ডাউন পেমেন্ট সিস্টেম

প্রকাশ: ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮      

আবুল কালাম আজাদ

অফিসে সবার মুখে একটাই কথা- ডাউন পেমেন্ট সিস্টেম। বারান্দায়, সিঁড়িতে, অজুখানায়, টয়লেটের সামনে একজন আরেকজনকে ধরে বলছে- বিষয়টা কী একটু খুলে বলেন তো ভাই সাহেব।

যার তলপেটের চাপে শরীর দিয়ে ঘাম বেরিয়ে যাচ্ছিল, সে চাপের কথা ভুলে বলতে শুরু করল- এটা একটা জনকল্যাণমূলক সিস্টেম। গরিবের জন্য উপকারী একটা সিস্টেম। কেউ পাবে তো কেউ পাবে না/তা হবে না সিস্টেম। তাহলে আপনাকে সবটা খুলেই বলি ...।

আসলে সিস্টেমটা কী তা সবারই জানা। তারপরও বিষয়টা নিয়ে সবারই অতি আগ্রহ। কারণ সিস্টেমটা এসেছে অফিসের বড় কর্তা বক্কর স্যারের মাথা থেকে।

ফক্কর স্যার অফিসের ছোটখাটো একজন অফিসার। তিনি বক্কর স্যারের মধ্যস্থতাকারী হিসেবে কাজ করেন। অত বড় অফিসার তো আর সরাসরি কারও সঙ্গে চুক্তি-টুক্তি নিয়ে কথা বলতে পারেন না। আর ফক্কর স্যার এ জন্য পার্সেন্টেজ পান। তিনি তার রুমে বসে ক্যালকুলেটর নিয়ে সেই পার্সেন্টেজই হিসাব করছিলেন। গত মাসে তিনি বক্কর স্যারের মধ্যস্থতাকারী হয়ে কয়টা কাজ করেছেন, তাতে কত টাকা আদায় হয়েছে এবং পার্সেন্টেজ হিসেবে তিনি কত টাকা পেয়েছেন। কিছুতেই তিনি হিসাব মেলাতে পারছিলেন না। তার শুধুই মনে হচ্ছিল, বক্কর স্যার তাকে ঠকিয়েছেন। বক্কর স্যার গভীর জলের মাছ। সাগর-উপসাগর না। তিনি চলেন প্রশান্ত মহাসাগরের মাটি ছুঁয়ে। ফক্কর স্যার অনেকক্ষণ হলো প্রস্রাব আটকে বসে আছেন। তিনি পণ করেছেন হিসাব না মিলিয়ে প্রস্রাব করবেন না। তাতে যদি কাপড় ভিজে যায় তো ভিজুক। যদি কিডনির দফারফা হয়ে যায়, যাক।

এরকম সময় রুমে ঢুকল বক্কর স্যারের পিয়ন জব্বর মিয়া। বলল- স্যার, হেড স্যার আপনাকে জরুরি সালাম দিয়েছেন। এই লোকটা বক্কর স্যারকে হেড স্যার বলে। আচানক কেউ শুনলে স্কুলের প্রধান শিক্ষক মনে করবে।

বক্কর স্যার জরুরি সালাম দিয়েছেন। ফক্কর স্যার ভুলে গেলেন কিডনির দফারফার কথা। ছুটে গেলেন বক্কর স্যারের রুমে। ফক্কর স্যার ঢুকতেই বললেন- বসুন, চা খান। তলপেট যেরকম ভারী হয়ে গেছে তাতে পেটে আর এক ফোঁটা তরল ঢুকানোও ঠিক না। ফক্কর স্যার সে কথা ভুলে গিয়ে চায়ের কাপে চুমুক দিলেন। বক্কর স্যার বললেন- শুনেছেন তো খবরটা?

-জি স্যার, শুনেছি।

-কেমন বুঝলেন?

ফক্কর স্যার যা বোঝার বুঝেছেন। প্রশান্ত মহাসাগরের মাছকে কীভাবে খুশি করতে হয় তিনি তা জানেন। বললেন- স্যার, একটু ক্লিয়ার করে বললে উপকৃত হতাম।

-এখানে ক্লিয়ারের তো কিছু নেই। জায়গা-জমি, ফ্ল্যাট কেনা-বেচার ক্ষেত্রে সিস্টেমটা আগে থেকেই চালু আছে। তারা চালু করেছে যাতে মধ্যবিত্তরাও জমি বা ফ্ল্যাটের মালিক হতে পারে। স্পিড মানির ক্ষেত্রে সিস্টেমটা আমিই প্রথম চালু করলাম।

-স্যার, হঠাৎ আপনার মাথায় এরকম একটা সিস্টেম চালু করার কথা এলো কেন?

