ছাড় দিয়ে হলেও জাতীয় ঐক্য গড়তে চায় ২০ দলীয় জোট

প্রকাশ: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

জোট নেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তি, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলন এবং সরকারের বাইরে থাকা সব রাজনৈতিক দল ও সংগঠনকে নিয়ে জাতীয় ঐক্য গড়ার বিষয়ে বৈঠক করেছেন বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট নেতারা। বৈঠকে কিছু ছাড় দিয়ে হলেও বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার বিষয়ে জোট নেতারা একমত পোষণ করেন।

রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে গতকাল রোববার সন্ধ্যা ৭টা থেকে দেড় ঘণ্টাব্যাপী এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে সাম্প্রতিক রাজনীতির প্রেক্ষাপটে জাতীয় ঐক্য গড়ার বিষয়ে নিজেদের মত তুলে ধরেন বিএনপি নেতারা। এ বিষয়ে জোটের শরিক রাজনৈতিক দলগুলোও নিজেদের মতামত তুলে ধরে। জোটভুক্ত বিভিন্ন দলের নেতারা জানান, জাতীয় ঐক্য গঠনে তাদের আপত্তি নেই। কিন্তু বিএনপি জোটকে উপেক্ষা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিচ্ছে।

তাদের এমন বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে বিএনপি নেতারা জানান, জোট কিংবা ঐক্য গড়ে ওঠার প্রক্রিয়ার আগে অনেক ধরনের শর্ত আসে, প্রস্তাব আসে। কিন্তু চূড়ান্ত পর্যায়ে তার অনেক কিছু কাটছাঁটও হয়। আগামী জাতীয় নির্বাচনে একটি দলের দেড়শ' আসন  চাওয়া কিংবা দুই বছরের জন্য ক্ষমতার ভাগাভাগি- এ ধরনের বক্তব্য কোনো কোনো নেতার নিজস্ব ব্যক্তিগত মতামত। এটি যুক্তফ্রন্ট কিংবা গণফোরামের বক্তব্য নয়। এ সময় বিএনপির মহাসচিব জোটের নেতাদের বলেন, যাই হোক না কেন- জোটের সঙ্গে আলোচনা করেই জাতীয় ঐক্যের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। বিএনপি মহাসচিবের এমন আশ্বাসে জোট নেতারাও জাতীয় ঐক্যের বিষয়ে ছাড় দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

বৈঠকের পর জোটের সমন্বয়ক ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান সংবাদমাধ্যমকে জানান, ২০ দল সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য গঠনে সম্মত হয়েছে। এ বিষয়ে খালেদা জিয়া কারাগারে যাওয়ার আগে জাতীয় ঐক্যের যে কথা বলেছেন, তাতেও সমর্থন জানিয়েছেন জোটের নেতৃবৃন্দ।

তিনি জানান, বৈঠকে খালেদা জিয়াকে ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসার জোর দাবি জানানো হয়। তাকে চিকিৎসা না দেওয়ায় সরকারের তীব্র সমালোচনা করা হয়েছে। প্রশাসনিক সিদ্ধান্তে খালেদা জিয়াকে মুক্তি না দেওয়ার কঠোর সমালোচনা করা হয়। খালেদা জিয়াসহ সব রাজবন্দির মুক্তি ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ সব রাজনৈতিক কর্মীর মিথ্যা মামলা বাতিলের দাবি জানানো হয় বৈঠক থেকে।

বৈঠক শেষে ২০ দলের শরিক দলের এক নেতা বলেন, বৈঠকের মূল আলোচনা ছিল চলমান রাজনৈতিক সংকট সমাধান, খালেদা জিয়ার মুক্তি, তার সুচিকিৎসা ও আগামী সংসদ নির্বাচন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে করার দাবি আদায়ে যে কোনো মূল্যে বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য গঠন।

আরেক শরিক দলের সভাপতি বলেন, জোটের আলোচনার মূল বিষয় ছিল বৃহত্তর ঐক্য। যে কোনো মূল্যে জাতীয় ঐক্য গঠনে ২০ দলীয় জোট সম্মত হয়েছে। এ ছাড়া জোটের ঐক্য ধরে রাখার বিষয়েও গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। বিএনপি নেতারা আগামী আন্দোলন নিয়ে জোটের অবস্থান জানতে চান। তারা জানান, সবার অংশগ্রহণে নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য তাদের সামনে আন্দোলনের কোনো বিকল্প নেই। জোটের ঐক্য অটুট রেখে আন্দোলনে অংশ নেওয়ার প্রস্তুতি নিতেও আহ্বান জানান তারা।

বৈঠকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ছাড়াও জোটের শরিক বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির (বিজেপি) চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আন্দালিব রহমান পার্থ, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীক, বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গাণি, জামায়াতে ইসলামীর মাওলানা আবদুল হালিম, এলডিপির মহাসচিব ড. রেদোয়ান আহমেদ, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মুফতি ওয়াক্কাস, নূর হোসাইন কাসেমী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।



রাজশাহী খুলনা বরিশাল ও রংপুরের ৮১ আসনে আ'লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

রাজশাহী খুলনা বরিশাল ও রংপুরের ৮১ আসনে আ'লীগের প্রার্থী চূড়ান্ত

রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল ও রংপুর বিভাগের কমপক্ষে ৮১ আসনে দলীয় ...

এমপি হতে চান ১২ হাজার!

এমপি হতে চান ১২ হাজার!

আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে এমপি হতে চান ১২ হাজারের বেশি নেতা। ...

শিক্ষকদের ভোটের 'ভেট'

শিক্ষকদের ভোটের 'ভেট'

নির্বাচনের আগেই সারাদেশের সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষকরা পেলেন বেশ কিছু ...

শেকড়ের টান উপেক্ষা করা যায় না

শেকড়ের টান উপেক্ষা করা যায় না

ইউরোপে যখন রক আর টেকনো নিয়ে মাতামাতি চলছে, ঠিক সেই ...

নতুন মুখ আসতে পারে বগুড়ার তিন আসনে

নতুন মুখ আসতে পারে বগুড়ার তিন আসনে

বগুড়ায় এবার অন্তত তিনটি আসনে ধানের শীষ প্রতীকে নতুন প্রার্থী ...

জয়পুরহাটে লেভেল ক্রসিংয়ে অল্পের জন্য বাঁচলো ৪৮ বাস যাত্রী

জয়পুরহাটে লেভেল ক্রসিংয়ে অল্পের জন্য বাঁচলো ৪৮ বাস যাত্রী

জয়পুরহাটের আক্কেলপুর পৌর এলাকার পশ্চিম আমুট্ট (মহিলা কলেজ সংলগ্ন) এলাকায় ...

সিডরে নিখোঁজের ১১ বছর পর প্রত্যাবর্তন

সিডরে নিখোঁজের ১১ বছর পর প্রত্যাবর্তন

প্রলংয়করী ঘূর্ণিঝড় সিডরে নিখোঁজের ১১ বছর পর বাড়ি ফিরেছেন শরণখোলা ...

সরকারি কাজে বাধা দেয়ায় রাবি ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতির জেল

সরকারি কাজে বাধা দেয়ায় রাবি ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতির জেল

সরকারি কাজে বাধা দেয়ার অভিযোগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক ...