এমপ্লয়মেন্ট ইনজুরি স্কিমের প্রস্তাব আইএলওর

প্রকাশ: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

শিল্প-কারখানার দুর্ঘটনায় ক্ষতিপূরণ নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে বিতর্ক চলছে। শ্রমিক সংগঠনগুলোর দাবি- এক জীবনকাল আয়ের সমপরিমাণ ক্ষতিপূরণ। শ্রম আইনে ক্ষতিপূরণের পরিমাণ মাত্র এক লাখ টাকা। সম্প্রতি মন্ত্রিসভায় অনুমোদিত শ্রম আইনের সংশোধনীতে এ পরিমাণ বাড়িয়ে দুই লাখ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে। সংসদের চলতি অধিবেশনে সংশোধিত শ্রম আইন পাস হওয়ার কথা। এর মধ্যেই গতকাল বুধবার আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও) শ্রমিকদের ক্ষতিপূরণ নিশ্চিত করতে 'এমপ্লয়মেন্ট ইনজুরি স্কিম' চালুর প্রস্তাব দিয়েছে। এ স্কিম চালু করলে ক্ষতিপূরণে সযোগিতা দেওয়া হবে সংস্থার পক্ষ থেকে।

গতকাল শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নুর সঙ্গে বৈঠকে এ প্রস্তাব দেন আইএলওর এমপ্লয়মেন্ট ইনজুরি অ্যান্ড ইনস্যুরেন্স প্রোটেকশন বিভাগের পরিচালক অ্যান ডরুইন। শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ে ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

এমপ্লয়মেন্ট ইনজুরি স্কিম হচ্ছে এমন এক ব্যবস্থা, যেখানে শ্রমিক-কর্মচারীদের মাসিক বেতনের সঙ্গে বেসিক অনুযায়ী বাড়তি একটা অর্থ দেবেন মালিক পক্ষ। এই অর্থেই দুর্ঘটনায় হতাহতদের যাবতীয় ক্ষতিপূরণ মেটানো হবে। দুর্ঘটনার পর আর অতিরিক্ত ক্ষতিপূরণ দিতে হবে না। জার্মানিসহ কয়েকটি দেশে এ ধরনের স্কিম চালু আছে। বাংলাদেশে এই স্কিমের সম্ভাব্যতা যাচাই করা হচ্ছে। এতে সব ধরনের সহযোগিতা দিতে রাজি আছে আইএলও বলে সংশ্নিষ্টরা জানান।

বৈঠক শেষে শ্রম প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, এমপ্লয়মেন্ট ইনজুরি স্কিম সংক্রান্ত আইএলওর কাগজপত্র নিয়ে সরকার আলোচনা করবে। এতে সংশ্নিষ্টদের মতামত নেওয়া হবে। তবে নির্বাচনের আগে এসবের কিছুই হবে না। তা ছাড়া বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থায় এখনই ইনজুরি স্কিম চালু করার মতো পরিবেশ-পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। কারখানার মালিকরা এখনও এ বিষয়ে প্রস্তুত নন।

গত বছর এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও এমপ্লয়মেন্ট ইনজুরি স্কিম চালুর ওপর জোর দেন। তাজরীন ফ্যাশনসে অগ্নিকা ও রানা প্লাজায় ধস প্রসঙ্গ টেনে ওই অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, বড় ধরনের দুর্ঘটনায় ক্ষতিপূরণের ক্ষেত্রে বিপুল অর্থ প্রয়োজন। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের উপায় হলো দীর্ঘ মেয়াদি ও টেকসই এমপ্লয়মেন্ট ইনজুরি স্কিম চালু করা।

শ্রম আইন প্রসঙ্গে শ্রম প্রতিমন্ত্রী বলেন, কারখানায় ট্রেড ইউনিয়ন গঠনে ৩০ শতাংশ শ্রমিকের সমর্থন প্রয়োজন হয়। এ হার কমিয়ে ১০ শতাংশ করার প্রস্তাব করেছিল আইএলও। তবে সংশোধিত শ্রম আইনে তা ২০ শতাংশ করা হচ্ছে। শ্রম আইনে যে ৪৯টি সংশোধনী আনা হচ্ছে, তার সবই শ্রমিকদের পক্ষে।
নাটোরে নির্মাণাধীন ড্রেনে আবারও মিললো গ্রেনেড

নাটোরে নির্মাণাধীন ড্রেনে আবারও মিললো গ্রেনেড

নাটোর শহরে নির্মাণাধীন ড্রেন থেকে আরও একটি গ্রেনেড উদ্ধার করা ...

ঢাকায় সাপের দংশনে প্রাণ গেল কলেজছাত্রের

ঢাকায় সাপের দংশনে প্রাণ গেল কলেজছাত্রের

ঢাকার ধামরাইয়ের রামদাইল গ্রামে বিষাক্ত সাপের দংশনে দেলোয়ার হোসেন সোহাগ ...

শেষের রোমাঞ্চে হার আফগানদের

শেষের রোমাঞ্চে হার আফগানদের

এখন পর্যন্ত এশিয়া কাপের সবচেয়ে রোমাঞ্চকর ম্যাচ উপহার দিয়েছে পাকিস্তান-আফগানিস্তান। ...

ভারতের কাছেও বড় হার বাংলাদেশের

ভারতের কাছেও বড় হার বাংলাদেশের

পরপর দুই ম্যাচে বড় হারের স্বাদ পেয়েছে বাংলাদেশ। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ...

বরিশালে ইউপি চেয়ারম্যানকে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা

বরিশালে ইউপি চেয়ারম্যানকে প্রকাশ্যে গুলি করে হত্যা

বরিশালের উজিরপুর উপজেলার জল্লাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিশ্বজিৎ হালদার নান্টুকে ...

দুবাই যাচ্ছেন সৌম্য-ইমরুল

দুবাই যাচ্ছেন সৌম্য-ইমরুল

ড্রেসিংরুম থেকেই জরুরি তলব ঢাকায়-ওপেনিংয়ে কিছুই হচ্ছে না। সৌম্য সরকারকে ...

খালেদা জিয়ার সঙ্গে স্বজনদের সাক্ষাৎ

খালেদা জিয়ার সঙ্গে স্বজনদের সাক্ষাৎ

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেছেন তার পরিবারের সদস্যরা। ...

'নায়ক' গেলো সেন্সরে

'নায়ক' গেলো সেন্সরে

ঢাকাই ছবির জনপ্রিয় নায়ক বাপ্পি ও নবাগতা অধরা খান জুটির ...