আশকোনায় হচ্ছে দেশের প্রথম এভিয়েশন বিশ্ববিদ্যালয়

প্রকাশ: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

সাব্বির নেওয়াজ

দেশে দক্ষ বৈমানিক ও প্রকৌশলী তৈরি করতে দেশে আরও একটি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের যাত্রা শুরু হতে যাচ্ছে। রাজধানীতেই প্রতিষ্ঠিত হবে এ অত্যাধুনিক বিশ্ববিদ্যালয়। প্রাথমিকভাবে এর নাম নির্বাচন করা হয়েছে 'বঙ্গবন্ধু এভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস বিশ্ববিদ্যালয়'। সম্পূর্ণ তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর এ বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য স্থান নির্বাচন, পরিকল্পনা গ্রহণ ও অর্থ বরাদ্দের কাজ ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে। এখন চলছে আইন তৈরির কাজ। রাজধানীর আশকোনা এলাকায় ১২ একর জমির ওপর এ বিশ্ববিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করা হবে। এ বিশ্ববিদ্যালয়ে অ্যরোনটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংসহ সংশ্নিষ্ট প্রতিটি বিষয় এবং প্রকৌশল, আইসিটি ও বিজ্ঞানের নানা বিষয় পড়ানো হবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার পদক্ষেপ হিসেবে দেশে তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষার বিস্তার ঘটাতে ও দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলার পরিকল্পনা থেকে সরকার এ পদক্ষেপ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠা পেলে এটি হবে দেশের প্রথম এভিয়েশন বিশ্ববিদ্যালয়।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের পরিচালক (পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়) মো. কামাল হোসেন বুধবার সমকালকে বলেন, আশকোনায় একটি এভিয়েশন বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। বর্তমানে এটির আইন তৈরির কাজ চলছে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ থেকে জানা গেছে, বাংলাদেশ বিমানবাহিনী এবং বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় এ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে। এ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এরই মধ্যে তার সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন। সূত্র জানায়, আশকোনায় এ বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের জন্য বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) ১২ একর জমি বরাদ্দ দিয়েছে। এখানে ২০২৫ সালের মধ্যে দক্ষিণ এশিয়ায় এবং ২০৩০ সালের মধ্যে এশিয়ার একটি নেতৃস্থানীয় ইউনিভার্সিটি হিসেবে 'বঙ্গবন্ধু এভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস ইউনিভার্সিটি' গড়ে তোলা হবে।

শুরুতে তিনটি ফ্যাকাল্টিতে মোট ১০টি বিভাগ চালু করা হবে। ইতিমধ্যে বিভাগগুলোতে পড়ানোর জন্য স্নাতক ও স্নাতকোত্তর প্রোগ্রামের আন্তর্জাতিক মানের পাঠ্যক্রম প্রণয়ন করা হয়েছে।

এ বিষয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের উপসচিব (পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়) জিন্নাত রেহানা বলেন, আইনের খসড়ায় সংশোধন, সংযোজন ও পরিমার্জনের নানা প্রস্তাব রয়েছে। সংশ্নিষ্টদের সব প্রস্তাব পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও যাচাই-বাছাই চলছে।

শিক্ষা এবং বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, এভিয়েশন ও অ্যারোস্পেস খাতে দক্ষ জনবল তৈরি করতে এ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নেন প্রধানমন্ত্রী। বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা সংক্রান্ত সারসংক্ষেপ প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠানো হলে গত বছরের ৫ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর নীতিগত অনুমোদন দেন। গত বছর ২৪ এপ্রিল শিক্ষা মন্ত্রণালয় পাবলিক এভিয়েশন ইউনিভার্সিটি স্থাপনে খসড়া আইন প্রস্তুত করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনকে (ইউজিসি) নির্দেশনা দেয়। ওই নির্দেশনা অনুযায়ী, বিমানবাহিনীর প্রতিনিধিসহ ইউজিসি বঙ্গবন্ধু এভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস বিশ্ববিদ্যালয় আইনের খসড়া তৈরি করে গত বছরের ১১ জুলাই জমা দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে।

