ঘুষ-দুর্নীতির বৃত্তেই পাসপোর্ট বিভাগ

প্রকাশ: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

আতাউর রহমান

পাসপোর্ট সেবা সহজতর করতে সরকার নানা উদ্যোগ নিলেও সরকারি সেবা খাতের এ প্রতিষ্ঠানটি ঘুষ, দুর্নীতি আর অনিয়মের বৃত্ত থেকে বের হয়ে আসতে পারছে না। পাসপোর্ট পেতে পদে পদে দুর্নীতি, হয়রানি ও ভোগান্তির চিত্রটা রয়েই গেছে। দালালদের খপ্পরে পড়ে নিয়ম-বহির্ভূতভাবে অতিরিক্ত টাকা খরচ করতে হচ্ছে গ্রাহকদের। দুর্নীতিবিরোধী আন্তর্জাতিক সংগঠন ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) প্রকাশিত সর্বশেষ খানা জরিপে পাসপোর্ট অধিদপ্তরের দুর্নীতি এবং ঘুষের এমন চিত্র উঠে এসেছে।

সংস্থাটি তাদের গবেষণায় শীর্ষ সেবা খাতগুলোর মধ্যে পাসপোর্ট অধিদপ্তরকে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দুর্নীতিগ্রস্ত খাত হিসেবে চিহ্নিত করেছে। তাদের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৬৭ দশমিক ৩ শতাংশ মানুষ পাসপোর্ট অধিদপ্তরে দুর্নীতির শিকার হন। ঘুষের শিকার হন ৫৯ দশমিক ৩ ভাগ মানুষ। পাসপোর্ট পেতে নিয়ম বহির্ভূতভাবে গড়ে দুই হাজার ৮৮১ টাকা ঘুষ দিতে হয় বলেও টিআইবির প্রতিবেদনে উঠে এসেছে। গত ৩০ আগস্ট সংস্থাটি এ প্রতিবেদন প্রকাশ করলেও চলতি বছরের প্রথম তিন মাস এই জরিপ চালানো হয়। এ জরিপে ২০১৭ সালে সেবা গ্রহণের সময় যেসব দুর্নীতি ও হয়রানির সম্মুখীন হয়েছে তার ওপর তথ্য সংগ্রহ করা হয়।

এর আগে ২০১৬ সালে টিআইবি প্রকাশিত প্রতিবেদনে পাসপোর্ট অধিদপ্তরকে সেবা খাতের মধ্যে সর্বোচ্চ দুর্নীতিগ্রস্ত খাত হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছিল। সংস্থাটির দুই বছরের জরিপ বিশ্নেষণ করে দেখা গেছে, ২০১৬ সালে প্রকাশিত প্রতিবেদনে পাসপোর্ট খাতে ৭৭ দশমিক ৭ ভাগ মানুষ দুর্নীতির শিকার হন। তবে সর্বশেষ জরিপের ফলাফলে এ খাতে ১০ শতাংশ দুর্নীতি কমেছে। একইভাবে ২০১৬ সালে প্রকাশিত প্রতিবেদনে ৭৬ দশমিক ১ ভাগ সেবাগ্রহীতা ঘুষের শিকার হলেও সর্বশেষ জরিপে তা কমে ৫৯ দশমিক ৩ ভাগ হয়েছে। ওই সময়ের মধ্যে ঘুষের টাকার পরিমাণ কমেছে ৮৩৯ টাকা। এ দুটি জরিপের ফল বিশ্নেষণ করে দেখা যায়, সেবা খাত হিসেবে ঘুষ-দুর্নীতি কমলেও পাসপোর্ট অধিদপ্তর এই বৃত্ত থেকে পুরোপুরি বের হতে পারেনি।

তবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সমকালকে বলেছেন, তাদের কাছে টিআইবির প্রতিবেদনটি মনগড়া মনে হয়েছে। এই প্রতিবেদনের ভিত্তি নেই। কিসের ভিত্তিতে টিআইবি ওই জরিপ চালিয়েছে বা প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে তা জানা নেই। তারা সরেজমিন পাসপোর্ট অফিসগুলোতে গেলে ভিন্নচিত্র পেত।