-আমি অনেক ভেবে দেখেছি, এই অফিসে যারা অর্থনৈতিকভাবে ততটা সচ্ছল নয়, তারা কোনো কিছুই পাচ্ছে না। না কোয়ার্টার, না প্রমোশন, না অন্যকিছু। এর যে কোনোটার জন্য কমপক্ষে ৩-৪ লাখ টাকার দরকার হয়। তারা একযোগে তা দিতে পারে না। আমি চাই সবাই সমানভাবে সুযোগ গ্রহণ করুক। তাই এই ডাউন পেমেন্টে সিস্টেম।

-স্যার, আপনি পরোপকারী, গরিবের বন্ধু, জনদরদী, নিঃস্বার্থ-নির্ভীক সমাজকর্মী।

-দেখবেন স্পিড মানির ক্ষেত্রে আমার এই সিস্টেম সারাদেশে জনপ্রিয় হয়ে উঠবে। অফিস-আদালত চলবে এই সিস্টেমে। আমার এই সিস্টেম প্রয়োগ করলে দুর্নীতি সত্ত্বেও দেশের মানুষের উন্নতির সমতা থাকবে। বিশ্ববাসী অবাক হবে যে, দেশ দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন অথচ সব মানুষের উন্নতি হচ্ছে সমানভাবে। এই সিস্টেম মানে হলো- কেউ পাবে তো কেউ পাবে না/তা হবে না তা হবে না।

-স্যার, এই জন্যই আপনাকে প্রশান্ত...।

-প্রশান্ত মানে?

-কিছু না স্যার।

-এখন থেকে আপনার পার্সেন্টেজ আমি ১৫% থেকে বাড়িয়ে ২৫% করলাম। কী, খুশি হয়েছেন তো?

-জি স্যার... জি স্যার... জি স্যা... জি... জি।'

ফক্কর স্যার জি জি করতে করতে কেমন যেন টেসে গেলেন। বক্কর স্যার র‌্যাবের কুকুরের মতো ঘ্রাণ নিতে লাগলেন। তারপর নাক কুচকে বললেন- টয়লেটের গন্ধ আসছে মনে হয়?

ফক্কর স্যার বললেন- সরি স্যার...।

বক্কর স্যার টেবিলের নিচে তাকিয়ে দেখেন প্লাবন হয়ে গেছে। '৮৮-এর মহাপ্লাবন। তার জুতো সেই প্লাবনে ভাসছে। তিনি বললেন-২৫% পাবার আনন্দে কেউ যে এভাবে হিশু করে দিতে পারে তা...! ৫০% দিলে কী করতেন? তাহলে কি...? আশ্চর্য মানুষ আপনি!
শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নির্বাচনে যেতে চায় বিএনএ

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নির্বাচনে যেতে চায় বিএনএ

বিএনপির সাবেক মন্ত্রী ও তৃণমূল বিএনপির চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার ...

কালাইয়ে বেড়েছে কিডনি বিক্রি

কালাইয়ে বেড়েছে কিডনি বিক্রি

জয়পুরহাটের কালাই উপজেলায় অভাবী মানুষের কিডনি বেচাকেনা আবারও বেড়েছে। অভাবের ...

চট্টগ্রামে মহড়া, অস্ত্রধারী ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার

চট্টগ্রামে মহড়া, অস্ত্রধারী ছাত্রলীগ নেতা গ্রেফতার

চট্টগ্রাম কলেজে ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণাকে কেন্দ্র করে গত বুধবার দু'পক্ষের ...

জেএমবিকে অর্থ জোগাচ্ছে জঙ্গি শায়খের পরিবার

জেএমবিকে অর্থ জোগাচ্ছে জঙ্গি শায়খের পরিবার

নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামা'আতুল মুজাহিদীন অব বাংলাদেশকে (জেএমবি) চাঙ্গা ...

রাত ১১টার পর ফেসবুক বন্ধ করে দেয়া উচিত: রওশন

রাত ১১টার পর ফেসবুক বন্ধ করে দেয়া উচিত: রওশন

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক রাত ১১টার পর বন্ধ করে দেয়া ...

আফগানদের কাছে বড় হার বাংলাদেশের

আফগানদের কাছে বড় হার বাংলাদেশের

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটা বাংলাদেশ প্রস্তুতি হিসেবে নিচ্ছে। এমন একটা কথা ...

বিশ্বে প্রতি ৫ সেকেন্ডে ১ শিশুর মৃত্যু: জাতিসংঘ

বিশ্বে প্রতি ৫ সেকেন্ডে ১ শিশুর মৃত্যু: জাতিসংঘ

ইউনিসেফ, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও), জাতিসংঘের জনসংখ্যা বিভাগ ও বিশ্ব ...

বাবাকে বাঁচাতে গিয়ে ৬ বছরের শিশুর মৃত্যু

বাবাকে বাঁচাতে গিয়ে ৬ বছরের শিশুর মৃত্যু

লিজা আক্তার। বয়স মাত্র ৬ বছর। চোখের সামনে বাবা ট্রেনে ...