ইউজিসিতে কর্মশালায় উপাচার্যরা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক নিয়োগে অভিন্ন নীতিমালার প্রস্তাব

প্রকাশ: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ্য শিক্ষক নিয়োগে লিখিত পরীক্ষা পদ্ধতি চালু করার পরামর্শ দিয়েছেন উপাচার্যরা। একই সঙ্গে তারা শিক্ষকদের যোগ্যতাভিত্তিক পদমর্যাদা দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন সরকারের প্রতি। এ ছাড়া শিক্ষকদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে প্রশিক্ষণ ব্যবস্থা চালু করারও সুপারিশ করেন তারা।

গতকাল বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন ভবনে (ইউজিসি) আয়োজিত 'পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের শিক্ষক নিয়োগ, পদোন্নতি/পদোন্নয়ন' বিষয়ক এক কর্মশালায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিরা এসব পরামর্শ দিয়েছেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউজিসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান, ইউজিসির সদস্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (বিশ্ববিদ্যালয়) আব্দুল্লাহ আল হাসান চৌধুরী। কর্মশালায় ৪০টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিরা উপস্থিত ছিলেন।

কর্মশালায় সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বলেন, যোগ্যতার ভিত্তিতে তাদের গ্রেড বা পদমর্যাদা প্রদান করতে হবে।

বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক আব্দুল মান্নান বলেন, অভিন্ন নীতিমালা বাস্তবায়ন

করতে হলে নিয়োগ পরীক্ষার মাধ্যমে যোগ্য শিক্ষক নির্বাচন করা প্রয়োজন।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি আব্দুস সোবাহান বলেন, অভিন্ন নিয়োগ নীতিমালা বাস্তবায়ন করলে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী ভর্তিতে জিপিএ-৯ করা প্রয়োজন। তবেই ভালো শিক্ষক পাওয়া যাবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক হারুন-অর-রশীদ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরির এন্ট্রি লেভেলে পরীক্ষা নেওয়া যেতে পারে। শিক্ষকদের জ্যেষ্ঠতার বিষয়টি স্পষ্ট করতে হবে। নতুবা এটি নিয়ে নতুন দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হবে।

ময়মনসিংহ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মোনায়েম খান বলেন, শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে মাস্টার্স সমমান পর্যন্ত পাঁচ বছরের কোর্স সম্পন্ন করার কথা বলা হলেও কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে সাড়ে পাঁচ থেকে ছয় বছর মেয়াদে মাস্টার্স কোর্স করা হয়। তাই কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্ষেত্রে বিষয়টি সংশোধন করার আহ্বান জানান তিনি।

ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয় অব বাংলাদেশের ভিসি অধ্যাপক মুনাজ আহমেদ নূর বলেন, শিক্ষক নিয়োগের যোগ্যতা মাস্টার্স সমমান করা হলে মেধাবী শিক্ষার্থীরা শিক্ষকতায় না এসে বিদেশে চলে যাবে। এ কারণে সেটি অনার্স পাস করা প্রয়োজন।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম বলেন, বিজ্ঞান ও মানবিক সম্পূর্ণ আলাদা বিষয় হলেও নিয়োগের ক্ষেত্রে জিপিএ-৩ দশমিক ৫ চাওয়া হয়েছে। এটি সংশোধনের আহ্বান জানিয়ে তিনি যোগ্য শিক্ষক নিয়োগে পরীক্ষা পদ্ধতি চালুর দাবি জানান।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক কনক কান্তি বড়ূয়া বলেন, মেডিকেল শিক্ষার্থীদের মাস্টার্স সমমান কোর্স শেষ করতে দীর্ঘ সময় লেগে যায়। তাই মেডিকেলে শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতার বিষয়টি বিবেচনা করা প্রয়োজন।

বাংলাদেশ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি অধ্যাপক এসএম মাকসুদ কামাল বলেন, ফেডারেশনের সিদ্ধান্তে অভিন্ন নীতিমালা তৈরি করা হলেও ইউজিসি থেকে তা ইচ্ছামতো পরিবর্তন

করা হয়েছে। এটি বাস্তবায়ন করতে হলে কিছু বিষয়ে সংশোধন জরুরি।

ইউজিসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল মান্নান বলেন, অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ে মেধাবী ও যোগ্য প্রার্থীকে বাতিল করে কর্তৃপক্ষের পছন্দের প্রার্থীকে নিয়োগের সুপারিশ করা হচ্ছে। এসব কারণে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে অভিন্ন নিয়োগ নীতিমালা করতে চাই।

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, শিক্ষক নিয়োগে নানামুখী জটিলতা কাটিয়ে একটি সুষ্ঠু নিয়োগ প্রক্রিয়া চালু করতে বিশ্ববিদ্যালয়ে অভিন্ন নিয়োগ-পদোন্নতি নীতিমালা তৈরি করা হয়েছে। শিক্ষকদের পরামর্শগুলোকে বিচার-বিশ্নেষণ করে তারপর এটি কার্যকর করা হবে।
প্রার্থীদের হলফনামায় চোখ রাখবে দুদক

প্রার্থীদের হলফনামায় চোখ রাখবে দুদক

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীদের হলফনামার সম্পদের হিসাবে নজর ...

সময় শেষ ব্যানার-পোস্টার সরেনি

সময় শেষ ব্যানার-পোস্টার সরেনি

সুষ্ঠু নির্বাচন ও প্রার্থীদের জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরির জন্য ...

হাল ছাড়েননি বাদপড়ারা চলছে চেষ্টা-তদবির

হাল ছাড়েননি বাদপড়ারা চলছে চেষ্টা-তদবির

আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য তালিকা থেকে বাদ পড়া দলের মনোনয়নপ্রত্যাশীরা এখনও ...

মিশ্র প্রতিক্রিয়া আইনজ্ঞদের

মিশ্র প্রতিক্রিয়া আইনজ্ঞদের

দুর্নীতির দুটি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ১০ ও ৭ ...

বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়া যাবে না

বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়া যাবে না

দল থেকে যাকেই মনোনয়ন দেওয়া হবে, তার পক্ষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে ...

ধানের শীষের প্রতীক্ষায় শতাধিক ব্যবসায়ী

ধানের শীষের প্রতীক্ষায় শতাধিক ব্যবসায়ী

জাতীয় সংসদে ব্যবসায়ী সাংসদের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। বর্তমান সংসদে ব্যবসায়ীদের ...

কিশোরগঞ্জের ৬ আসনের তিনটিতেই প্রার্থী পুত্ররা

কিশোরগঞ্জের ৬ আসনের তিনটিতেই প্রার্থী পুত্ররা

আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে কিশোরগঞ্জের ৬টি সংসদীয় আসনের তিনটিতেই উত্তরাধিকার আজ ...

বিএনপির অভিযোগ তদন্তে পুলিশ

বিএনপির অভিযোগ তদন্তে পুলিশ

প্রধানমন্ত্রী ও নির্বাচন কমিশনের কাছে বিএনপির পক্ষ থেকে 'গায়েবি ও ...