তিনি আরও বলেন, মানুষ যাতে সহজে ও ভোগান্তিমুক্তভাবে পাসপোর্ট পেতে পারে সরকার এর সব ব্যবস্থাই করেছে। পাসপোর্ট পেতে ব্যাংকে টাকা জমা দেওয়া হয়, টাকার রশিসদসহ ফরম জমা দিতে হয় পাসপোর্ট অফিসে। এখানে দুর্নীতিটা হয় কীভাবে তা বোধগম্য নয়। তা ছাড়া এমআরপির ক্ষেত্রে পাসপোর্ট অফিসের কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারীর দুর্নীতিতে জড়ানোর সুযোগ নেই। সামনে ই-পাসপোর্ট চালু হলে গ্রাহকের ভোগান্তিও একেবারে কমে যাবে।

ইমিগ্রেশন অ্যান্ড পাসপোর্ট অধিদপ্তরের (ডিআইপি) মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মাসুদ রেজওয়ান বলেন, টিআইবির প্রতিবেদনটি তাদের নজরে এসেছে। কিন্তু এটি তৈরি বা প্রকাশের আগে টিআইবির পক্ষ থেকে ডিআইপির সঙ্গে কোনো কথা বলা হয়নি। এরপরও সংস্থাটির সঙ্গে তারা কথা বলবেন।

অবশ্য টিআইবির প্রতিবেদন প্রকাশের পর সমকালের পক্ষ থেকেও আগারগাঁও ও যাত্রাবাড়ী অফিসে পাসপোর্ট নিতে আসা বিভিন্ন ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলা হয়। পাসপোর্ট প্রত্যাশীদের বেশ কয়েকজন বলেছেন, দালালদের খপ্পরে পড়ে তারা নিয়মের অতিরিক্ত টাকা দিচ্ছেন। অনেকে দালালদের মাধ্যমে ফরম ও ছবি সত্যায়িত করাতে ২০০ থেকে ৫০০ টাকা দিয়েছেন।

গত সোমবার মিরপুর থেকে আগারগাঁওয়ে পাসপোর্ট জমা দিতে এসেছেন রাজীব হাসান নামে এক ব্যক্তি। তিনি সমকালকে বলেন, বিদেশে থাকায় জাতীয় পরিচয়পত্র করাতে পারেননি। ফরমের সঙ্গে জন্মসনদ জমা দিলেও তার ফরমটি জমা নেওয়া হয়নি। ঘটনাস্থলেই একজন দালাল তার কাছে এক হাজার টাকা দাবি করে বলেছে তাহলে এই ফরমটিই জমা দেওয়া যাবে।

সেখানে পাসপোর্ট প্রত্যাশী আরও কয়েকজন জানালেন, নানা ছোটখাটো ঝামেলা আর অজুহাতে পাসপোর্ট কর্মকর্তারা তাদের ফরম জমা নেন না। কিন্তু দালালদের টাকা দিলে সেই ফরমই জমা নেওয়া হচ্ছে।

খোঁজ-খবর নিয়ে জানা গেছে, বিভাগীয় কার্যালয়গুলোতে পাসপোর্ট অধিদপ্তর মাঝে মধ্যে দালালবিরোধী অভিযান চালিয়ে থাকে। সিনিয়র কর্মকর্তারাও নজরদারি করেন। তবে অনেক জেলা কার্যালয়ে এসব দালালের কাছে খোদ পাসপোর্ট কর্মকর্তারাও জিম্মি হয়ে পড়েছেন। অনেক কার্যালয়ে অসাধু কর্মচারীরাও নানাভাবে অতিরিক্ত টাকা আদায় করে থাকেন। মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট কার্যক্রম শুরুর পর এক শ্রেণির অসাধু কর্মকর্তা সরাসরি দুর্নীতি করতে না পারায় তারা দালালদের মাধ্যমে সুবিধা নিয়ে থাকেন। এজন্য এ দালালবলয় ভাঙা যাচ্ছে না।

