আসামি মান্নানের মৃত্যুর তথ্য জানতেন না তদন্ত কর্মকর্তা

ব্লগার অনন্ত বিজয় হত্যা

প্রকাশ: ১৭ মে ২০১৮      

সিলেট ব্যুরো

সিলেটে বিজ্ঞান লেখক ও ব্লগার অনন্ত বিজয় দাশ হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত অন্যতম আসামি মান্নান ইয়াহিয়া ওরফে মান্নান রাহি ওরফে এবি মান্নান ইয়াইয়া ওরফে ইবনে মঈন ছয় মাস আগেই মারা গেছে। তবে এই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) পরিদর্শক আরমান আলী এতদিন বিষয়টি জানতেন না।

সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি থাকা অবস্থায় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ায় মান্নানকে ঢাকায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত বছরের ২ নভেম্বর মান্নান মারা যাওয়ার একদিন পর স্বজনেরা লাশ এনে  সিলেটের কানাইঘাটের পূর্ব ফালজুরে গ্রামের বাড়িতে দাফন করেন।

গতকাল বুধবার বিকেলে সিআইডি পরিদর্শক আরমান আলী সমকালকে বলেন, আসামি মান্নান কারাগারে ছিল। আজকেই (গতকাল) তার মৃত্যুর বিষয়টি জানতে পারলাম। কারাগার থেকেও আমাকে কেউ মৃত্যুর কথা জানায়নি।

তবে সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) মফুর আলী জানান, মান্নানের মৃত্যুর বিষয়টি আদালতকে অবহিত করা হয়েছে। এখন অভিযোগ গঠনের সময় তার নাম আসামির তালিকা থেকে বাদ দিয়ে মামলার বিচার শুরু হবে।

মান্নানের বাবা হাফিজ মাঈনুদ্দিন বলেন, মান্নান ইয়াহিয়া প্রায় দুই বছর তিন মাস কারাগারে ছিল। মৃত্যুর পর তার মরদেহ আমরা দাফন করেছি। ২০০৯ সালে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের ভর্তি হলেও মান্নান স্নাতক শেষ করেনি। গ্রেফতারের পর সে ব্লগার অনন্ত বিজয় হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়।

২০১৫ সালের ১২ মে কর্মস্থলে যাওয়ার সময় নগরীর সুবিদবাজারে নিজ বাসা থেকে কয়েকশ' গজ দূরে অনন্ত বিজয়কে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ হত্যাকাণ্ডে নোমানের সংশ্নিষ্টতা পাননি তদন্তকারী কর্মকর্তা।

এদিকে কয়েক দফা পেছানোর পর আগামী ৩০ জুন অনন্ত বিজয় হত্যা মামলার আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। গত সোমবার সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতে এই মামলার অভিযোগ গঠনের কথা ছিল বলে জানান পিপি অ্যাডভোকেট মফুর আলী। তিনি বলেন, মহানগর দায়রা জজ থেকে মামলাটি অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতে স্থানান্তর করে অভিযোগ গঠনের নতুন তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।
দেশ-জাতির শান্তি ও কল্যাণ কামনা

দেশ-জাতির শান্তি ও কল্যাণ কামনা

বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার ও যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে সারাদেশে উদযাপিত হচ্ছে ...

বঙ্গবন্ধু সেতুর দুই পাড়ে তীব্র যানজট

বঙ্গবন্ধু সেতুর দুই পাড়ে তীব্র যানজট

ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম পাড়ে মঙ্গলবার সকাল থেকেই ছিল যানজট। এতে ...

নওগাঁয় ট্রাকচাপায় ৩ জনের মৃত্যু

নওগাঁয় ট্রাকচাপায় ৩ জনের মৃত্যু

নওগাঁয় ট্রাকচাপায় মটরসাইকেলের দুই আরোহীসহ তিন জন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার ...

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নির্ভর করছে বাংলাদেশের ওপর: সু চি

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নির্ভর করছে বাংলাদেশের ওপর: সু চি

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন কবে শুরু হবে সেটি বাংলাদেশের ওপরই নির্ভর করছে ...

এই প্রথম নিজের টাকায় কোরবানি দিচ্ছি: বুবলী

এই প্রথম নিজের টাকায় কোরবানি দিচ্ছি: বুবলী

ঢাকাই ছবির বর্তমান সময়ের আলোচিত নায়িকা শবনম বুবলী। চলচ্চিত্রের অনেকে ...

জন্মদিনে পূজাকে কী উপহার দিলেন জাজের কর্ণধার?

জন্মদিনে পূজাকে কী উপহার দিলেন জাজের কর্ণধার?

এই প্রজন্মের নায়িকা পূজা চেরির জন্মদিন ছিল সোমবার। বিশেষ দিনটি ...

সিধু সম্পর্কে যা বললেন ইমরান

সিধু সম্পর্কে যা বললেন ইমরান

সিধুকে নিয়ে যখন সর্বত্রই সমালোচনার ঝড় তখন তার পাশে এসে ...

জামিন পেলেন অভিনেত্রী নওশাবা

জামিন পেলেন অভিনেত্রী নওশাবা

তথ্যপ্রযুক্তি আইনে করা মামলায় অভিনেত্রী ও মডেল কাজী নওশাবা আহমেদকে ...