চট্টগ্রামে আওয়ামী লীগ ভোটের প্রচারে, আপত্তি বিএনপির

প্রকাশ: ১৭ এপ্রিল ২০১৮      

স্বপন কুমার মল্লিক, চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামে আওয়ামী লীগ ভোটের প্রচারে, আপত্তি বিএনপির

চট্টগ্রাম নগরীর বিভিন্ন স্থানে বসানো হয়েছে এমন অসংখ্য সাইনবোর্ড, ব্যানার ও ফেস্টুন - সমকাল

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের এখনও ঢের বাকি। কিন্তু এরই মধ্যে নির্বাচনী প্রচারণায় নেমে গেছে আওয়ামী লীগ। চট্টগ্রামের অলিগলি থেকে শুরু করে ব্যস্ততম সড়কেও শোভা পাচ্ছে সম্ভাব্য প্রার্থীদের পরোক্ষ ভোট প্রার্থনার ব্যানার-ফেস্টুন। দেয়ালগুলোও ঢেকে যাচ্ছে পোস্টারে। আকর্ষণ বাড়াতে কোথাও কোথাও নৌকা প্রতীক বানিয়ে করা হয়েছে আলোকসজ্জা। আওয়ামী লীগের এমন প্রচারণায় নাখোশ বিএনপি। অভিযোগ করে তারা বলছেন, এটা নির্বাচনী আচরণবিধির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। বিএনপির এই অভিযোগ খতিয়ে দেখবে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. মাহতাব উদ্দিন আহমদ সমকালকে বলেন, 'নৌকা শুধু নির্বাচনী প্রতীক নয়। এটি আওয়ামী লীগের উন্নয়নের প্রতীক। তাই এটাকে নির্বাচনী প্রচারণা বলা ঠিক হবে না। সরকার গত এক দশকে যে উন্নয়ন কর্মযজ্ঞ করেছে, তা জনগণের কাছে পৌঁছে দিচ্ছেন জনপ্রতিনিধিরা। এটাকে ভিন্নভাবে দেখার কোনো সুযোগ নেই।'

তবে আওয়ামী লীগের এই ব্যাখ্যা মানতে নারাজ বিএনপি। তারা উদাহরণ হিসেবে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ ছালামের নামে প্রচারণার কথা জানান। নগরীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, ছালামের নামে ব্যানারে বড় করে লেখা রয়েছে 'জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতে থাকলে দেশ, পথ হারাবে না বাংলাদেশ'। ওই ব্যানারের ওপরেই ছোট করে লেখা রয়েছে- 'উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকা মার্কায় ভোট দিন'।

মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, 'এখনও নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার নাম নেই। কিন্তু এরই মধ্যে ক্ষমতাসীনরা রঙ-বেরঙের পোস্টার-ফেস্টুনে নগর ছেয়ে ফেলেছে। এটা নির্বাচনী আচরণবিধির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। আমরা এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে অভিযোগ করব।'

চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচনী কর্মকর্তা মনির হোসাইন খানের কাছে এ সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, 'নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগে কেউ যদি প্রচার-প্রচারণা করেন, আমাদের কিছু করার থাকে না। তবে নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার পর সুনির্দিষ্ট প্রতীক বণ্টনের পর নির্বাচন কমিশন কর্তৃক বেঁধে দেওয়া সময়ের আগে যদি কেউ প্রচারণা শুরু করে দেয়, তখন আমরা অভিযোগ পাওয়ার পর আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারি। তারপরও আমি প্রচারণার বিষয়ে আইনগত বিষয়টি খতিয়ে দেখব।'

সংশ্নিষ্ট সূত্র জানায়, চট্টগ্রামে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রস্তুতি জোরেশোরে শুরু হয়েছে। নির্বাচনী প্রচারের জন্য প্রতিটি এলাকায় হচ্ছে নির্বাচনী কমিটি। আড়াই হাজার ভোটারের জন্য একটি। প্রতিটি