পাসপোর্ট পেতে ঘুষ দেওয়ার কারণ :পাসপোর্ট পেতে কেন ঘুষ বা নিয়মবহির্ভূত অর্থ দিতে হয়েছে তা উঠে এসেছে টিআইবির প্রতিবেদনে। সংস্থাটির জরিপে অংশ নেওয়া ৭১ দশমিক ৫ ভাগ মানুষ বলেছেন, ঘুষ না দিলে সেবা পাওয়া যায় না। এছাড়াও যথাসময়ে সেবা পেতেও মানুষের ঘুষ দিতে হচ্ছে। ৬৭ দশমিক ৩ ভাগ মানুষ জানিয়েছেন, তারা যথাসময়ে সেবা পেতে ঘুষ দিয়েছেন। হয়রানি ও জটিলতা এড়ানোর জন্য ৩৮ দশমিক ২ ভাগ এবং নির্ধারিত ফি জানা না থাকায় ৩৬ দশমিক ৬ ভাগ মানুষ ঘুষ দিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সরকার পাসপোর্ট সেবাকে সহজতর ও আন্তর্জাতিকমান বজায় রাখতে নানা উদ্যোগ নিয়েছে। মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট (এমআরপি) সেবার পর ই-পাসপোর্ট প্রচলন করতে যাচ্ছে। চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে ই-পাসপোর্ট মানুষের হাতে তুলে দিতে কাজ করছেন ডিআইপির কর্মকর্তারা। এই সেবা বিকেন্দ্রীকরণে জেলা পর্যায়ে পাসপোর্ট অফিস স্থাপন, অবকাঠামোগত উন্নয়ন ও জনবল বৃদ্ধি, অনলাইনে আবেদনপত্র গ্রহণ, সেবার মান বৃদ্ধিতে পাসপোর্ট সেবা সপ্তাহ কার্যক্রম চালু ও জেলা পর্যায়ের কার্যালয়গুলোতে গণশুনানির মতো কার্যক্রমও চালাচ্ছে।

এবার ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় টাইগারদের

এবার ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় টাইগারদের

গল্পে পড়া উঠের পিঠে চড়া সেই বেদুইনরা নাকি এখন শুধুই ...

বালুখেকোরা খুবলে খাচ্ছে সুরমা

বালুখেকোরা খুবলে খাচ্ছে সুরমা

সিলেটের প্রাণ সুরমা নদীকে খুবলে খাচ্ছে বালুখেকোরা। অথচ এই নদী ...

বরিশালেও প্রকাশ্যে অবৈধ বালু উত্তোলন

বরিশালেও প্রকাশ্যে অবৈধ বালু উত্তোলন

হিজলা ও মুলাদী উপজেলার মধ্যবর্তী নয়াভাঙ্গুলী নদীর ৮-১০টি পয়েন্টে এবং ...

জাতিসংঘে রোহিঙ্গা নিয়ে বিশ্বের সমর্থন চাইবেন প্রধানমন্ত্রী

জাতিসংঘে রোহিঙ্গা নিয়ে বিশ্বের সমর্থন চাইবেন প্রধানমন্ত্রী

রোহিঙ্গা সংকট মোকাবেলায় বিশ্ব সম্প্রদায়কে সহযোগিতার জন্য ফের আহ্বান জানাবেন ...

সালাহ ফিরেছেন, জিতেছে লিভারপুল

সালাহ ফিরেছেন, জিতেছে লিভারপুল

'ফর্মে নেই সালাহ।' কথাটা উঠে গিয়েছিল। কারণ মিসর তারকা মোহামেদ ...

২০ হাজার টাকা ঘুষের জন্য ওসির রাতভর নাটক

২০ হাজার টাকা ঘুষের জন্য ওসির রাতভর নাটক

একটি প্রতারণার মামলায় দুর্গাপুরের ঝালুকা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মোজাহার ...

আয়কর রিটার্ন দাখিল আরও সহজ করতে হবে: প্রধান বিচারপতি

আয়কর রিটার্ন দাখিল আরও সহজ করতে হবে: প্রধান বিচারপতি

জনগণের হয়রানি বন্ধে আয়কর রিটার্ন দাখিল আরও সহজ করার আহ্বান ...

ষড়যন্ত্রের ঐক্য কোনো ফল দেবে না: সমাজকল্যাণমন্ত্রী

ষড়যন্ত্রের ঐক্য কোনো ফল দেবে না: সমাজকল্যাণমন্ত্রী

সমাজকল্যাণমন্ত্রী ও বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন বলেছেন, ...