শ্রম আইনের প্রস্তাবিত সংশোধন নিয়ে আপত্তি

প্রকাশ: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

মন্ত্রিসভায় অনুমোদিত শ্রম আইনের সংশোধনী নিয়ে আপত্তি তুলেছে শ্রমিক সংগঠনগুলো। শ্রমিক নেতাদের অভিযোগ, প্রস্তাবিত সংশোধনীতে ট্রেড ইউনিয়ন গঠনে কারখানার শ্রমিকের স্বাক্ষর থাকার বাধ্যবাধকতা বড় কারখানার ক্ষেত্রে কিছু শিথিল হলেও ছোট কারখানার ক্ষেত্রে শর্তগুলো আগের মতোই আছে। ক্ষতিপূরণের পরিমাণও নির্ধারণ করা হয়েছে অত্যন্ত কম, মাত্র দুই লাখ টাকা। এ রকম আরও কিছু বিষয়ে আপত্তি জানিয়ে শ্রমিকদের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে স্মারকলিপি দেওয়া হবে। স্মারকলিপিতে তৈরি পোশাক কারখানায় ১৬ হাজার টাকার নূ্যনতম মজুরির দাবিও তুলে ধরা হবে।

গত ৩ সেপ্টেম্বর শ্রম আইনের সংশোধনী 'বাংলাদেশ শ্রম (সংশোধন) আইন, ২০১৮'-এর খসড়ায় নীতিগত অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা। এতে শ্রমিকদের স্বাধীন ট্রেড ইউনিয়ন চর্চা এবং ট্রেড ইউনিয়ন গঠন প্রক্রিয়া সহজ করার স্বার্থে কারখানার ২০ শতাংশ শ্রমিকের সম্মতিতেই ট্রেড ইউনিয়ন গঠন করার সুযোগ রয়েছে। ট্রেড ইউনিয়ন নিবন্ধনে হয়রানি বন্ধ করতে আবেদন পাওয়ার সর্বোচ্চ ৫৫ দিনের মধ্যেই নিবন্ধন দেওয়ার বাধ্যবাধকতাও রাখা হয়েছে।

ট্রেড ইউনিয়নের নিবন্ধন দেয় সরকারের শ্রম অধিদপ্তর। এ প্রতিষ্ঠানের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, পোশাক খাতে বর্তমানে ৬৬০টি ট্রেড ইউনিয়ন আছে। বাংলাদেশ গার্মেন্টস অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল ওয়ার্কার্স ফেডারেশনের সভাপতি বাবুল আক্তার গতকাল সমকালকে বলেন, নিবন্ধিত এই ট্রেড ইউনিয়নগুলো বেশিরভাগ কারখানার মালিকরা নিজেরাই করেছেন। কিছু আছে মালিকদের অনুগত শ্রমিক নেতাদের। প্রকৃত ট্রেড ইউনিয়নের সংখ্যা ৫০টির বেশি নয়। তিনি বলেন, ট্রেড ইউনিয়ন নিবন্ধন নিয়ে শ্রম আইনের খসড়ায় শুভঙ্করের ফাঁকি রাখা হয়েছে। বড় কারখানার ক্ষেত্রে ২০ শতাংশ শ্রমিকের তথ্য থাকার কথা বলা হলেও ছোট কারখানার ক্ষেত্রে আগের মতোই ৩০ শতাংশের শর্ত রয়েছে। আগের সংশোধনীতে ট্রেড ইউনিয়ন নিবন্ধনের ক্ষেত্রে নিবন্ধকের সন্তুষ্ট হওয়ার যে শর্ত ছিল, এবারও তা রাখা হয়েছে। এসব বিষয়ে করণীয় নির্ধারণে ইন্ডাস্ট্রিঅল বাংলাদেশ কাউন্সিল (আইবিসি) পোশাক খাতের গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের নিয়ে শনিবার বৈঠক হয়েছে। বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে স্মারকলিপি দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

বর্তমান আইনে কোনো কারখানায় ট্রেড ইউনিয়ন গঠন করতে হলে কমপক্ষে ৩০ শতাংশ শ্রমিকের যাবতীয় তথ্য দিয়ে আবেদন করতে হয়। শ্রমিকদের অভিযোগ, এত বেশি শ্রমিকের সম্মতি জোগাড় করা কঠিন।
তবুও জামায়াত ছাড়বে না বিএনপি

তবুও জামায়াত ছাড়বে না বিএনপি

জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতাদের দাবিতে জামায়াতকে ত্যাগ করবে না বিএনপি। ...

সাত বিভাগীয় শহরে হবে সাইবার ট্রাইব্যুনাল

সাত বিভাগীয় শহরে হবে সাইবার ট্রাইব্যুনাল

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের অধীনে সংঘটিত অপরাধের বিচার দ্রুত ...

১৯৩ দেশই ভ্রমণ করবেন নাজমুন

১৯৩ দেশই ভ্রমণ করবেন নাজমুন

লাল-সবুজের পতাকা হাতে পৃথিবীর পথে এখনও হেঁটে চলেছেন নারী পরিব্রাজক ...

বঞ্চনার শেষ নেই শিক্ষা ক্যাডারে

বঞ্চনার শেষ নেই শিক্ষা ক্যাডারে

মানিকগঞ্জের সরকারি দেবেন্দ্র কলেজের অধ্যক্ষ সাইদুর রহমান ১৪তম বিসিএসের কর্মকর্তা। ...

বেদেপল্লীর বাতাসে এখনও পোড়া গন্ধ

বেদেপল্লীর বাতাসে এখনও পোড়া গন্ধ

পিচঢালা পথের যেখানে শেষ, সেখান থেকেই শুরু বেদেপল্লীতে প্রবেশের রাস্তা। ...

শেষবেলায় আ'লীগের চমক ড. ফরাসউদ্দিন?

শেষবেলায় আ'লীগের চমক ড. ফরাসউদ্দিন?

নির্বাচন কমিশনের পরিকল্পনা অনুযায়ী আর মাত্র তিন মাস পর একাদশ ...

জঙ্গিদের বোমা নিষ্ক্রিয় করবে 'যন্ত্রমানব'

জঙ্গিদের বোমা নিষ্ক্রিয় করবে 'যন্ত্রমানব'

হঠাৎ খবর এলো, জঙ্গিরা উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন বোমা নিয়ে আস্তানায় অবস্থান ...

শেখর-রোহিতের সেঞ্চুরিতে উড়ে গেল পাকিস্তান

শেখর-রোহিতের সেঞ্চুরিতে উড়ে গেল পাকিস্তান

দুবাইয়ের খবর অনুযায়ী, ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের টিকিট বিক্রি হয়নি ভালো। আয়ের ...