খালেদা জিয়াকে পাল্টা উকিল নোটিশ দেওয়া হবে

ওবায়দুল কাদের

প্রকাশ: ১৩ জানুয়ারি ২০১৮      

সমকাল প্রতিবেদক

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আইনি নোটিশের জবাবে পাল্টা উকিল নোটিশ পাঠানো হবে। গতকাল শুক্রবার রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশন এলাকায় দুস্থদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। আওয়ামী লীগ সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদে চার বছর পূর্তি উপলক্ষে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ এ কর্মসূচির আয়োজন করে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী জিয়া পরিবারের দুর্নীতির যে খবর তুলে ধরেছেন, তা দেশি-বিদেশি গণমাধ্যমের তথ্যের ভিত্তিতে।

এসব তথ্য মিডিয়া দিয়েছে, এটা প্রমাণিত। তাদের দুর্নীতির কেচ্ছা রূপকথার কাহিনীকেও হার মানায়। প্রধানমন্ত্রীর সৎসাহস আছে বলে সত্য তুলে ধরেছেন, হাটে হাঁড়ি ভেঙে দিয়েছেন। এতে বিএনপি নেতাদের অন্তর্জ্বালা শুরু হয়ে গেছে। ভুয়া ও মিথ্যা উকিল নোটিশ পাঠানোর জন্য বিএনপিকেও উকিল নোটিশ দেওয়া হচ্ছে। অপেক্ষা করুন।

পদ্মা সেতু নির্মাণ নিয়ে আনা অভিযোগ প্রমাণ করতে না পারলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকেও মামলার মুখোমুখি হতে হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে তিনি বলেন, মির্জা ফখরুল এখন বলছেন, পদ্মা সেতুর নকশায় ভুল আছে। ভুল আছে কি-না তা প্রমাণ করতে আসুন, তথ্য-উপাত্ত নিয়ে আসুন। নকশার কোথায় ভুল, কোথায় কারিগরি ভুল আছে- প্রমাণ না দেখাতে পারলে মির্জা ফখরুলকেও উকিল নোটিশ পাঠানো হবে। তাকেও মামলা মোকাবেলা করতে হবে।

'ভুয়া নথি তৈরি করে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দুর্নীতির দুই মামলা কারা হয়েছে'- বিএনপি নেতা মওদুদ আহমদের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, মওদুদ আহমদের কথা শুনে হাসব না, কাঁদব? তিনি তো নিজেই ভুয়া কাগজপত্র দিয়ে বাড়ি দখল করেছেন। আর বলছেন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ভুয়া অভিযোগ করা হয়েছে। তিনি (মওদুদ) নিজেই ভুয়া কাজ করেন। তিনি কী করে আসল-নকল পৃথকীকরণ করবেন?

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নিবন্ধন হারানো জামায়াত কিংবা নিবন্ধন ছাড়া অন্য কোনো দল অংশ নিতে পারবে কি-না- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, এ প্রশ্নের জবাব দেবে নির্বাচন কমিশন, তিনি দিতে পারেন না। তবে তার জানা মতে, এখানে নিবন্ধিত কোনো দল ছাড়া অন্য কারও অংশগ্রহণ করার কথা নয়। নির্বাচন কমিশনের অ্যালাউ করাও ঠিক নয়।

প্রচণ্ড শীতে শীতার্ত মানুষের জন্য বিএনপির কোনো কার্যক্রম নেই দাবি করে দলটির সমালোচনা করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, এবারের শীত ৫০ বছরের রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আওয়ামী লীগ প্রচ শীতের মধ্যে সৈয়দপুরে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছে। মানুষের দুঃখ-কষ্টের মধ্যেও আওয়ামী লীগ ছাড়া কোনো রাজনৈতিক দলকে শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে দেখা যায়নি। হয়তো যাওয়ার জন্য অনেকে যায়। তা একদিনের জন্য লোকদেখানো সাহায্য। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দেশের রাজনীতি নিষ্ঠুর হয়ে গেছে। এটা শুধু প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার জন্য হয়ে গেছে। রাজনীতি শুধু প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে বিষোদ্গার নয়। রাজধানীর তেজগাঁওয়ের নাখালপাড়ায় 'জঙ্গি আস্তানা'য় র‌্যাবের অভিযান প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, 'জঙ্গি দমনে সক্ষমতার দিক থেকে দেশের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থা রোল মডেল।'

ওবায়দুল কাদের পরে দুস্থ ও শীতার্ত মানুষের মধ্যে কম্বল বিতরণ করেন। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাতের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ।





আসছে ভোট, প্রস্তুত ইসি

আসছে ভোট, প্রস্তুত ইসি

একাদশ সংসদ নির্বাচনের লক্ষ্যে নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে তফসিল ঘোষণা এবং ...

আজ শুভ বিজয়া দশমী

আজ শুভ বিজয়া দশমী

সব পূজামণ্ডপের বাতাসেই এখন বিষাদের ছায়া। হিন্দু ধর্মাবলম্বী মানুষের ঘরে ...

দেখা হবে গানেই

দেখা হবে গানেই

আইয়ুব বাচ্চুকে আর চোখে দেখব না; তার গান শুনব খোলা ...

খাসোগির সন্ধানে 'জঙ্গলে তল্লাশি' পুলিশের

খাসোগির সন্ধানে 'জঙ্গলে তল্লাশি' পুলিশের

সৌদি রাজপরিবারের কঠোর সমালোচক সাংবাদিক জামাল খাসোগির অনুসন্ধান চালিয়ে যাচ্ছে ...

প্রিয়াঙ্কা-নিকের বিয়ে ডিসেম্বরেই

প্রিয়াঙ্কা-নিকের বিয়ে ডিসেম্বরেই

১০ বছরের ছোট মার্কিন সংগীত শিল্পী নিক জোনাসের সঙ্গে বাগদান ...

১০০ আসনে ছাড় দিতে পারে বিএনপি

১০০ আসনে ছাড় দিতে পারে বিএনপি

নির্বাচন ঘনিয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে জোট সম্প্রসারণেরও উদ্যোগ নিচ্ছে ক্ষমতাসীন ...

জসীমের উচ্ছেদ খেলায় নিঃস্ব মানুষ ফেরত চায় জমি

জসীমের উচ্ছেদ খেলায় নিঃস্ব মানুষ ফেরত চায় জমি

কালিয়াকৈরে মূর্তিমান আতঙ্কের নাম ছিল বনখেকো জসীম ইকবাল। পরে তার ...

তৃতীয় সাবমেরিন কেবলে যুক্ত হচ্ছে বাংলাদেশ

তৃতীয় সাবমেরিন কেবলে যুক্ত হচ্ছে বাংলাদেশ

তৃতীয় সাবমেরিন কেবলে সংযুক্ত হচ্ছে বাংলাদেশ। চট্টগ্রাম থেকে সিঙ্গাপুর পর্যন্ত ...