায় জাপার তিনজন সদস্য রয়েছেন। নির্বাচনকালীন সরকারে তা বাড়তে পারে। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সম্প্রতি জানিয়েছেন, ২৯ অক্টোবরের পর নির্বাচনকালীন সরকার গঠিত হবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে। সেই সরকারে কে কে থাকবেন, তা প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ার।

জাপা সূত্র জানিয়েছে, গতকালের বৈঠকে এরশাদ নির্বাচনকালীন সরকারে অংশীদারিত্বের চেয়ে জোর দেন নির্বাচনে আসন ভাগাভাগি নিয়ে। জাপার কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের সমকালকে জানিয়েছেন, তাদের এখন পর্যন্ত সিদ্ধান্ত বিএনপি নির্বাচনে অংশ না নিলে এককভাবে ভোটে অংশ নেবে জাপা। ৩০০ আসনে প্রার্থী দেবে। তবে বিএনপি ভোটে অংশ নিলে আওয়ামী লীগের সঙ্গে জোটের সম্ভাবনা প্রবল।

বিএনপি ভোটে এলে, আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের জোট থেকে ৮০টি আসন চায় জাপা। জাপা সূত্র জানিয়েছে, গতকালের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন আসন ভাগাভাগি নিয়ে সমস্যা হবে না। এ নিয়ে পরবর্তী সময়ে আলোচনা হবে।





সারা বিশ্বে ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে ত্রুটি

সারা বিশ্বে ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে ত্রুটি

বাংলাদেশসহ বিশ্বের কয়েকটি দেশে মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে প্রবেশ ...

ঢালাও অভিযোগে ব্যবস্থা নেওয়ার সুযোগ নেই: ইসি সচিব

ঢালাও অভিযোগে ব্যবস্থা নেওয়ার সুযোগ নেই: ইসি সচিব

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে সরকারবিরোধী জোট জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রধান ...

নির্বাচনে কোনো প্রার্থীকে সমর্থন দেবে না হেফাজত: শফী

নির্বাচনে কোনো প্রার্থীকে সমর্থন দেবে না হেফাজত: শফী

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কোনো প্রার্থীকে সমর্থন দেবে না হেফাজতে ...

ভোটযুদ্ধের সর্বাত্মক প্রস্তুতি নিন: ফখরুল

ভোটযুদ্ধের সর্বাত্মক প্রস্তুতি নিন: ফখরুল

ভোটকেন্দ্রে যাওয়ার আন্দোলনেই দেশে স্বাধীন মানুষের পতাকা উড়বে বলে জানিয়েছেন ...

বর্ণচোরাদের ভোটে জবাব দেবে জনগণ: নাসিম

বর্ণচোরাদের ভোটে জবাব দেবে জনগণ: নাসিম

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ ...

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বি চৌধুরীর বৈঠক

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বি চৌধুরীর বৈঠক

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক করেছেন ...

২২৪ আসনে জাসদের প্রার্থী চূড়ান্ত

২২৪ আসনে জাসদের প্রার্থী চূড়ান্ত

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) ২২৪ আসনে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে। ...

বিএনপি নেতা রফিকুল ইসলাম মিয়া গ্রেফতার

বিএনপি নেতা রফিকুল ইসলাম মিয়া গ্রেফতার

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়াকে গ্রেফতার করা ...