তিনটি ভবন বেদখল পরিত্যক্তও ৩টি

কৃষি বিভাগের বীজাগার ভবন

প্রকাশ: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সখীপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি

সখীপুরে ছয়টি ইউনিয়নের কৃষি বিভাগের ছয়টি বীজাগার ৪২ বছর ধরে কোনো কার্যক্রম না থাকায় তিনটি ভবন স্থানীয়রা দখল করে রেখেছে। আর বাকি তিনটি ভবন পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। পরিত্যক্ত তিনটি ভবন হচ্ছে- উপজেলার কালিয়া ইউনিয়নের কৃষি বীজাগার বড় চওনা বাজারে, বহেড়াতৈল ইউনিয়নের কৃষি বীজাগার বহেড়াতৈল বাজার সংলগ্ন ও কাকড়াজান ইউনিয়ন কৃষি বীজাগার ভবনটি বৈলারপুর গ্রামে পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। অন্যদিকে কৃষি বিভাগের তিনটি বীজাগার ভবন ও জমি বিভিন্ন লোকজনের দখলে চলে গেছে। সেগুলো হচ্ছে- উপজেলার গজারিয়া ইউনিয়নের (বর্তমানে সখীপুর পৌরসভা সদরে) কৃষি বীজাগারটির ভবন ডিঅমস নামে একটি ছাত্র সংগঠনসহ কয়েকটি সংগঠনের দখলে, জমি চা স্টল ও খাবার দোকান করে বিভিন্ন লোকজনের দখলে, যাদবপুর ইউনিয়নের কৃষি বীজাগার ভবনটি নিশ্চিহ্ন ও জমি কালীদাস কলিমউদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের দখলে এবং হাতিবান্ধা ইউনিয়নের বীজাগার ভবনের চিহ্ন না থাকলেও জমিটি ইউনিয়ন পরিষদের পাশে পরিত্যক্ত। রক্ষণাবেক্ষণ না থাকায় জমিটি যে যার মতো ব্যবহার করছে।

কৃষকদের মাঝে সেবা দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার সুবিধার্থে মাঠপর্যায়ের কৃষি কর্মকর্তাদের আবাসিক সুবিধা দেওয়ার জন্য সেসব জমিতে ভবন নির্মাণের পরিকল্পনা করছে কৃষি অধিদপ্তর। কিন্তু সখীপুরের তিনটি ভবন ও জমি স্থানীয়দের দখলে থাকায় সরকারের এ পরিকল্পনা ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা করছে স্থানীয় কৃষি বিভাগ। সখীপুরের (গজারিয়া) কৃষি বিভিাগের বীজাগারের জমির পরিমাণ ৫০ শতাংশ। কালিয়া ইউনিয়নের উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা আবদুস সাত্তার ও হাবিবুর রহমান বলেন, বড়চওনা বাজারের মাঝখানে মূল্যবান জমিতে ওই বীজাগারের ভবনটি পরিত্যক্ত অবস্থায় রয়েছে। বহেড়াতৈল ইউনিয়ন উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা রুবি ভূঁইয়া জানান, বর্তমানে কৃষি বিভাগের ওই পরিত্যক্ত বীজাগারের জমিতে বাজারের লোকজনের ব্যবহারের জন্য গণশৌচাগার নির্মিত হয়েছে।

কাকড়াজান ইউনিয়নের উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা পারভীন আক্তার বলেন, বৈলারপুর গ্রামে বীজাগারের ভবন থাকলেও সেটা পরিত্যক্ত অবস্থায় আছে।

সখীপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ফায়জুল ইসলাম ভূঞা বলেন, কৃষি বিভাগ এখন ডিজিটাল। কৃষকদের দোরগোড়ায় আধুনিক সেবা পৌঁছে দিতে প্রতিটি ইউনিয়ন কমপ্লেক্সে দুটি করে কক্ষ কৃষি কর্মকর্তাদের বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এখন ওই কর্মকর্তাদের আবাসিক সুবিধা দিতে সরকার প্রতিটি ইউনিয়নের বীজাগারের জমিতে ভবন করার পরিকল্পনা করছে। শিগগিরই ওইসব জমি ও ভবন কৃষি বিভাগের দখলে নিতে কাজ চলছে।
চুল, ত্বক ও শরীরের যত্নে তেল

চুল, ত্বক ও শরীরের যত্নে তেল

যুগ যুগ ধরে রূপচর্চায় প্রসাধনী হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে ফুল, ...

সন্তানদের জন্য দুধ কিনতে গিয়ে লাশ হলেন বাবা

সন্তানদের জন্য দুধ কিনতে গিয়ে লাশ হলেন বাবা

মাগুরায় কাভার্ড ভ্যানের চাপায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। সোমবার ...

জাতীয় ঐক্যের ভবিষ্যৎ কী

জাতীয় ঐক্যের ভবিষ্যৎ কী

বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক জোট-মহাজোট থাকার পর আবারও নতুন করে 'জাতীয় ...

তবুও জামায়াত ছাড়বে না বিএনপি

তবুও জামায়াত ছাড়বে না বিএনপি

জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার নেতাদের দাবিতে জামায়াতকে ত্যাগ করবে না বিএনপি। ...

সাত বিভাগীয় শহরে হবে সাইবার ট্রাইব্যুনাল

সাত বিভাগীয় শহরে হবে সাইবার ট্রাইব্যুনাল

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের অধীনে সংঘটিত অপরাধের বিচার দ্রুত ...

১৯৩ দেশই ভ্রমণ করবেন নাজমুন

১৯৩ দেশই ভ্রমণ করবেন নাজমুন

লাল-সবুজের পতাকা হাতে পৃথিবীর পথে এখনও হেঁটে চলেছেন নারী পরিব্রাজক ...

বঞ্চনার শেষ নেই শিক্ষা ক্যাডারে

বঞ্চনার শেষ নেই শিক্ষা ক্যাডারে

মানিকগঞ্জের সরকারি দেবেন্দ্র কলেজের অধ্যক্ষ সাইদুর রহমান ১৪তম বিসিএসের কর্মকর্তা। ...

বেদেপল্লীর বাতাসে এখনও পোড়া গন্ধ

বেদেপল্লীর বাতাসে এখনও পোড়া গন্ধ

পিচঢালা পথের যেখানে শেষ, সেখান থেকেই শুরু বেদেপল্লীতে প্রবেশের রাস্তা। ...