খসড়া আইনটি বাংলাদেশ বিমানবাহিনী পুনঃনিরীক্ষার সময় তাদের বেশকিছু পর্যবেক্ষণ দেয়। পর্যবেক্ষণে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেরিটাইম ইউনিভার্সিটি আইনসহ অন্যান্য বিশেষায়িত বিশ্ববিদ্যালয় আইনের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে খসড়াটির পরিমার্জন ও বিয়োজন করে গত ৭ মে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ে পাঠায়। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় তাদের পুনঃমতামতসহ খসড়াটি পাঠিয়ে দেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে। কিন্তু মূল খসড়া আইন থেকে ভিসিসহ গুরুত্বপূর্ণ পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব বাদ দিয়ে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০ বছরের শিক্ষকতার অভিজ্ঞতাসম্পন্ন ব্যক্তিকে উপাচার্য হিসেবে নিয়োগের প্রস্তাব করে মতামত দেয়। এই প্রস্তাব নিয়ে সংশয় দেখা দেয়। কারণ, এভিয়েশন খাতে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০ বছরের শিক্ষকতার অভিজ্ঞতাসম্পন্ন লোক এ দেশে নেই বললেই চলে।

এর পর গত ১০ সেপ্টেম্ব্বর বিমানবাহিনীর পরিকল্পনা শাখা ভিসি নিয়োগ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিবের কাছে নতুন প্রস্তাব দেয়। প্রস্তাবে বিভিন্ন দেশের উদাহরণ তুলে ধরে বলা হয়েছে, পোল্যান্ড, ইউক্রেন, যুক্তরাজ্যসহ অন্যান্য দেশে এভিয়েশন ইইনভার্সিটি আইন এবং পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের বিখ্যাত 'রাজীব গান্ধী ন্যাশনাল এভিয়েশন ইউনিভার্সিটি' অ্যাক্ট পর্যালোচনা করে দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে নিয়োগের ক্ষেত্রে সংশ্নিষ্ট বিষয়ে অভিজ্ঞ ব্যক্তিদের নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় পুনঃমতামতের সময় ভিসি নিয়োগের ক্ষেত্রে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০ বছরের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন শিক্ষককে নিয়োগের প্রস্তাব করে। এতে সংশয় দেখা দিলে, তা নিয়ে এখন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

এ প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে এ দেশটাকে পাল্টে দিতে চাই। গতানুগতিক শিক্ষা দিয়ে আর দিন চলবে না। আধুনিক, মানসম্মত ও প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষা দিয়েই জাতিকে সামনের দিকে এগিয়ে নেওয়া সম্ভব। তাই আমরা প্রকৌশল ও তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষার ওপর সবেচেয়ে বেশি জোর দিচ্ছি।
'মি টু আন্দোলন পুরুষের বিরুদ্ধে নয়'

'মি টু আন্দোলন পুরুষের বিরুদ্ধে নয়'

বিশ্বজুড়ে শুরু হওয়া যৌন নিপীড়ন বিরোধী #মি টু আন্দোলনের ঢেউ ...

বিএনপির বিরুদ্ধে ইসিতে অভিযোগ আওয়ামী লীগের

বিএনপির বিরুদ্ধে ইসিতে অভিযোগ আওয়ামী লীগের

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মনোনয়নপ্রত্যাশীদের সাক্ষাৎকার ...

নির্বাচনে দায়িত্ব পেলে পেশাদারিত্বের সঙ্গে কাজ করবে সেনাবাহিনী: সেনাপ্রধান

নির্বাচনে দায়িত্ব পেলে পেশাদারিত্বের সঙ্গে কাজ করবে সেনাবাহিনী: সেনাপ্রধান

সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেছেন, 'আগামী মাসে একাদশ জাতীয় ...

ইসিতে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে পুলিশ

ইসিতে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে পুলিশ

দলীয় মনোনয়ন ফরম বিতরণের সময় রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের ...

সেই সোহাগ 'আটক'

সেই সোহাগ 'আটক'

নয়াপল্টনে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে বুধবার পুলিশের সঙ্গে সংঘাতের সময় ভাংচুর ...

যুক্তরাষ্ট্রের নতুন রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলার ঢাকায়

যুক্তরাষ্ট্রের নতুন রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলার ঢাকায়

বাংলাদেশে নতুন নিয়োগ পাওয়া যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার ঢাকায় ...

যুক্তরাজ্যে কবি দেলোয়ার হোসেন মঞ্জুর মৃত্যু

যুক্তরাজ্যে কবি দেলোয়ার হোসেন মঞ্জুর মৃত্যু

যুক্তরাজ্য প্রবাসী কবি ও কথা সাহিত্যিক দেলোয়ার হোসেন মঞ্জু আর ...

মির্জা আব্বাস দম্পতির আগাম জামিন হাইকোর্টে

মির্জা আব্বাস দম্পতির আগাম জামিন হাইকোর্টে

রাজধানীর নয়াপল্টনে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুরের ঘটনায় করা তিন মামলায় বিএনপির ...