ইউনিয়নে হচ্ছে তিনটি কমিটি। প্রার্থীরা এরই মধ্যে বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে আবার শেখ হাসিনা সরকারকে ক্ষমতায় আনার ওপর গুরুত্ব আরোপ করে বক্তব্য দিচ্ছেন। পটিয়া আসনের সম্ভাব্য প্রার্থী সাংসদ শামসুল হক নির্বাচনী এলাকার বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে প্রায় প্রতি সপ্তাহেই অংশগ্রহণ করছেন। গত ২৬ মার্চ তিনি পটিয়ার ছনহরা ইউনিয়নের দক্ষিণ চাটরা কালীবাড়ি মাঠে, ৩০ মার্চ বরিয়া মনোরঞ্জন বিহারের পুনর্নির্মাণকাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এলাকায় গত এক বছরে চলমান ৩০ লাখ টাকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ড এখন দৃশ্যমান হওয়ার কথা উল্লেখ করে উন্নয়ন অব্যাহত রাখতে আবার শেখ হাসিনার সরকারকে ক্ষমতায় নিয়ে আসার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। তিনি একই সময়ে বড়উঠান, পটিয়ার হাবিলাশদ্বীপসহ বিভিন্ন এলাকার সামাজিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে ভোটারদের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন। এভাবে চট্টগ্রামের আনোয়ারা, সাতকানিয়া, চন্দনাইশ, বোয়ালখালী, মিরসরাই, ফটিকছড়ি, হাটহাজারী, রাউজানসহ সব নির্বাচনী এলাকায় পরোক্ষভাবে আগাম ভোটের প্রচারণা লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

নির্বাচনী প্রস্তুতির বিষয়টি স্বীকার করে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুস সালাম সমকালকে বলেন, 'এরই মধ্যে কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রতিটি নির্বাচনী কেন্দ্রে কেন্দ্র কমিটি গঠনের প্রস্তুতি চলছে। জেলা আওয়ামী লীগের পাশাপাশি উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কমিটিগুলোও নির্বাচন সামনে রেখে পরোক্ষভাবে নৌকায় ভোট দেওয়ার জন্য উঠান বৈঠক করে মাঠে-ময়দানে সামাজিক বিভিন্ন অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থীর ব্যাপারে প্রচারণা অব্যাহত রাখবে।'
কোটি টাকায় কেনা দীর্ঘশ্বাস

কোটি টাকায় কেনা দীর্ঘশ্বাস

ধানমণ্ডিতে সুপরিসর একটি ফ্ল্যাট কেনার উদ্যোগ নিয়েছিলেন ব্যবসায়ী আহাদুল ইসলাম। ...

বিএনপির জনসভায় আমন্ত্রণ পাচ্ছে না জামায়াত

বিএনপির জনসভায় আমন্ত্রণ পাচ্ছে না জামায়াত

বিএনপির বৃহস্পতিবারের সম্ভাব্য জনসভায় ২০ দলের শরিক জামায়াতে ইসলামীকে কৌশলগত ...

প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রুর মাদক সেবন

প্রধানমন্ত্রীর ফ্লাইটের ক্রুর মাদক সেবন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফ্লাইটের এক কেবিন ক্রুর মাদক সেবন ও ...

দুদককে পঙ্গু করতে চায় একটি মহল

দুদককে পঙ্গু করতে চায় একটি মহল

দুর্নীতি দমন কমিশনকে (দুদক) একটি অথর্ব প্রতিষ্ঠানে পরিণত করতে অপতৎপরতা ...

নিবর্তনমূলক ধারা বাতিল দাবি সাংবাদিক নেতাদের

নিবর্তনমূলক ধারা বাতিল দাবি সাংবাদিক নেতাদের

স্বাধীন সাংবাদিকতায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করতে পারে- এমন সব ধারা-উপধারা বহাল ...

ইয়াবা কারবারিরা তবু বেপরোয়া

ইয়াবা কারবারিরা তবু বেপরোয়া

মিয়ানমার থেকে নানা কৌশলে ভিন্ন ভিন্ন রুট ব্যবহার করে সারা ...

বিপিএলের কারণে রশিদকে চেনা ইমরুলের

বিপিএলের কারণে রশিদকে চেনা ইমরুলের

হুট করেই ইমরুল কায়েস এশিয়া কাপের দলে ডাক পান। এরপর ...

মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক ঋণ!

মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক ঋণ!

বরিশালে মৃত ব্যক্তিকে জীবিত দেখিয়ে ব্যাংক থেকে ঋণ নেওয়ার অভিযোগ ...