আনসারের জন্য ৩০ হাজার শটগান কেনা হচ্ছে

প্রকাশ: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল প্রতিদেক

আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর জন্য ৩০ হাজার ১২ বোর শটগান এবং এসব শটগানের জন্য ৩০ লাখ কার্তুজ বা গুলি আনদানি করছে সরকার। এ জন্য সরকারের ব্যয় হবে ১৪৭ কোটি ৪৮ লাখ টাকা। এসব শটগান ও কার্তুজ ইতালি, তুরস্ক ও যুক্তরাজ্য থেকে সংগ্রহ করে সরকারকে সরবরাহ করবে মেশিন টুলস ফ্যাক্টরি।

গতকাল বুধবার সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে সরকারি ক্রয়-সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে শটগান ও গুলি আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এই প্রস্তাবসহ বৈঠকে মোট ১৩টি ক্রয় প্রস্তাবের অনুমোদন দেওয়া হয়। কমিটির সভাপতি অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। এ সময় কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব এবং সংশ্নিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোস্তাফিজুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ৩০ হাজার ১২ বোর শটগানের জন্য ব্যয় হবে ১০৯ কোটি টাকা। ৩০ লাখ কার্তুজ কেনায় ব্যয় হবে ৩৮ কোটি ৪৪ লাখ টাকা। তিনি আরও বলেন, বিভিন্ন সময় আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর জন্য এসব অস্ত্র কেনা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় এবারও কেনা হচ্ছে।

এ ছাড়া আরব আমিরাত থেকে ৫০ হাজার টন সার আমদানির দুটি ক্রয় প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। কোটেশন ইনকুয়েরির মাধ্যমে ২৫ হাজার টন ইউরিয়া সার আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ সার সরবরাহ করবে মেসার্স আরএস লিমিটেড সিঙ্গাপুর। প্রতি টনের দাম ৩০৪ দশমিক ৪১ ডলার। অতিরিক্ত সচিব বলেন, আরও একটি প্রস্তাবের মাধ্যমে ২৫ হাজার টন ইউরিয়া আমদানির প্রস্তাবে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এসব সার সরবরাহ করবে মেসার্স হাইড্রোকার্বন, ঢাকা। এ ছাড়া চলতি অর্থবছরে রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে চুক্তির মাধ্যমে কাতার থেকে আমদানি করা সারের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের একটি প্রকল্পের আওতায় ৪২০ কোটি টাকা ব্যয়ে ২ লাখ ৪ হাজার ৯৯০টি খুঁটি কেনার প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে ক্রয় কমিটি। কনটেক কনস্ট্রাকশন, পোলস অ্যান্ড কংক্রিটক্যাসেল কনস্ট্রাকশন কোম্পানি এবং বাংলাদেশ মেশিনারিজ ফ্যাক্টরি এসব খুঁটি সরবরাহ করবে বলে জানান তিনি। এ ছাড়া কমিটি আজকের বৈঠকে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের আরও আটটি ক্রয় প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে।
দেশ সংকটে পড়লে দায়ী থাকবে আওয়ামী লীগ

দেশ সংকটে পড়লে দায়ী থাকবে আওয়ামী লীগ

চলমান রাজনৈতিক সংকট নিরসনে সংলাপে বসার দাবি প্রত্যাখ্যানকে আওয়ামী লীগের ...

নামই যখন কাল

নামই যখন কাল

রুবেল দু'জন- একজন মো. রুবেল ও অন্যজন সিটি রুবেল। মো. ...

মাকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে ছেলেকে পিষে মারল বাস

মাকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে ছেলেকে পিষে মারল বাস

নিরাপদ সড়ক দিবসের নানা আয়োজন চলছিল ঢাকার রাস্তায়। সড়কে যান ...

যন্ত্র জানাবে অজ্ঞাত লাশের পরিচয়

যন্ত্র জানাবে অজ্ঞাত লাশের পরিচয়

মহাখালীর আইসিডিডিআর'বি হাসপাতাল এলাকায় মুমূর্ষু অবস্থায় পড়েছিলেন এক বৃদ্ধ। বনানী ...

অপারেটরগুলোর কলড্রপের পরিসংখ্যান দিল বিটিআরসি

অপারেটরগুলোর কলড্রপের পরিসংখ্যান দিল বিটিআরসি

মোবাইল ফোন অপারেটরগুলোর এক বছরের কলড্রপের একটি পরিসংখ্যান দিয়েছে বাংলাদেশ ...

রাজনৈতিক কর্মী দমনেই গায়েবি মামলা: ফখরুল

রাজনৈতিক কর্মী দমনেই গায়েবি মামলা: ফখরুল

রাজনৈতিক কর্মী দমনেই সরকার 'গায়েবি মামলা' করছে বলে অভিযোগ করেছেন ...

অবসরের ঘোষণা দিলেন হেরাথ

অবসরের ঘোষণা দিলেন হেরাথ

টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে সবচেয়ে সফল বাঁহাতি স্পিনারদের একজন রঙ্গনা হেরাথ। ...

বর্ণাঢ্য আয়োজনে জবির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

বর্ণাঢ্য আয়োজনে জবির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

বর্ণাঢ্য আয়োজনে ঢাকার ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) প্রতিষ্ঠার ১৩ ...